অবসরকালীন ভাতা (পেনশন ফান্ড) নিয়ন্ত্রণে এবার একটাই সংস্থা: সূত্র

অবসরকালীন ভাতাগুলোকে (পেনশন ফান্ড) এবার এক নিয়ামক সংস্থার অধীনে আনতে চলেছে অর্থ মন্ত্রক। এযাবৎকাল কর্মচারীদের অবসরকালীন ভাতা (Pension Products) সংক্রান্ত ফান্ড, সেবি আর আইআরডিএআই (IRDAI)  নিয়ন্ত্রণ করে এসেছে।

অবসরকালীন ভাতা (পেনশন ফান্ড) নিয়ন্ত্রণে এবার একটাই সংস্থা: সূত্র

ইপিএফও এই সংস্থার নিয়ন্ত্রণাধীন হবে না

হাইলাইটস

  • অবসরকালীন ভাতা নিয়ন্ত্রণে এবার একটাই সংস্থা
  • সেই মর্মে প্রস্তাব গেছে অর্থমন্ত্রকে, অপেক্ষা ক্যাবিনেটের সিলমোহরের
  • ইপিএফও, এই নতুন সংস্থার আওতাধীন নয়
নয়াদিল্লি:

অবসরকালীন ভাতাগুলোকে (পেনশন ফান্ড) এবার একই নিয়ামক সংস্থার অধীনে আনতে চলেছে অর্থ মন্ত্রক। এযাবৎকাল কর্মচারীদের অবসরকালীন ভাতা (Pension Products) সংক্রান্ত ফান্ড, সেবি আর আইআরডিএআই (IRDAI)  নিয়ন্ত্রণ করে এসেছে। কিছু দেখেছে মিউচুয়াল ফান্ড। এবার তাদের থেকে সেই ক্ষমতা কেড়ে একক নিয়ামক (Single Regulatory) সংস্থার অধীনে ইউনিট লিংকড পেনশন প্ল্যানস, এমপ্লয়িজ পেনশন স্কিম (EPS) সংক্রান্ত প্রকল্পগুলো আনা হবে। পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি অথরিটি এমন প্রস্তাব পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রককে। সেই প্রস্তাব খতিয়ে দেখে একটাই নিয়ামক সংস্থা গঠনে তৎপর মন্ত্রক। সূত্রের খবর, "অবসরকালীন কয়েকটি প্রকল্প কর্মী কিংবা সংশ্লিষ্ট বীমা সংস্থা নিয়ন্ত্রণ করে। ইপিএফও'র (EPFO) মতো প্রকল্প কর্মচারী ও সেই সংস্থা যৌথ ভাবে নিয়ন্ত্রণ করে। মিউচুয়াল ফান্ড আবার সেবির (SEBI) নিয়ন্ত্রণাধীন একাধিক অবসরকালীন প্রকল্পর নিয়ন্ত্রক। সেই সব সংস্থা ভেঙে নতুন একটা নিয়ন্ত্রক সংস্থা তৈরি হবে। যারা কেবল অবসরকালীন ভাতা সংক্রান্ত প্রকল্প নিয়ন্ত্রণ করবে।"

সূত্র আরও জানিয়েছে, পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি অথরিটি গত মাসে অর্থ মন্ত্রককে এই মর্মে প্রস্তাব পাঠিয়েছে। সেই প্রস্তাবের ওপর মন্ত্রকে-মন্ত্রকে (অর্থ-শ্রম) আলোচনাও সাড়া। এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার চূড়ান্ত সিলমোহরের অপেক্ষা। জানা গেছে এমপ্লয়ি প্রভিডেন্ট ফান্ড (ইপিএফও)-র মতো প্রকল্প এই সংশোধিত সংস্থার নিয়ন্ত্রণে আসবে না। এই প্রকল্পের অধীনে প্রায় ১৫ লক্ষ-কোটি টাকার ফান্ড গচ্ছিত। তাই এত বড় অঙ্কের ফান্ড, নতুন নিয়ামক সংস্থা হিসেবে ওই সংশোধিত সংস্থার হাতে তুলে দিতে নারাজ শ্রম মন্ত্রক। এনপিএস আর প্রাইভেট পেনশন স্কিমের মতো প্রকল্পগুলোতে ১০ লক্ষ কোটি টাকার নীচে অর্থ গচ্ছিত।  সেক্ষেত্রে এই প্রকল্পের নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে উঠে আসবে ওই নতুন নিয়ামক সংস্থা।

এমনকি, বেসরকারি সংস্থা, যারা অবসরকালীন সুযোগ-সুবিধা খাতে বিনিয়োগ করতে বলে, সেই সব সংস্থা যেমন এইচডিএফসি লাইফ, আইসিআইসিআই প্রু, ম্যাক্স লাইফ, বাজাজ আলিয়াঞ্জ-এর মতো সংস্থাগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করবে এই নিয়ামক সংস্থা।

এদিকে, আগামী ৫ বছরে পরিকাঠামো উন্নযনে প্রায় ১০২ লক্ষ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে সরকার। তেমন ঘোষণাই দিন কয়েক আগে করেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। ২০২৪-২৫-এর মধ্যে ৫ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতি হিসেবে দেশকে তুলে ধরতে এই পরিকাঠামো উন্নয়নে বিনিয়োগ, জানিয়েছে সূত্র।             

(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি। খবরের সূত্র মারফত নেওয়া স্বয়ংক্রিয় সম্পাদনা )



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News