This Article is From Dec 10, 2019

‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ থেকে দেশ এগোচ্ছে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’র দিকে: অধীর চৌধুরী

অধীর চৌধুরী বলেন ২০১৬ সালে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, ভারতে ৩৮,৯৪৭টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। দৈনিক হিসেবে গড়ে ১০৬.৭টি ধর্ষণ।

‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ থেকে দেশ এগোচ্ছে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’র দিকে: অধীর চৌধুরী

দেসে বাড়তে থাকা ধর্ষণের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ অধীর চৌধুরীর।

নয়াদিল্লি:

তেলেঙ্গানার ধর্ষিতাকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে হত্যা করার পর ঘটেছে উন্নাওয়ের ধর্ষিতাকে পুড়িয়ে মারার ঘটনা। দেশজুড়ে নারীর নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত বহু মানুষ। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করলেন লোকসভায় কংগ্রেসের (Congress) নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী (Adhir Ranjan Chowdhury)। এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নীরবতার সমালোচনা করে কংগ্রেস নেতা বলেন, ‘‘ভারত ‘মেক ইন ইন্ডিয়া' থেকে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া' হয়ে উঠছে।'' সংসদে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল ‌নিয়ে উত্তপ্ত বিতর্কের মধ্যেই কংগ্রেস নেতা দাবি করেন, দেশে প্রতিদিন শতাধিক ধর্ষণ ঘটছে। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর নিষ্ক্রিয়তা প্রসঙ্গে তাঁর সমালোচনা করলেন অধীররঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী সব কিছু নিয়ে কথা বলছেন। কিন্তু এই ব্যাপারে তিনি নীরব। ‘মেক ইন ইন্ডিয়া' থেকে ভারত ধীরে ধীরে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া' হয়ে উঠছে।''

অধীর চৌধুরী বলেন ২০১৬ সালে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, ভারতে ৩৮,৯৪৭টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। দৈনিক হিসেবে গড়ে ১০৬.৭টি ধর্ষণ।

সোমবারই কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি বলেছিলেন, ভারত বিশ্বের ‘‘ধর্ষণ রাজধানী'' হয়ে উঠেছে।

কিছুদিন আগে তেলেঙ্গানায় এক পশু চিকিৎসককে ধর্ষণ করে হত্যা করে চার অভিযুক্ত। তারপর সেই মৃতদেহ পুড়িয়ে দেয় তারা। এই নৃশংস ঘটনায় শিউরে উঠেছিল গোটা দেশ।

এদিকে তেলেঙ্গানার ঘটনার কয়েক দিনের মধ্যেই উন্নাওয়ের এক ধর্ষিতার শরীরে রাস্তার মধ্যেই আগুন লাগিয়ে দেয় ধর্ষণে অভিযুক্ত দুই ব্যক্তি। তিনি পরে হাসপাতালে মারা যান।

(তথ্যসূত্র: এএনআই)