This Article is From Apr 20, 2020

কুয়োয় বন্দি বাঘমামা, মুক্তি পেলেন কীভাবে?

বন্দি বাঘমামার বেশ কয়েকটি ভিডিও এবং ছবি সোশ্যালে ঘুরছে। একই সঙ্গে প্রশংসা কুড়িয়েছে ভারতীয় বন বিভাগ (Forest Department)।

কুয়োয় বন্দি বাঘমামা, মুক্তি পেলেন কীভাবে?

মই বেয়ে কুয়ো থেকে উঠে এল চিতাবাঘ

মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) কুয়োর মধ্যে আটকে পড়া একটি চিতাবাঘকে (leopard) মইয়ের সাহায্যে উদ্ধার করা হয়। বন্দি বাঘমামার বেশ কয়েকটি ভিডিও এবং ছবি সোশ্যালে ঘুরছে। একই সঙ্গে প্রশংসা কুড়িয়েছে ভারতীয় বন বিভাগ (Forest Department)। টুইটারে চিতাবাঘের একটি ভিডিও শেয়ার করে প্রবীণ কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং বলেছন, ঘটনাস্থল রাঘোগড়ের খেরাই গ্রাম। ভিডিও প্রমাণ, কুয়ো বন্দি চিতাটি সমানে চেষ্টা চালিয়েছে নিজেকে বাইরে নিয়ে আসার। কিন্তু একটু উঠেই পা পিছলে পপাত কুয়োল জলে! বাইরে  তখন এলাকার মানুষ আর এবং পুলিশ কর্মীদের ভিড়।

লকডাউনে প্রথম জন্মদিন, কেক হাতে উপস্থিত 'পুলিশ কাকু'!

দেখুন:

ভিডিওটি মাইক্রোব্লগিং প্ল্যাটফর্মে প্রায় ৪,০০০ বার দেখা হয়েছে। অনেকেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন চিতাবাঘের জন্য। ভারতীয় বন বিভাগের আধিকারিক রবীন্দ্র মণি ত্রিপাঠি জানান, বন বিভাগের দক্ষ কর্মীদের নামিয়ে মইয়ের সাহায্যে চিতাবাঘকে উদ্ধার করা হয়। কুয়োর ভেতর মই নামাতেই সেটি বেয়ে ওপরে উঠে আসে বাঘটি। মইটিকে বেঁধে দেওয়া হয়েছিল কুয়োর গায়ে। সেই বেয়ে উঠে বাইরে বেরিয়ে এসেই তারপর এক দৌড়ে ঢুকে যায় সে গভীর জঙ্গলে। 

করোনা লকডাউনে এভাবেই মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়ায় লোকালয়ে চলে আসছে বন্যপ্রাণীরা। হাতি, গণ্ডার, ময়ূর, কচ্ছপ, ডলফিন, পেঙ্গুইনদের দেখা মিলছে লোকালয়ে। শহুরে রাস্তায়। বন বিভাগের মতে, দীর্ঘদিন অরণ্যে থাকতে থাকতে আচমকাই যেন মুক্তির স্বাদ পেয়েছে এরা। এতদিন মানুষের দাপটে লোকাল ছিল এদের জন্য নিষিদ্ধ। করোনার ভয়ে সভ্য দুনিয়া গৃহবন্দি হয়ে পড়ায় বন্যদের অবাধ বিচরণ এখন মানুষের বসতিতে। 

Click for more trending news