অজগরে সওয়ার ১০ টি কুনো ব্যাঙ! সাপের সঙ্গে সঙ্গমের চেষ্টার কথা বলছেন জীববিজ্ঞানীরা

নিউ সাউথ ওয়েলস ইউনিভার্সিটির জীববিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক তথা উভচর বিশেষজ্ঞ জোডি রাউলি জানিয়েছেন যে, ছবির সবকটি ব্যাঙই পুরুষ ব্যাঙ। তারা সবাই ওই অজগরের সঙ্গে সঙ্গমের চেষ্টা করেছিল।

অজগরে সওয়ার ১০ টি কুনো ব্যাঙ! সাপের সঙ্গে সঙ্গমের চেষ্টার কথা বলছেন জীববিজ্ঞানীরা

অজগরের পিঠে চেপে আছে ১০ খানা কুনো ব্যাঙ!

রোববার রাতে অস্ট্রেলিয়ায় এক বিশাল ঝড়ের ঠিক পরেই অভূতপূর্ব এক দৃশ্যের সাক্ষ্মী রইল গোটা বিশ্ব! একটি অজগরের পিঠে চেপে রয়েছে ১০ টি কুনো ব্যাঙ। বিবিসি সূত্রের খবর, পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার উত্তরে কুনুনুরার বাসিন্দা পল মক রোববার রাতে স্ত্রীর সঙ্গে ভয়াবহ ওই ঝড়ের তান্ডবের সময় নিজেদের বাড়িতেই ছিলেন। গার্ডিয়ান জানায় যে, বিশাল ঝড়ে তাদের বাঁধে ৭০ মিলিমিটার বৃষ্টির জল জমা হয়। এই জমা জল বের করতে গিয়েই পল বিস্ময়কর এই দৃশ্যের সম্মুখীন হন।

তিনি বলেন, "হ্রদটি এতটাই পূর্ণ ছিল যে হ্রদের ধারে ধারে সব কুনো ব্যাঙগুলো উঠে এসেছিল। প্রচুর ব্যাঙ! সে গুণে বলা যাবে না, হাজারে হাজারে ব্যাঙ ঘাসের উপরে বসে ছিল! মাঝের উঁচু লনে বসেছিলেন ‘তিনি'”

‘তিনি' হলেন পোষ্য বাসিন্দা অজগর। সাড়ে তিন মিটার লম্বা ওই অজগরের নাম মন্টি। বন্যা থেকে বাঁচতে মন্টির উপরেই চেপে পাড়ে আসছিল কুনো ব্যাঙের দল!

পশুখামারে র‍্যাটেল স্নেকের রাজত্ত্ব, শিউরেে ওঠার মতো ভিডিও

"মন্টি ব্যাঙেদের পিঠে চাপিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছিল সারা মাঠে! আমি অবাক! ব্যাঙদের না খেয়ে সে নিজের পিঠে চাপিয়ে ওদের প্রাণ বাচাচ্ছে!” বলেন পল মক। তাঁর ভাই অ্যান্ড্রুকে অজগরের পিঠে সওয়ার ব্যাঙের ছবি পাঠান। অ্যান্ড্রু তা টুইটারে পোস্ট করেন।

তাপপ্রবাহে পুড়ছে অষ্ট্রেলিয়া, তৃষ্ণার্ত কোয়ালাও জল চাইছে মানুষের কাছে, দেখুন ভিডিও

তবে, নিউ সাউথ ওয়েলস ইউনিভার্সিটির জীববিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক তথা উভচর বিশেষজ্ঞ জোডি রাউলি জানিয়েছেন যে, ছবির সবকটি ব্যাঙই পুরুষ ব্যাঙ। তারা সবাই ওই অজগরের সঙ্গে সঙ্গমের চেষ্টা করেছিল।

তিনি বলেন, "পুরুষ ব্যাঙগুলি প্রায়শই অদ্ভুত আচরণ করে।” পচা আমের সঙ্গে সঙ্গমের চেষ্টারত একটি ব্যাঙের ছবিও শেয়ার করেন তিনি।

ভয় না বিস্ময়? নীচের মন্তব্য বিভাগে জানাতে পারেন আমাদের।

Click for more trending news


Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com