'আমি রাণুর সেক্রেটারি নই.'..! নাম শুনেই আঁতকে উঠলেন হিমেশ

হিমেশের কাছে জানতে চাওয়া হয় রাণুর কথা। সঙ্গে সঙ্গে আঁতকে উঠে বলেন তিনি, আমি রাণুর ম্যানেজার নই! শুনে তাজ্জব সাংবাদিকেরা।

'আমি রাণুর সেক্রেটারি নই.'..! নাম শুনেই আঁতকে উঠলেন হিমেশ

রাণুর নাম শুনেই চমকে গেলেন রেশমিয়া

হাইলাইটস

  • রাণু মণ্ডলের নাম শুনেই চমকালেন হিমেশ
  • আমি ওঁর ম্যানেজার নই! আঁতকে উঠে বললেন
  • 'ইন্ডিয়ান আইডল'-এ বিচারক হয়েছেন হিমেশ
নয়া দিল্লি:

রাণু মণ্ডল (Ranu Mondal), নামটা সোশ্যালে উঠলেই ভাইরাল হয়ে যাচ্ছে ইদানিং। ফলে, তাঁর নাম উচ্চারিত হলেই আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন তাঁর কাছের মানুষেরা। যেমন, হিমেশ রেশমিয়া (Himesh Reshammiya)। রাণুর গলা শুনে তাঁকে নিজের ছবিতে গান গাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছেন। হিমেশের সঙ্গে রাণু একটি নয়, তিনটি প্লে-ব্যাক করেছেন। স্বাভাবিক ভাবেই হিমেশের কাছে জানতে চাওয়া হয় রাণুর কথা। সঙ্গে সঙ্গে আঁতকে উঠে বলেন তিনি, আমি রাণুর ম্যানেজার নই! শুনে তাজ্জব সাংবাদিকেরা। অনেকেই বলছেন, কথাটা নাকি খুব ভালো মনে নেননি রাণু।  

B'Day Special: দক্ষিণী 'ঈশ্বর'-এর জন্মদিন কতটা 'স্পেশ্যাল' বানালেন মেয়েরা?

এপ্রসঙ্গে হিমেশ আরও বলেন, তিনি রাণু মণ্ডলের মতোই পলক মুছল, দর্শন রাওয়াল এবং আরও অনেক গায়ককেই গান গাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। যখনই যাঁর গলা ভালো লাগে তাঁর জন্য তিনি কিছু করার চেষ্টা করেন। তবে রাণুর জন্য হয়ত তিনি  অন্য সঙ্গীত পরিচালক ও প্রযোজকদের সঙ্গে কথা বলবেন। কারণ রাণুর কণ্ঠ সত্যিই ভালো।

প্রসঙ্গত, বলিউড অভিনেতা ও গায়ক হিমেশ রেশমিয়া রাণু মন্ডলের কণ্ঠে মুগ্ধ হয়ে তাঁকে তাঁর ছবি 'হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হির' ছবিতে তিনটি গান গাওয়ার সুযোগ দিয়েছিলেন। রাণুর সঙ্গে তাঁর ডুয়েট 'তেরি মেরি কাহানি', 'আশিকি মে তেরি' এবং 'আদত'। এরপরেই একের পর এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন রাণু। অনুরাগীর গায়ে হাত দিয়ে সেলফি তোলা নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেন। তাঁর মেকআপ নিয়েও চর্চা হয়।

More News
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com