"কংগ্রেস রাজনীতি দেখছে, আমরা দেশপ্রেম দেখছি": কাশ্মীর প্রসঙ্গে অমিত শাহ

৫ অগাস্ট অমিত শাহ Jammu and Kashmir থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের ঘোষণায় কেন্দ্রের নেতৃত্ব দিয়েছেন, এপ্রিল-মে মাসে লোকসভা নির্বাচনের সময় বিজেপি এই নিয়ে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিও দেয় ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

Jammu and Kashmir: মুম্বইয়ের সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ।


মুম্বই: 

মুম্বইয়ের একটি নির্বাচনী সমাবেশে জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) বিষয়ে কেন্দ্রের "ঐতিহাসিক" সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গ টেনে আনেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি (Amit Shah) ওই সমাবেশ থেকে ঘোষণা করেন, বিজেপি "এক দেশ, এক প্রধানমন্ত্রী এবং এক সংবিধানের" জন্যেই লড়াই করছে এবং করবে। ওই সমাবেশ থেকে বিরোধী দল কংগ্রেসের (Congress) উদ্দেশেও তোপ দাগেন অমিত শাহ। কংগ্রেস জাতীয় সুরক্ষা এবং অখণ্ডতার ইস্যু নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগ তুলেছিল। ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের পদক্ষেপের তীব্র প্রতিবাদও জানায় দলটি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সমাবেশ থেকে আরও দাবি করেন যে বিজেপির নেতৃত্বাধীন জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট (এনডিএ) মহারাষ্ট্রের নির্বাচনে বিরোধীদের একেবারে সাফ করে দেবে।  বর্তমানে শিবসেনার সঙ্গে জোট গড়ে ক্ষমতায় রয়েছে এনডিএ। অমিত শাহ বলেন মহারাষ্ট্রে ফের দ্বিতীয় মেয়াদে ফিরে আসবেন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র  ফড়নবিশ। 

"নয়া কাশ্মীর, নতুন স্বর্গ”, মহারাষ্ট্রে জনসভায় বললেন প্রধানমন্ত্রী

"প্রত্যেক নাগরিক কাশ্মীরকে দেশের অবিচ্ছেদ্য অংশ করা হয়েছিল একথা বলতেন, কেন এমন বলা হত ? কারণ কাশ্মীরের জন্য অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাধা ছিল। তবে এখন আমি গর্বের সঙ্গে বলতে পারি যে কাশ্মীর ভারতের একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ কারণ কোন অনুচ্ছেদ ৩৭০ বা অনুচ্ছেদ ৩৫ এ-র বাধা নেই এখন", সমবেত জনতাকে উদ্দেশ্য করে বলেন অমিত শাহ।

৫ অগাস্ট অমিত শাহ জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের ঘোষণায় কেন্দ্রের নেতৃত্ব দিয়েছেন, এপ্রিল-মে মাসে লোকসভা নির্বাচনের সময় বিজেপি এই নিয়ে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিও দেয় । 

ওই পদক্ষেপের পরেই এই অঞ্চলে একটি কঠোর সুরক্ষা ব্যবস্থা জারি করা হয়, ফোন এবং ইন্টারনেট পরিষেবাও বন্ধ করে দেওয়া হয়।  প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লা সহ প্রায় ৪০০ জন রাজনৈতিক নেতাকে গ্রেফতার করা হয়।

‘‘পাকিস্তান নীচু হোক, আমরা উঁচুতে উড়ব'': রাষ্ট্রসঙ্ঘের অধিবেশনের আগে ভারত

শনিবার নির্বাচন কমিশন জানায়, আগামী ২১ অক্টোবর মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানায় বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দুই রাজ্য জুড়ে প্রায় ১১ কোটি মানুষ ভোটদান করবেন। ফল প্রকাশিত হবে ২৪ অক্টোবর।

জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর দেশের মধ্যে কোনও রাজ্যে এটিই প্রথম নির্বাচন হবে এবং বিজেপি ইতিমধ্যে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে যে উভয় রাজ্যেই এপ্রিল-মে মাসে জাতীয় নির্বাচনের সময় অন্যতম মূল প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল জম্মু ও কাশ্মীরের বিষয়টিই আর যা ইতিমধ্যেই রক্ষা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও ইতিমধ্যে মহারাষ্ট্রের নাসিক এবং হরিয়ানায় রোহতকের নির্বাচনী সমাবেশে এই বিষয়টি উত্থাপন করেছেন, যেখানে তিনি জম্মু ও কাশ্মীরের বিষয়ে তাঁর নিজের দৃষ্টিভঙ্গির কথাও বলেছেন।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................