বেতন না দেওয়ার জন্য 16 জন শিশুকে আটকে রাখা হল দিল্লির স্কুলে

বেতন না দেওয়ার জন্য দিল্লির একটি স্কুলে 16 জন কিন্ডারগার্টেন ছাত্রীকে স্কুলের মধ্যে আটকে রাখার অভিযোগ উঠল

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
বেতন না দেওয়ার জন্য 16 জন শিশুকে আটকে রাখা হল দিল্লির স্কুলে

শিশুরা ক্ষুধার্ত ও তৃষ্ণার্ত হওয়া সত্ত্বেও স্কুল কর্তৃপক্ষ পাত্তা দেয়নি বলে অভিযোগ।

নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. সকাল সাড়ে সাতটা থেকে দুপুর সাড়ে বারোটা অবধি আটকে রাখা হয়েছিল শিশুদের
  2. স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে
  3. প্রবল গরমে ওই শিশুরা অসুস্থ হয়ে পড়ে বলে অভিযোগ অভিভাবকদের

বেতন না দেওয়ার জন্য দিল্লির একটি স্কুলে 16 জন কিন্ডারগার্টেন ছাত্রীকে স্কুলের মধ্যে আটকে রাখার অভিযোগ উঠল।

হজ কাজি এলাকার ওই বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের অভিভাবকরা অভিযোগ করেন, তাঁদের সন্তানদের সকাল সাড়ে সাতটা থেকে দুপুর সাড়ে বারোটা পর্যন্ত স্কুলের বেসমেন্টে অত্যন্ত গরমের মধ্যে আটকে রাখা হয়েছিল। তাঁরা আরও অভিযোগ করেন যে, ওই ছাত্রীরা অত্যন্ত ক্ষুধার্ত এবং ভয়ঙ্কর গরমে তৃষ্ণার্ত হয়ে পড়া সত্ত্বেও স্কুল কর্তৃপক্ষ তাদের কোনওরকম যত্নই নেয়নি। পাত্তাও দেয়নি ক্ষুধার্ত ও তৃষ্ণার্ত শিশুদের আকুতিকে।

অভিভাবকদের মধ্যে একজন, জিয়াউদ্দিন বলেন, “স্কুলের বেতন না দেওয়ার জন্য বাচ্চাদের স্কুলের বেসমেন্টে প্রবল গরমের মধ্যে আটকে রেখে দেওয়া হয়েছিল। আমি স্কুলের বেতন দিয়ে দিয়েছিলাম। তা সত্ত্বেও, আমার মেয়ের সঙ্গে এমন আচরণ করা হল। বাচ্চারা গরমে তৃষ্ণার্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। পুলিশ অনেক সাহায্য করেছে আমাদের। আমি আমার বেতন দেওয়ার কাগজপত্র দেখানো সত্ত্বেও স্কুলের প্রিন্সিপাল এই ন্যক্কারজনক কাজের জন্য ক্ষমা চাননি, অনুতপ্তও হননি”।

অন্য আরেকজন অভিভাবক মহম্মদ খালিদ বলেন, “বেতন দেওয়া না হলেও এইভাবে কি বাচ্চাদের শাস্তি দিতে পারে কেউ? ওই ষোলজন ছাত্রী ক্রমাগত কেঁদে চলেছে”।

স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

“শিশু অধিকার আইনের 75 নম্বর ধারায় মামলা রুজু করেছি আমরা। তদন্ত চলছে”। সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানিয়েছে পুলিশ।


 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর, আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................