হাইকোর্টের নির্দেশে মুকুল রায়ের গ্রেফতারির রক্ষাকবচ বাড়ল

হাইকোর্টের নির্দেশে বাড়ল মুকুল রায়ের গ্রেফতারির রক্ষাকবচ। পরবর্তী আদেশ না পাওয়া পর্যন্ত ওই বিজেপি নেতাকে গ্রেফতার করা যাবে না

হাইকোর্টের নির্দেশে মুকুল রায়ের গ্রেফতারির রক্ষাকবচ বাড়ল

পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত মুকুল রায়কে গ্রেফতার করা যাবে না, বলেছে হাইকোর্ট।

হাইলাইটস

  • পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত মুকুল রায়কে গ্রেফতার করতে পারবে না পুলিশ
  • মঙ্গলবার নির্দেশ হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের
  • ঘুষের বিনিময়ে রেলের কমিটির সদস্য নির্বাচনে নাম জড়িয়েছে তাঁর
কলকাতা:

হাইকোর্টের (High Court) নির্দেশে বাড়ল মুকুল রায়ের গ্রেফতারির (Arrest) রক্ষাকবচ। পরবর্তী আদেশ না পাওয়া পর্যন্ত ওই বিজেপি নেতাকে গ্রেফতার করা যাবে না। মঙ্গলবার কলকাতা পুলিশকে (Kolkata Police) নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ (Division Bench)। ঘুষের বিনিময়ে রেল প্যানেলের সদস্য নির্বাচন সংক্রান্ত মামলার শুনানিতে এদিন এই আদেশ দিলেন বিচারপতি এস মুন্সি আর মহম্মদ নিজমুদ্দিনের ডিভিশন বেঞ্চ।  এদিন শুনানিতে তাঁরা বলেছেন, এই মামলা এখনও আদালতের চূড়ান্ত শুনানির তালিকায় নথিভুক্ত হয়নি। তাই আগে এটা বেঞ্চের সামনে নথিভুক্ত করান। এমন আবেদন সরকারি আইনজীবী ও আবেদনকারীদের কাছে করেছে ডিভিশন বেঞ্চ। পাশাপাশি তদন্তে সহযোগিতা করতে মুকুল রায়কে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 

প্রয়োজনে রাজ্যপালকে ছাড়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন: পার্থ চট্টোপাধ্যায়

এ বিষয়ে এদিন সরকারি তরফের আইনজীবী (Prosecutor) কোর্টের কাছে চূড়ান্ত শুনানির আগে সময় চেয়ে নিয়েছেন।দাবি করেছেন, এই মামলা সংক্রান্ত তদন্তের নথি খতিয়ে দেখতে ও কেন্দ্রীয় সংস্থার থেকে তথ্য তুলতে আরও কিছুদিন সময় চাই।

এই মামলা সন্তু গাঙ্গুলি নামে এক ব্যবসায়ীর এফআইআর-এর প্রেক্ষিতে দাখিল করা। তাঁর অভিযোগ, 'বাবান ঘোষ নামে এক বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে। সেই বিজেপি কর্মী মুকুল রায়ের নাম উল্লেখ করে তাঁর কাছে এসেছিলেন। তিনি আশ্বাস দিয়েছিলেন কয়েক লক্ষ টাকা ঘুষ দিলে তাঁকে রেলের জোনাল এক কমিটির সদস্য করে দেওয়া হবে।'

রানাঘাটে করা মন্তব্যের জন্য দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের

এরপর গত অগস্টে বাবান ঘোষকে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশ। এই মামলায় মুকুল রায়ের নাম জড়ানো। তাই আদালতের কাছে গ্রেফতারি এড়াতে  অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের (Anticipatory Bail) আবেদন করেছিলেন ওই বিজেপি নেতা। সেবার তাঁর (Mukul Ray) আবেদন মঞ্জুর করেছিল আদালত। এরপর ধাপে ধাপের বাড়ানো হয়েছে জামিনের মেয়াদ। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News