বোরখায় ছদ্মবেশে মহিলাদের শৌচালয়ে ঢুকলেন সরকারি কর্মচারী এই পুরুষ, তারপর?

পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্যক্তির নাম ভার্গিল ফার্নান্দেজ, তিনি রাজ্য সরকারের এক কর্মচারী। তাঁকে ওই পোশাকে ধরে ফেলেন আশেপাশের স্থানীয় মানুষরাই।

বোরখায় ছদ্মবেশে মহিলাদের শৌচালয়ে ঢুকলেন সরকারি কর্মচারী এই পুরুষ, তারপর?

অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪১৯ ধারা (ছদ্মবেশ) অনুযায়ী মামলা করা হয়েছে

পানাজি:

মহিলাদের শৌচালয়ে বোরখা পরে ঢুকছিলেন এক চরিত্র। সাধারণভাবে সন্দেহ হওয়ার কথাও নয়। কিন্তু আশেপাশের মানুষ ঠিক ধরে ফেলেন বোরখা পরলেও আসলে এই চরিত্র কোনও মুসলিম মহিলাই নন। আসলে একজন পুরুষ। বছর ৩৫-এর এই ব্যক্তিকে আটক করেছে গোয়া পুলিশ। শনিবার গোয়ার কেন্দ্রীয় বাস স্ট্যান্ডে মুসলিম মহিলাদের মতো বোরখায় শরীর ঢেকে ওই ব্যক্তি মহিলাদের শৌচালয়ে প্রবেশ করেন। 

‘মেক ইন ইন্ডিয়া' নিয়ে কংগ্রেসের খোঁচা টুইটারে, পাল্টা আক্রমণ বিজেপি-র

পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্যক্তির নাম ভার্গিল ফার্নান্দেজ, তিনি রাজ্য সরকারের এক কর্মচারী। তাঁকে ওই পোশাকে ধরে ফেলেন আশেপাশের স্থানীয় মানুষরাই। হিজাবে মাথা ঢেকে, বোরখা পরা অবস্থায় বাস স্ট্যান্ডের মহিলাদের শৌচালয় থেকে বেরিয়ে আসার সময়ই তাঁকে বাকি লোকেরা পাকড়াও করেন। এমন আচরণের কী কারণ তা এখনও স্পষ্ট নয়। 

বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে 'যান্ত্রিক ত্রুটি', টুইট যুদ্ধ রাহুল ও পীযুষ গোয়েলের মধ্যে

গোয়া পুলিশের একজন মুখপাত্র সাংবাদিকদের বলেন, “পানাজি বাস স্ট্যান্ডে একটি মহিলাদের শৌচালয়ে প্রবেশ করার জন্য একজন মুসলিম নারীর ছদ্মবেশ ধারণ করার জন্য অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪১৯ ধারা (ছদ্মবেশ) অনুযায়ী মামলা করা হয়েছে।"



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News