“দাবি মিথ্যা”: সুখোই-৩০ যুদ্ধবিমান গুলি করে নামানোর পাক-দাবি খারিজ ভারতের

মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, সমস্ত পাকিস্তানী যুদ্ধবিমান নিরাপদে ফিরে গেছে কিনা, তা দেখার জন্যই ছিল সুখোই-৩০(Sukhoi-30)যুদ্ধবিমানগুলি।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
“দাবি মিথ্যা”: সুখোই-৩০ যুদ্ধবিমান গুলি করে নামানোর পাক-দাবি খারিজ ভারতের

Sukhoi-30: বিভিন্ন ধরণের কাজ করার ক্ষমতা রয়েছে সুখোই-৩০(Sukhoi-30) যুদ্ধবিমানের।


নিউ দিল্লি: 

ভারতীয় বায়ুসেনার(Indian Air Force) যুদ্ধবিমান(Aircraft) সুখোই-৩০(Sukhoi-30)গুলি করে নামানোর পাক দাবি খারিজ করে দিল ভারত। প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের যুদ্ধবিমানের(Pak Aircraft) পরাজয় আড়াল করতেই এই দাবি করা হয়েছে।

মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, সমস্ত পাকিস্তানী যুদ্ধবিমান নিরাপদে ফিরে গেছে কিনা, তা দেখার জন্যই ছিল সুখোই-৩০(Sukhoi-30)যুদ্ধ বিমানগুলি। মন্ত্রকের তরফে আরও বলা হয়েছে, “নিজেদের যুদ্ধবিমানের পরাজয় আড়াল করতেই সুখোই-৩০(Sukhoi-30)যুদ্ধবিমান গুলি করে নামানোর দাবি করছে পাকিস্তান। এই দাবি মিথ্যা”।

স্ট্রাইকের সময় এফ ১৬ বিমান ব্যবহার করেছিল পাকিস্তান, আমেরিকাকে জানালেন অজিত দোভাল

যুদ্ধবিমান লড়াইয়ের সময় পাকিস্তানের একটি F-16 যুদ্ধবিমানকে গুলি করে নামায় ভারতীয় বায়ুসেনার যুদ্ধবিমান বাইসন যুদ্ধবিমান।প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, “নিয়ন্ত্রণরেখায় তাদের দিকে পাকিস্তানী যুদ্ধবিমানের মোতায়েন সময়মত নজরে আসে এবং পরিস্থিতি সামাল দিতে আরও যুদ্ধবিমান পাঠানো হয়। আমাদের দিকে টার্গেট করলে, পাকিস্তানী যুদ্ধবিমানের জবাব দেওয়া হয়”।

সাহশ থাকলে আমার নামে মামলা করুন, মোদীর উদ্দেশে তোপ দিগ্বিজয় সিং

মন্ত্রকের তরফে আরও বলা হয়েছে, “ভারতীয় বায়ুসেনার(IAF) তরফে, মিরাজ-২০০০(Mirage-2000), সুখোই-৩০, মিগ ২১ বাইসন(MiG-21 Bison) পাকিস্তানী যুদ্ধবিমানকে জবাব দিচ্ছিল, পাক যুদ্ধবিমানকে পিছু হটতে বাধ্য করা হয়, তাদের তরফে অস্ত্র নিক্ষেপ করার দাবির বিপক্ষে এটাও একটা প্রমাণ”।

মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে, বিমানযুদ্ধ চলাকালীন পাকিস্তানের তরফে F-16 এবং AMRAAM এয়ার-টু-এয়ার মিসাইল নিক্ষেপ করা লক্ষ্য করা “তর্কাতীতভাবে দেখা গেছে”।

''৩০০ টি মোবাইল কি তাহলে গাছেরা ব্যবহার করছিল?'' বালাকোট এয়ার স্ট্রাইক নিয়ে প্রশ্ন তুললেন রাজনাথ সিংহ

F-16 ব্যবহার না করার জন্য আমেরিকার তরফে পাকিস্তানকে নিষেধ করা হয়েছিল, কারণ, এটি কেবলমাত্র সন্ত্রাসবিরোধী কার্যকলাপে ব্যবহার করা যায়।

প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, “তাৎক্ষণিক এবং সঠিকভাবে Su-30 যুদ্ধবিমান দিয়ে AMRAAM-এর জবাব দেওয়ায় মিসাইল দমন করা গেছে।মিসাইলের বিভিন্ন অংশ জম্মু কাশ্মীরের রাজৌরির পূর্বাংশে ছড়িয়ে পড়েছে, একজন আহতও হয়েছেন”।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................