সমৃদ্ধশালী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিরোপা পেল আইআইটি খড়গপুরসহ পাঁচ প্রতিষ্ঠান

মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক (HRD Ministry) বৃহস্পতিবার ইনস্টিটিউট অফ এমিন্যান্স (Institution of Eminence) বা আইওই শিরোপা দিল আইআইটি খড়গপুরকে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
সমৃদ্ধশালী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিরোপা পেল আইআইটি খড়গপুরসহ পাঁচ প্রতিষ্ঠান

ইনস্টিটিউট অফ এমিন্যান্স (Institution of Eminence) বা আইওই শিরোপা পেল খড়গপুর আইআইটি।


মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক  বৃহস্পতিবার ইনস্টিটিউট অফ এমিন্যান্স (Institution of Eminence) বা আইওই শিরোপা দিল দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়, বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়, হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়, আইআইটি মাদ্রাজ ও আইআইটি খড়গপুরকে (IIT-Kharagpur)। গত মাসে ইউজিসি এই পাঁচ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সমৃদ্ধশালী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এই শিরোপা দেওয়ার প্রস্তাব জানায়। মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক বলেন, ‘‘পাঁচটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যথা দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়, বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়, হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়, আইআইটি মাদ্রাজ ও আইআইটি খড়গপুরকে ঘোষণা করা হল ইনস্টিটিউশন অফ এমিনেন্স হিসেবে।'' আরও পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয়কে এই সম্মান দেওয়ার জন্যও চিঠি দেওয়া হয়েছে। সেগুলি হল তামিলনাডুর অমৃতা বিদ্যাপীঠম এবং ভেলোর ইনস্টিটিউট, ওড়িশার কলিঙ্গ ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডাস্ট্রিয়াল টেকনোলজি, দিল্লির জামিয়া হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় এবং মোহালির সত্যভারতী ফাউন্ডেশনের ভারতী ইনস্টিটিউট।

রক্ত পরীক্ষার জন্যে স্বল্প মূল্যের যন্ত্র তৈরি করলেন আইআইটি খড়গপুরের গবেষকরা

এই প্রতিষ্ঠানগুলিকে ওই শিরোপার উপযুক্ত শিক্ষা প্রণালীর ব্যাপারে প্রস্তুতির কথা জানিয়ে দিতে হবে। নির্বাচন প্যানেলের কাছে নয়ডার শিব নাদর বিশ্ববিদ্যালয় ও সোনিপাতের ওপি জিন্দাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপারেও প্রস্তাব রয়েছে।

রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক জানাচ্ছেন, এ ব্যাপারে হরিয়ানা ও উত্তরপ্রদেশ সরকারের কাছেও চিঠি লেখা হয়েছে। যাতে তারা বিধানসভায় আইন পাস করিয়ে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে রাজ্যের অধীনে নিয়ে আসে। তাহলেও ওই শিরোপার জন্য তাদের নাম বিবেচনা করা যাবে।

একই বক্তব্য জানিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ও তামিলন‌াডুর আন্না বিশ্ববিদ্যালয়কে।

তিনি জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকার যদি ওই বিশ্ববিদ্যা‌লয়গুলির তহবিল ৫০ শতাংশ বাড়িয়ে দেন তাহলে তাদের ওই শিরোপা দেওয়া সম্ভব হবে।

গত বছরই মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক ঘোষণা করে মোট ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়কে এই শিরোপা দেওয়া হবে। এর মধ্যে ১০টি ‘পাবলিক' ও ১০টি ‘প্রাইভেট'। এই বিশ্ববিদ্যালয়গুলি প্রশাসনিক ও শিক্ষাগত ভাবে স্বশাসনের সুযোগ পাবে।

গত বছর সরকার এই শিরোপা দিয়েছিল আইআইটি দিল্লি, আইআইটি বম্বে এবং বেঙ্গালুরুর আইআইএসসিকে। তাদের ‘পাবলিক' সেক্টরে এই সম্মান দেওয়ার পাশপাশি ‘প্রাইভেট' সেক্টরেও দুইটি প্রতিষ্ঠানকে এই সম্মান দেওয়া হয়েছিল। সেগুলি হচ্ছে মণিপাল বিশ্ববিদ্যালয় ও বিআইটিএস পিলানি।

সব মিলিয়ে ১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এই শিরোপা দেওয়া হয়েছে। রাজ্য সরকারগুলির অনুমতিক্রমে আরও ৪টিকেও শিরোপা দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে মন্ত্রকের তরফে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................