"আসুন, দেখুন": জন্মদিনে স্ট্যাচু অফ ইউনিটির ভিডিও শেয়ার প্রধানমন্ত্রীর

PM Narendra Modi Birthday: গত বছর, উত্তরপ্রদেশে নিজের সংসদীয় আসন বারাণসীর স্কুলে শিশুদের নিয়ে সময় কাটিয়ে জন্মদিন উদযাপন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী ।

Statue Of Unity-র ভিডিও শেয়ার করে সকলকে সেটি দেখতে আসার আহ্বান জানালেন PM Narendra Modi।

হাইলাইটস

  • ৬৯ বছরে পা দেওয়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গুজরাটে রয়েছেন ।
  • বিশ্বের দীর্ঘতম স্ট্যাচু অফ ইউনিটি পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী
  • "স্ট্যাচু অফ ইউনিটির মহিমা 'দেখুন," একটি ভিডিও দিয়ে ট্যুইট তাঁর
কেভাদিয়া, গুজরাট:

নিজের ৬৯ তম জন্মদিনে (PM Modi turns 69) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ (মঙ্গলবার) সকালে তাঁর নিজের রাজ্য গুজরাটে নর্মদা নদীর তীরে অবস্থিত স্ট্যাচু অফ ইউনিটি পরিদর্শন করেছেন। বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু এই মূর্তির একটি ভিডিওটি শেয়ার করে সকলকেই এটি দেখতে আসার জন্যে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী (PM Narendra Modi)। "ভারতের সর্দার প্যাটেলের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি 'স্ট্যাচু অফ ইউনিটির' দিকে নজর রাখুন," নিজের জন্মদিনে (PM Modi Birthday) একটি ভিডিও সহ  ট্যুইট করেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। 

গত বছর, ৩১ অক্টোবর সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের জন্মবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রী মোদি এই মূর্তিটির উদ্বোধন করেন।

৬৯ -এ পা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কিভাবে কাটাবেন আজকের দিনটি?

ধারাবাহিকভাবে ট্যুইট করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কেভাদিয়া অঞ্চলের জঙ্গল সাফারি এবং ক্যাকটাস গার্ডেনের ছবিও শেয়ার করেছেন।

গতকাল (সোমবার) রাতেই প্রধানমন্ত্রী মোদি গুজরাটে যান। নর্মদা নদীর উপর তৈরি স্ট্যাচু অব ইউনিটি ও সর্দার সরোবর বাঁধ সহ বিভিন্ন কর্মসূচি এবং প্রকল্প পর্যালোচনা করতে তিনি আজ (মঙ্গলবার) সকালে গান্ধিনগর থেকে নর্মদা জেলার কেভাদিয়ায় গিয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী নর্মদা বাঁধের জলের স্তর সরিজমিনে খতিয়ে দেখতেই সেখানে যান।  ২০১৭ সালে এই বাঁধটির উদ্বোধন করেছিলেন তিনি, এখন এখানকার জলস্তর এখনও পর্যন্ত উচ্চতম ১৩৮.৬৮ মিটারে পৌঁছেছে। সম্প্রতি তিনি "নামামি নর্মদে মহোৎসব"-এর উদ্বোধন করেছিলেন। গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানিকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী গুজরাটের জীবন নর্মদা নদীর জলকে 'স্বাগত' জানাতে বাঁধের কাছে এসে প্রার্থনাও করেছিলেন।

সাতসকালেই টুইটে প্রধানমন্ত্রী মোদিকে শুভেচ্ছা জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এই লক্ষ্য নিয়ে এই বাঁধটি তৈরি হয় যাতে ১৩১ টি শহর এবং ৯,৬৩৩ টি গ্রাম (গুজরাটের ১৮,১৪৪ ভাগের ৫৩ শতাংশ) এবং ১৫ টি জেলার 3,১১২ টি গ্রামের ১৮.৫৪ হেক্টর জমিতে সেচ সুবিধা সরবরাহ করা যায়।

প্রধানমন্ত্রী মোদির কর্মসূচিতে রয়েছে গরুড়েশ্বর গ্রামের দত্তাত্রেয় মন্দির এবং একটি শিশু উদ্যান পরিদর্শনও। এগুলির পর আমেদাবাদ থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে কেভাদিয়াযর একটি জনসভায় বক্তব্য রাখার কথা নরেন্দ্র মোদির।

গত বছর, উত্তরপ্রদেশে নিজের সংসদীয় আসন বারাণসীর স্কুলে শিশুদের নিয়ে সময় কাটিয়ে জন্মদিন উদযাপন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী ।

More News