প্রধান বিল পাস করানোর লক্ষ্যে নির্বাচনের পরে প্রথম সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক নরেন্দ্র মোদীর

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একটি সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছেন। ক্ষমতায় প্রত্যাবর্তনের পরে এটাই তাঁর ডাকা প্রথম সর্বদলীয় বৈঠক।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ ও অন্য নেতারা সংসদে হাজির সর্বদল বৈঠকে যোগ দিতে

নয়াদিল্লি:

আজ সকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) একটি সর্বদলীয় বৈঠক (All-Party Meet) ডেকেছেন। ক্ষমতায় প্রত্যাবর্তনের পরে এটাই তাঁর ডাকা প্রথম সর্বদলীয় বৈঠক। সংসদের অধিবেশন শুরুর আগে এই বৈঠক এক প্রথামাফিক পদ্ধতি, যাতে অধিবেশনের শুরুটা মসৃণ হয়। আগামীকাল বাজেট শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রী সমস্ত দলের সহযোগিতা প্রার্থনা করছেন। সূত্রানুসারে জানা যাচ্ছে, সরকারি পরিকল্পনায় সভার আলোচ্য বিষয়সূচির মধ্যে গঠনমূলক তর্ক ও আলোচনাকে সর্বাগ্রে স্থান দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সব দলের কাছে সমর্থন ও সহযোগিতা চাইছেন। যা রাজ্যসভায় গুরুত্বপূর্ণ বিল পাস করাতে প্রয়োজন। বিজেপি তথা এনডিএ এখনও সেখানে সংখ্যালঘু। লোকসভায় এনডিএ ৫৪৩ আসনের মধ্যে ৩৫৩টি আসন দখল করলেও উচ্চ কক্ষে ২৪৫ জন সদস্যের মধ্যে মাত্র ১০২ জন সদস্য তাদের।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের “হুমকি”র পরেই চিকিৎসকদের ধর্মঘট হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এর ফলে গুরুত্বপূর্ণ বিল পাস করায় সমস্যা হতে পারে। বিশেষ করে ‘তালাক বিল', যা এবারের অধিবেশনেই আনা হবে। গত লোকসভায় উচ্চ কক্ষে এই বিল আটকে গিয়েছিল। কেবল বিরোধীরাই নয়, বিজেপির জোটসঙ্গী নীতিশ কুমারের জনতা দল ইউনাইটেডও এই বিলের বিরোধিতা করেছিল।

রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে রাজ্যের থেকে রিপোর্ট চাইল কেন্দ্র: সূত্র

বিরোধীরা এখনও তাদের বিপর্যয়ের ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারেনি। বিরোধী কৌশলী অধিবেশন-ও প্রথামাফিক হওয়ার কথা প্রত্যেক লোকসভা অধিবেশনের আগে। এবার সেটি এখনও হয়নি। ২০১৪ সালে ৪২টি আসন পাওয়া কংগ্রেস এবারও খুব খারাপ ফল করেছে। যার ফলে পরিষ্কার, তাদের দল থেকে এবার বিরোধী নেতা নির্বাচিত হবেন না।

৬২টি আসন পাওয়া এই দল এখনও দুই কক্ষে তাদের নেতার নাম ঘোষণা করেনি। লোকসভায় রাহুল গান্ধীর নাম উত্তোলনের চেষ্টা চলছে। কিন্তু রাহুল, যিনি দলের মুখ্য পদ থেকে সরে যেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, তিনি এব্যাপারে কথা বলতে চাইছেন। তাঁর দলের মুখ্য পদ থেকে সরে যাওয়ার প্রস্তাব এখনও দলে গৃহীত হয়নি।

রাহুল গান্ধীর দলের অনেকেই এবার নিম্ন কক্ষে নেই। জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া নির্বাচন‌ে হেরে গিয়েছেন এবং শচীন পাইলট এখন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলতের সহকারী।

বৈঠকে যাঁরা উপস্থিত থাকবেন তাঁরা হলেন সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশি ও তাঁর জুনিয়র রাম মেঘওয়াল, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, কংগ্রেসের গুলাম নবি আজাদ ও অধীররঞ্জন চৌধুরী, তৃণমূ‌লের সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও ডেরেক ও'ব্রায়েন এবং ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ফারুক আবদুল্লা।

More News