ভারতীয় বায়ুসেনার অভিযান: মাসুদ আজাহারের শ্যালকের নেতৃত্বাধীন জইশ ক্যাম্পে হামলা চালানো হয়েছে: কেন্দ্র

পাকিস্তানে জইশ জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ এবং অস্ত্রের জোগান বন্ধ করার জন্য পাকিস্তানকে বারবার বার্তা দিয়েছে ভারত।

ভারতীয় বায়ুসেনার অভিযান: মাসুদ আজাহারের শ্যালকের নেতৃত্বাধীন জইশ ক্যাম্পে হামলা চালানো হয়েছে: কেন্দ্র

নিয়ন্ত্রণরেখায় জঙ্গিঘাঁটিতে বোমা ফেলে ভারতীয় বায়ুসেনার বিমান

বিদেশ সচিবের বিবৃতি: 

২০১৯-এর ১৪ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিরা সিআরপিএফের আত্মঘাতী হামলা চালায়, ঘটনায় শহিদ হন ৪০ জন জওয়ান। গত দু দশক ধরে পাকিস্তানে নিজেদের কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে জইশ-ই-মহম্মদ, তাদের প্রধান মাসুদ আজাহার, এবং এর সদর দফতর ভাওয়ালপুর।

২০০১-এর ডিসেম্বরে সংসদভবন এবং ২০১৬-এর জানুয়ারিতে পাঠানোকোটে বায়ুসেনার ঘাঁটিতে হামলা চালানো এই জঙ্গি সংগঠনকে নিষিদ্ধ করেছে রাষ্ট্রসংঘ।

সময়মতো পাক অধিকৃত কাশ্মীরে তাদের প্রশিক্ষণ শিবির হয়।নযদিও তার অস্তিত্ত্ব অস্বীকার করেছে পাকিস্তান। কয়েক হাজার জঙ্গিদের এই ধরণের বিরাট প্রশিক্ষণ শিবির পাকিস্তানের অজান্তে চলতে পারে না।

বালাকোটে জইশের জঙ্গি ঘাঁটিতে হামলা চালাল ভারত, জঙ্গি দমনেই অভিযান দাবি কেন্দ্রের

পাকিস্তানে জইশ জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ এবং অস্ত্রের জোগান বন্ধ করার জন্য পাকিস্তানকে বারবার বার্তা দিয়েছে ভারত। তাদের মাটিতে সন্ত্রাসবাদ তৈরি দমন করতে কোনও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করে নি পাকিস্তান।

বিশ্বস্ত গোয়েন্দা রিপোর্ট আসে, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আরও আত্মঘাতী হামলা চালানোর জন্য জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। আসন্ন বিপদের মুখে, একটি কঠোর পদক্ষেপ করা জরুরি হয়ে পড়েছিল।

গোয়েন্দাদের নেতৃত্বাধীন অপারেশনে আজ ভোররাতে, বালাকোটে জইশের সবচেয়ে বড় ঘাঁটিতে হামলা চালনো হয়। এই হামলয় নিকেশ করা হয়েছে জইশ জঙ্গিদের একটি বড় অংশ,প্রশিক্ষক, কমান্ডার এবং আত্মঘাতী জঙ্গিদের। এই ঘাঁটি চালাত জইশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজাহারের শ্যালক মৌলানা ইউসুফ আজাহার ওরফে উস্তাদ ঘুরি।

পাকিস্তানের ওপর হামলা চালানোয় বায়ুসেনার প্রশংসা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

সন্ত্রাসবাদের হুমকির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রয়োজনীয় সবরকম পদক্ষেপ করতে কঠোরভাবে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ভারত। অসামরিক এই অভিযান মূলত চালানো হয়েছে জইশ ক্যাম্পে। সাধারণ নাগরিকদের যাতে কোনও ক্ষয়ক্ষতি না হয়,সেদিকে নজর রেখেই এই হামলা চালানো হয়েছে।মানুষের বসবাস থেকে বহু দূরে ঘন জঙ্গলে একটি পাহাড়ের চূড়া থেকে এই হামলা চালানো হয়। কিছুক্ষণ আগেই এই হামলা হয়েছে, আমরা আরও তথ্যের অপেক্ষা করছি।

ভারতীয় বায়ু সেনার স্ট্রাইকের মাঝে নিরাপত্তা সংক্রান্ত উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী

ভারতের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের জন্য তার এবং তার এলাকাভুক্ত এলাকার মাটিকে ব্যবহার করতে দেবে না বলে ২০০৪ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিজ্ঞা করেছিল পাকিস্তান। আমরা আশা করব, পাকিস্তান তাদের কথা রাখবে, এবং জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে এবং তার জন্য জঙ্গিদের আটক করবে।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com