ইন্টারনেট ও স্মার্টফোনে সার্চের তালিকায় এগিয়ে গ্রামীণ ভারত

ইন্টারনেট অ্যান্ড মোবাইল ডেটার তথ্যে গিয়েছে শহরের থেকে গ্রামীণ এলাকায় ১০ শতাংশ সার্চ হয়েছে

ইন্টারনেট ও স্মার্টফোনে সার্চের তালিকায় এগিয়ে গ্রামীণ ভারত

গ্রামীণ এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২২.৭ কোটি (প্রতীকি ছবি)

নয়াদিল্লি:

স্মার্টফোন এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের (Internet Usage) সার্চ তালিকায় শহর এলাকার থেকে এগিয়ে গ্রামীণ ভারত। ইন্টারনেট অ্যান্ড মোবাইল ডেটার তথ্যে গিয়েছে শহরের থেকে গ্রামীণ এলাকায় ১০ শতাংশ সার্চ হয়েছে। শহরাঞ্চলের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা যেখানে ২০.৫ কোটি, সেখানে গ্রামীণ এলাকার ২২.৭ কোটি বলে সংস্থার সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে। সমীক্ষায় আরও ইঙ্গিত মিলেছে এই পরিবর্তন এসেছে স্মার্টফোন এবং হাই-স্পিড ডেটার কারণে। চলতি বছরের জানুয়ারিতে, প্রথমবার ভারতীয় স্মার্টফোনের বাজার পিছনে ফেলে দিয়েছে আমেরিকার বাজারকেও, চিনের পর ভারত দ্বিতীয় স্মার্টফোনের বাজার হয়ে উঠেছে। বর্তমানে ভারতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৫০.৪ কোটি, চিনের কাছে তা দ্বিতীয়। চিনে রয়েছে সবচেয়ে বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী, যার সংখ্যা ৮৫০ কোটি।

ডিজিটাল ইন্ডিয়া হ্যাশট্যাগ দিয়ে এই ট্যুইটে বিজেপির তরফে বলা হয়েছে এর ফলে গ্রাম ও শহরের বিভেদ ঘুচবে।

ট্যুইটে লেখা গিয়েছে, “প্রথমবার ভারতে শহরাঞ্চলের থেকে গ্রামীণ এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সংখ্যা বেশি। ২০১৯ এর নভেম্বরে গ্রা্মীণ এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২২.৭ কোটি এবং শহুরে ভারতের ক্ষেত্রে সেই সংখ্যাটা ছিল ২০.৫ কোটি। এককভাবে ইন্টারনেট উল্লখযোগ্যভাবে গ্রাম ও শহরের মধ্যে সেতুবন্ধন করেছে”।

২০১৭ সালে, “ইন্ডিয়া মোবাইল কংগ্রেসের” একটি রিপোর্টে জানানো হয়, ভারতের মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৩৩ শতাংশ, গ্রামীণ এলাকায় সেই সংখ্যাটা ১৬ শতাংশ। গত বছরের শুরুর দিকে, ইন্টারনেট ও মোবাইল অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, শহুরে ভারতের ১৯২ মিলিয়ন ব্যবহারকারী রয়েছে, যার কাছাকাছি রয়েছে গ্রামীণ ভারত”।