This Article is From Jun 12, 2020

করোনা পরিস্থিতিতে পাক প্রধানমন্ত্রীর সাহায্যের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিল ভারত

নগদ টাকা পাঠিয়ে ভারতের দরিদ্র মানুষদের সহায়তার প্রস্তাব দেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, "আমাদের কোভিড -১৯ প্যাকেজ আপনার জিডিপির সমান", জবাব ভারতের

করোনা পরিস্থিতিতে পাক প্রধানমন্ত্রীর সাহায্যের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিল ভারত

India Pakistan: ইমরান খানের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলো ভারত

হাইলাইটস

  • ভারতের দরিদ্র সম্প্রদায়ের মানুষকে সাহায্য করার প্রস্তাব দিলেন ইমরান খান
  • নিজেদের ক্যাশ ট্রান্সফার পদ্ধতির প্রশংসা করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী
  • ভারতের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে মোক্ষম জবাব
নয়া দিল্লি:

পাক প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাব হাসিমুখেই ফিরিয়ে দিল ভারত। এদেশে মহামারী রূপে দেখা দিয়েছে করোনা ভাইরাস। এই (Coronavirus) পরিস্থিতিতে ভারতের দরিদ্রদের অ্যাকাউন্টে নগদ টাকা পাঠিয়ে সাহায্যের প্রস্তাব দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তবে তাঁর (Imran Khan) সেই প্রস্তাব খারিজ করে দিয়ে জানানো হল যে, ওই মারণ রোগে দেশে মহামারীর আকার নেওয়ার পর ভারত সরকার যে অর্থনৈতিক ত্রাণ প্যাকেজের (COVID 19 Package) ঘোষণা করেছে তা পাকিস্তানের (India Pakistan) জিডিপির সমান (Pakistan GDP)। বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব একটি অনলাইন সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, "পাকিস্তান তাদের নিজেদের দেশের জনগণের অ্যাকাউন্টে নগদ দেওয়ার চেয়ে দেশের বাইরের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে নগদ টাকা স্থানান্তরের জন্যে পরিচিত। ইমরান খানের উপদেষ্টাদের এবিষয়ে আরও জানতে হবে"।

২৪ ঘণ্টায় ১০,০০০ পেরিয়ে গেল করোনা রোগীর সংখ্যা, মৃত ৩৯৬

তিনি বলেন, "পাকিস্তানের ঋণ সমস্যা (জিডিপির ৯০ শতাংশ) এবং ঋণ পুনর্গঠনের জন্য তারা কতটা চাপের মধ্যে রয়েছে, সে সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। এটা ওদের জেনে রাখা উচিত হবে যে আমাদের অর্থনৈতিক উদ্দীপনা প্যাকেজ পাকিস্তানের জিডিপির সমান"।

"উদ্বেগের কিছু নেই", অর্থনীতি ঠিক আছে, রামচন্দ্র গুহকে জবাব দিলেন নির্মলা সীতারামন

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গত মাসেই কোভিড -১৯ মহামারীর বিরূপ প্রভাব থেকে দেশের ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাগুলির মোকাবিলায় ২০ লক্ষ কোটি টাকার অর্থনৈতিক উদ্দীপনা প্যাকেজের ঘোষণা করেছেন।

দেশে লাগাতার বেড়ে চলেছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। ২৪ ঘণ্টায় ১০,০০০ পেরিয়ে গেল করোনা রোগীর সংখ্যা, মৃত ৩৯৬। ভারতে এখনও পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্ত ২,৯৭,৫৩৫ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্যে দেখা যাচ্ছে, সংক্রমণের বিচারে ব্রিটেনকেও ছাড়িয়ে গেছে ভারত। আমেরিকা, ব্রাজিল এবং রাশিয়ার পরে করোনা ভাইরাসের রোগীর সংখ্যা অনুযায়ী ভারত এখন বিশ্বের মধ্যে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। মারাত্মক এই ভাইরাসে একদিনের মধ্যে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১০,৯৫৬ জন।

ভারতের এই করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান একটি টুইটে বলেন যে, আমরা ভারতে দরিদ্রদের সাহায্য করতে প্রস্তুত আছি। আমাদের নগদ স্থানান্তর প্রোগ্রাম সারা বিশ্বে প্রশংসা পেয়েছে।

তবে আশার কথা এই যে, ভারতে ক্রমেই বাড়ছে করোনা থেকে পুনরুদ্ধারের সংখ্যাও। এই পুনরুদ্ধারের হার বেড়ে শুক্রবার সকালে ৪৯.৪৭ শতাংশ গিয়ে দাঁড়িয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত মোট ১,৪৭,১৯৫ জন সুস্থ হয়েছেন।