দেশ যেন সমৃদ্ধি-সৌভাগ্যের আলোয় আলোকিত হয়: দীপাবলিতে কামনা নরেন্দ্র মোদির

Happy Diwali: সূত্রের খবর, প্রতিবছরের মতো প্রধানমন্ত্রী মোদি সীমান্ত অঞ্চলে কর্মরত সৈন্যদের সঙ্গে নিয়েই আলোর উত্সব উদযাপন করবেন।

দেশ যেন সমৃদ্ধি-সৌভাগ্যের আলোয় আলোকিত হয়: দীপাবলিতে কামনা নরেন্দ্র মোদির

Happy Diwali 2019: রবিবার সকলকে দীপাবলির শুভেচ্ছা জানালেন মোদি

নয়াদিল্লি:

রবিবার, আলোর উৎসব দীপাবলি (Diwali) উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছাবার্তা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Prime Minister Narendra Modi) এবং রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ (President Ram Nath Kovind)। দীপাবলি উপলক্ষে সকল মানুষ ও দেশের জন্য সৌভাগ্যের কামনাও করেছেন তাঁরা। হিন্দিতে প্রধানমন্ত্রী মোদি টুইট করেছেন, “দীপাবলি উপলক্ষে দেশের সকল মানুষকে শুভেচ্ছা। আলোর এই উত্সব যেন সবার জীবনে নতুন আলো বয়ে আনে এবং আমাদের দেশ সর্বদা সুখ, সমৃদ্ধি এবং সৌভাগ্যের আলোয় যেন আলোকিত থাকে।” প্রধানমন্ত্রী তার টুইটের সঙ্গে সই করা একটি ছবিও শেয়ার করেছেন। 

দাম বাড়লেও থোড়াই কেয়ার! জানেন ধনতেরাসে রেকর্ড কত পরিমাণ সোনা কিনল দেশবাসী?

'ভবতারিণীকে তুঁতে বেনারসী পরানো হয়েছে', না দেখেই কী করে বলেছিলেন পান্নালাল?

রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দও ভালোবাসা, যত্ন ও সংবেদনশীলতার প্রদীপ জ্বালিয়ে দরিদ্রদের জীবনে সুখ নিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি টুইট করেছেন, “দীপাবলির শুভ উপলক্ষে সহ নাগরিকদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আসুন আমরা এই দিন প্রেম, যত্ন এবং ভাগ করে নেওয়ার মানসিকতার প্রদীপ জ্বালিয়ে যারা কম ভাগ্যবান ও অভাবী তাদের জীবনে আনন্দ আনার চেষ্টা করি।”

সূত্রের খবর, প্রতিবছরের মতো প্রধানমন্ত্রী মোদি সীমান্ত অঞ্চলে কর্মরত সৈন্যদের সঙ্গে নিয়েই আলোর উত্সব উদযাপন করবেন।

গত বছরও, মোদি উত্তরাখণ্ডে ভারত-চীন সীমান্তের কাছে সেনাবাহিনী এবং আইটিবিপি সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে দীপাবলি উদযাপন করেছিলেন।

২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে প্রধানমন্ত্রী মোদি জওয়ানদের সঙ্গে সিয়াচেনে তাঁর দীপাবলি কাটিয়েছিলেন।

২০১৫ সালে, প্রধানমন্ত্রী মোদি দীপাবলিতে পাঞ্জাব সীমান্ত পরিদর্শন করেছিলেন। ১৯৬৫ সালের ভারত-পাক যুদ্ধের ৫০ বছরের ওই সময় তিনি সফর করেছিলেন সীমান্তে।

More News