"সরকার গরুর গাড়ির গতিতে কাজ করছে": বললেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

West Bengal: বিধানসভার অধিবেশনে তৃণমূল বিধায়করা রাজ্যপালের বিরুদ্ধে বিলে সম্মতি জানাতে দেরী করার অভিযোগ করলে তাঁর পাল্টা জবাব এভাবেই দিলেন তিনি

Bengal Governor: এর আগে সংবিধানের ১৭৫ (২) অনুচ্ছেদ তুলে ধরে কোনও রাজ্যপাল প্রশ্ন করেছেন তা দেখা যায়নি

হাইলাইটস

  • ফের রাজ্য সরকারের সঙ্গে রাজ্যপালের দ্বন্দ্ব
  • গরুর গাড়ির গতিতে কাজ করছে সরকার, অভিযোগ জগদীপ ধনখড়ের
  • মঙ্গলবার রাজ্যপালের বিরুদ্ধে বিধানসভায় বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল বিধায়করা
কলকাতা:

রাজ্য সরকারের সঙ্গে রাজ্যপাল (Bengal Governor) জগদীপ ধনখড়ের দ্বন্দ্ব ক্রমশ বেড়েই চলেছে। "সরকার গরুর গাড়ির গতিতে কাজ করছে", রাজ্য সরকারের (Bengal Government) কাজ নিয়ে এবার এই মন্তব্যই করে বসলেন রাজ্যপাল। বিধানসভার অধিবেশনে তৃণমূল বিধায়করা রাজ্যপালের বিরুদ্ধে বিলে সম্মতি জানাতে দেরী করার অভিযোগ করলে তাঁর পাল্টা জবাবও দেন ধনখড়। তিনি (Jagdeep Dhankar) বিধানসভার অধ্যক্ষের কাছে সংবিধানের ১৭৫ (২) অনুচ্ছেদ উল্লেখ করে জানতে চান যে তফসিলি জাতি এবং তফসিলি উপজাতি নিয়ে কেন্দ্রের পৃথক আইন থাকা সত্ত্বেও কেন রাজ্য সরকার নয়া আইন করছে ? বিল নিয়ে তাঁর দীর্ঘসূত্রিতার যে অভিযোগ রাজ্যের শাসকদল করেছে সে বিষয়ে রাজ্যপালের সাফ যুক্তি, তিনি এই বিষয়ে সরকারের কাছে জানতে চাইলে কোনও জবাব মেলেনি, আর সেই কারণেই ওই বিলে এখনও সম্মতি দেননি তিনি। এর আগে সংবিধানের ১৭৫ (২) অনুচ্ছেদ তুলে ধরে কোনও রাজ্যপাল প্রশ্ন করেছেন তা সচরাচর দেখা যায়নি।

তফসিলি জাতি এবং তফসিলি উপজাতি নিয়ে কেন্দ্রের পৃথক আইন থাকা সত্ত্বেও কেন রাজ্য সরকার নয়া আইন করছে এ নিয়ে প্রশ্ন তুলে রাজ্যপাল চিঠি দিলেও জগদীপ ধনখড়ের ওই চিঠিটি মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশন স্থগিত হওয়ার মধ্যে পেশ করা হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজ্যপালের ক্ষমতা কমানোর পদক্ষেপ রাজ্য সরকারের

বিকেল ৫ টা নাগাদ রাজভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে জগদীপ ধনখড় বলেন, "এটা কি রাজ্যপালের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র?" "আমি কখনই এই ষড়যন্ত্রে মধ্যে পড়ব না। আমি দুর্বল নই। আমি একটি সাংবিধানিক পদে রয়েছি।"

মনে করা হচ্ছে যে, যেভাবে মঙ্গলবার সকালে বিধানসভা ভবনে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল বিধায়করা, তার পরিপ্রেক্ষিতেই ওই চিঠিটি পাঠান রাজ্যপাল। শাসক দলের বিধায়কদের অভিযোগ, রাজ্যপাল ওই বিলে সম্মতি না দেওয়ায় তা বিধানসভায় আলোচনার জন্যে পেশ করা সম্ভব হয়নি।

রাজ্যপাল বলেন, তিনি ৫ ডিসেম্বর সরকারের কাছে তফসিলি জাতি-উপজাতি বিল নিয়ে কিছু ব্যাখ্যা চেয়েছিলেন। তার কোনও জবাব এখনও রাজ্যপালের কাছে পৌঁছায়নি।

জগদীপ ধনখড় বলেন, বিলটি রাজ্যে তফসিলি জাতি/ উপজাতির জন্য একটি কমিশন গঠনের বিষয়ে করা হয়েছে। কিন্তু যেখানে জাতীয় স্তরে তফসিলি জাতি/ উপজাতির জন্য কমিশন ইতিমধ্যেই রয়েছে, তখন এ বিষয়ে রাজ্য কমিশনের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রীকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুখোমুখি আলোচনার আহ্বান জানালেন রাজ্যপাল

রাজ্যপালের বিরুদ্ধে ক্ষমতাসীন দলের বিধায়কদের বিক্ষোভ যে কেবল অস্বাভাবিক তা নয়, তৃণমূলের চিফ হুইপ, পরিষদীয় মন্ত্রী এবং বিধানসভার অধ্যক্ষ স্বয়ং যেভাবে জগদীপ ধনখড়ের সমালোচনায় সরব হয়েছেন তাও নজিরবিহীন। 

কোনও বিল উত্থাপন ও সভায় আলোচনার আগেই রাজ্যপালের আদৌ সেই বিল নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপনের অধিকার আছে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য । তিনি জোর গলায় বলেন যে, সরকারের তার নিজস্ব তফসিলি জাতি/ উপজাতির জন্য একটি কমিশন গঠনের বিষয়ে সম্পূর্ণ ক্ষমতা আছে।

দেখুন এই ভিডিও:

More News