"পরিস্থিতি যাই হোক আমি পরিবারের সঙ্গেই আছি", বললেন প্রিয়াঙ্কা

বিকেল ৩ টে ৪৭ মিনিট নাগাদ ইডির অফিসে ঢোকেন রবার্ট বঢরা। তাঁর আইনজীবীদের দল তার মিনিটখানেক আগে পৌঁছে গিয়েছিলেন সেখানে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

রবার্ট বঢরাকে ইডি'র অফিসে নামিয়ে দিয়ে গেলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা।


নিউ দিল্লি: 

বুধবার দিল্লির এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট অফিসে হাজিরা দিলেন রবার্ট বঢরা। তাঁর সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী তথা কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরাও। এনডিটিকে তিনি বললেন, "এর মাধ্যমে একটি স্পষ্ট বার্তাই আমি দিতে চাই, সেটি হল, যে কোনও অবস্থাতেই আমি আমার পরিবারের সঙ্গেই রয়েছি"। তাঁর অবৈধ বৈদেশিক সম্পত্তি থাকা  এবং জালিয়াতির অভিযোগে যে মামলা চলছে, তার জন্যই ইডি তলব করে রবার্ট বঢরাকে। ইডির জামনগরের অফিসে তাঁকে সাদা ল্যান্ড ক্রুজারে করে নামিয়ে দিয়ে যান প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা। গাড়িতে তাঁদের সঙ্গে ছিলেন নিরাপত্তারক্ষীরাও। যদিও, প্রিয়াঙ্কা নিজে তারপর আর ওখানে থাকেননি। তিনি নিজের কনভয় নিয়ে বেরিয়ে যান।

বিকেল ৩ টে ৪৭ মিনিট নাগাদ ইডির অফিসে ঢোকেন রবার্ট বঢরা। তাঁর আইনজীবীদের দল তার মিনিটখানেক আগে পৌঁছে গিয়েছিলেন সেখানে।

0qjbb86o

অর্থ জালিয়াতির মামলায় জড়িত রবার্ট বঢরা এই প্রথম তদন্তের কারণে ইডির মুখোমুখি বসলেন।

এর আগে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে রবার্ট বলেছিলেন, তাঁকে রাজনৈতিকভাবে ফাঁসানোর চক্রান্ত চলছে। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই রাজনীতিতে যোগ দেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তারপরই তাঁকে পূর্ব উত্তরপ্রদেশের সাধারণ সম্পাদক পদের দয়িত্ব দেওয়া হয়।

এই মালায় আগাম জামিন চাইতে গিয়েছিলেন রবার্ট বঢরা। ওই সময়ই তাঁকে কেন্দ্রীয় সংস্থার সঙ্গে সহযোগিতা করার নির্দেশ দেয় দিল্লির আদালত।

লন্ডনে ছিলেন তিনি। আদালতের নির্দেশ মেনেই বুধবার হাজিরা দিলেন ইডি'র অফিসে।

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................