৯/১১ হামলার পর মার্কিনি প্রতিশোধের মতোই উচিত শিক্ষা দিতে হবে : Bipin Rawat

Fighting Against Terrorism: বৃহস্পতিবার রীতিমতো নাম না করে পাকিস্তানের প্রতি হুঁশিয়ারি দিলেন ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান

৯/১১ হামলার পর মার্কিনি প্রতিশোধের মতোই উচিত শিক্ষা দিতে হবে : Bipin Rawat

৯/১১-র পর যেভাবে আমেরিকা পাকিস্তানে ঢুকে লাদেনের ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিয়েছিল, সেই রকম পদক্ষেপই করতে হবে, বললেন Bipin Rawat

হাইলাইটস

  • আমেরিকার নেওয়া প্রতিশোধের মতোই পথ বেছে নিতে হবে ভারতের
  • সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কড়া বার্তা দিলেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত
  • নাম না করে পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি ভারতের প্রতিরক্ষা প্রধানের
নয়া দিল্লি:

যতদিন কিছু দেশ সন্ত্রাসবাদে (Terrorism) মদত দিতে থাকবে ততদিন সন্ত্রাসের বাড়বাড়ন্ত বন্ধ করা যাবে না, বললেন ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। এর থেকে বাঁচার একটাই উপায় রয়েছে, যেভাবে ৯/১১ হামলার পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সন্ত্রাসদমনে পদক্ষেপ নিয়েছিল, ঠিক সেইভাবেই পদক্ষেপ নিতে হবে। তবেই একমাত্র দমন করা যাবে সন্ত্রাসবাদকে, বলেন দেশের প্রতিরক্ষা প্রধানের (Bipin Rawat)। বৃহস্পতিবার রীতিমতো নাম না করে পাকিস্তানের (Pakistan) প্রতি হুঁশিয়ারি দিলেন বিপিন রাওয়াত। সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের দেওয়া খবর অনুযায়ী, প্রতিরক্ষা প্রধান বলেন, "সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কিছুতেই যুদ্ধ শেষ হচ্ছে না, লাগাতার সন্ত্রাস চলছে আর আমাদেরও এর সঙ্গে ক্রমাগত যুঝতে হচ্ছে, যতক্ষণ না আমরা সন্ত্রাসবাদের গোড়ায় গিয়ে একে সমূলে উৎপাটন করতে না পারছি ততদিন পর্যন্ত এই যুদ্ধ আমাদের চালিয়েই যেতে হবে" ।

"এই সন্ত্রাসবাদের অবসান ঘটাতে হলে একমাত্র একটাই পথ আছে। ঠিক যেভাবে ৯/১১ সন্ত্রাস হামলার পর মার্কিনিরা সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করেছিল, কেবল সেই পথে এগোলেই সন্ত্রাসবাদের নির্মূল করা সম্ভব। ওরা সেই সময় একথাও বলেছিল যে, আসুন আমরা সন্ত্রাসবিরোধী বিশ্ব যুদ্ধের পথ বেছে নিই। সন্ত্রাসবাদীদের শিক্ষা দিতে হবে তাই-ই নয়, যারা সন্ত্রাসবাদে মদত দিচ্ছে তাদেরও শিক্ষা দিতে হবে", এক অনুষ্ঠানে এই কথাই বলেন জেনারেল রাওয়াত।

Jammu and Kashmir ইস্যুতে ফের মুখ পুড়ল পাকিস্তানের, দাবি খারিজ রাষ্ট্রসংঘে

"যে সব দেশ সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে তাদের বিরুদ্ধেও পদক্ষেপ নিতে হবে। আমি মনে করি যে ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স (এফএটিএফ) যেভাবে এই ধরণের দেশকে কালো তালিকাভুক্ত করার মতো পদক্ষেপ করছে তা অত্যন্ত সময় উপযোগী। প্রয়োজনে এই ধরণের দেশকে কূটনৈতিক ভাবে বিচ্ছিন্ন করতে হবে", নাম না করে পাকিস্তানের প্রতি কড়া বার্তাই যেন দেন বিপিন রাওয়াত।

এটা ঠিক যে তিনি একবারও পাকিস্তানের নাম নেননি, কিন্তু গত ৩১ ডিসেম্বর প্রতিরক্ষা প্রধান হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণের পর জেনারেল রাওয়াতের এই বক্তব্যকে ইসলামাবাদের প্রতি কঠোর বার্তা হিসাবে ধরা হচ্ছে। ২০০৮ সালের "২৬/১১" মুম্বই জঙ্গি হামলার নেপথ্যের ষড়যন্ত্রকারীদের নিজেদের দেশে আশ্রয় দিয়েছে পাকিস্তান, এই অভিযোগ ভারত দীর্ঘদিন ধরেই করে আসছে।

“মাথা অনেক হাল্কা লাগছে”, দায়িত্ব নিয়ে বললেন প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান বিপিন রাওয়াত

ভারতের সেনাবাহিনীর প্রধান থেকে দেশের প্রতিরক্ষা প্রধান (Chief of Defence Staff) পদে কিছুদিন আগেই দায়িত্ব নেন বিপিন রাওয়াত। স্থল, জল ও বায়ুসেনা, এই তিন বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় বাড়ানো এবং অস্ত্রশস্ত্র কেনার প্রক্রিয়া স্থির করতেই এই পদ তৈরি করে মোদি সরকার। প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধানকে রিপোর্ট করবেন সেনা, নৌসেনা ও বায়ুসেনা বাহিনীর প্রধান, “সমান বাহিনীর মধ্যে প্রথম” বলে এই পদকে বর্ণনা করেছে কর্তৃপক্ষ। প্রতিরক্ষাবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিরাপত্তা নিয়ে সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে যোগাযোগ থাকবে বিপিন রাওয়াতের, এছাড়াও তিনি সব বাহিনীর সর্বোচ্চ প্রধানও থাকবেন।

More News