বলার আগে ভাবুন, কী বলতে চাইছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে পরামর্শ অপর্ণা সেনের

জয়  শ্রী রাম (Jai Shree Ram) ধ্বনি নিয়ে চলতে থাকা বিতর্ক ক্রমশ বড় আকার ধারন করছে। এবার এ নিয়ে  প্রতিক্রিয়া দিলেন অপর্ণা সেন (Aparna Sen) ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

অবিবেচকের মতো আচরণ করে মুখ্যমন্ত্রী নিজেই নিজের কবর খুঁড়ছেনঃ অপর্ণা


কলকাতা: 

হাইলাইটস

  1. জয় শ্রী রাম ধ্বনি নিয়ে চলতে থাকা বিতর্ক ক্রমশ বড় আকার ধারন করছে
  2. এবার এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিলেন অপর্ণা সেন
  3. তিনি বলেন, ‘রাজনীতিতে ধর্মীয় স্লোগানের ব্যবহার আমার ভাল লাগে না

জয়  শ্রী রাম (Jai Shree Ram) ধ্বনি নিয়ে চলতে থাকা বিতর্ক ক্রমশ বড় আকার ধারন করছে। এবার এ নিয়ে  প্রতিক্রিয়া দিলেন অপর্ণা সেন (Aparna Sen)। এনডিটিভিকে  দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে (exclusive Interview) তিনি বলেন, ‘রাজনীতিতে ধর্মীয় স্লোগানের ব্যবহার আমার  ভাল লাগে না। ধর্ম (Religion ) আর রাজনীতি (Politics) গুলিয়ে  ফেলা উচিত নয়। ধর্ম আর রাজনীতি  গুলিয়ে ফেললেই সব ধরনের সমস্যা দেখা দেয়।' পাশাপাশি তিনি মনে করেন স্লোগান দেওয়ার অধিকার সকলেরই   আছে। তাঁর  কথায়, ‘এটাও বুঝতে হবে গণতন্ত্রে জয় শ্রী রাম, (Jai Shree Ram) আল্লাহু আকবর। জয় মা কালী বলার অধিকার আছে। মমতা যেভাবে গাড়ি থেকে বেরিয়ে জয় শ্রী রাম বলছেন তা ঠিক নয়। অশ্রাব্য কথা বলেছেন। এটা মেনে নেওয়া যায় না।'       

সর্বকালের সবচেয়ে বেশি অর্থ খরচ হয়েছে এবারের লোকসভা নির্বাচনে     

 বাংলা ছবির ‘মেমসাহেব' বলেন, ‘বেশির ভাগ মানুষের রায় নিয়ে ক্ষমতায় এসেছেন মমতা। উনি অনেক কাজ করেছেন। শুটিংয়েরে  জন্য জায়গা দেখতে গিয়ে দেখেছি  রাস্তার অবস্থা ভাল হয়েছে। মাওবাদীদের সমস্যা মিটেছে। এখন পাহাড়ে বেরাতে  যাওয়া যায় এটা আগে সম্ভব ছিল না। কিন্তু তাঁর সমস্ত আচরণ ঠিক নয়।' মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি তাঁর পরামর্শ, ‘ অনেক দিন ক্ষমতায় থাকতে গেলে  ধৈর্য ধরতে হবে। যা মাথায় আসছে  সেটাই বলে  ফেলছেন- এই অভ্যাস বদল করুন। আপনার চারপাশে অমিত মিত্র বা সৌগত রায়ের মতো মানুষ আছে, তাঁদের সাহায্য নিন। তাঁর আচরণে রাজ্যের মানুষের খারাপ লেগেছে। এ ধরনের  কাজ করে  নিজের ভোটারদের নিজের বিপক্ষে নিয়ে যাচ্ছেন মমতা।  মুখ্যমন্ত্রী নিজেই নিজের কবর খুঁড়ছেন।

তাঁকে প্রশ্ন করা এ ধরনের ঘটনার  প্রভাব আগামী বিধানসভা নির্বাচনে পড়বে কি?  অভিনেত্রীর জবাব,  ‘আগামী নির্বাচনে মমতার  লড়াই কঠিন হতে চলেছে। উচ্চবিত্তদের একটা বড় অংশ বিজেপির দিকে চলে  গিয়েছে। এই ব্যাপারটা আমাকে চিন্তায় রেখেছে। বিজেপির কাজ  করবে না তা  নয়। প্রধানমন্ত্রী মোদী দেশের উন্নতিতে কাজ করবেন বলে আমি বিশ্বাস করি। কিন্তু ওদের মৌলিক চিন্তা ভাবনা নিয়ে আমার আপত্তি আছে। ওরা হিন্দুত্বকে আর জাতীয়তাবাদকে এক করে দেখে। এটা জাতীয়তাবাদের বীর সাভারকর  মডেল। আমি এই ধারনার প্রতি আস্থাশীল নই। আমার মনে ভারতের মতো দেশে এই ধারনা প্রযোজ্য হতে পারে না। এখানে গান্ধীবাদী চিন্তা ভাবনার প্রয়োজন আছে।'     

আমি চাই দর্শক আমার আসল নাম ভুলে যাক: জয়া এহসান          

 তিনি বলেন, ধর্মনিরপেক্ষ মুসলমানদের কথা ভাবতে হবে।  এখন ভারতে গান্ধী নেহরু আক্রমণের শিকার হয়েছেন। এমতাবস্থায় তরুণ প্রজন্মকে  বুঝতে হবে দেশে  অনেক ধরনের মানুষ আছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাঁর অনুরোধ, ‘দয়া করে মনে রাখবেন আপনি শুধু হিন্দুদের নন  সকলের প্রধানমন্ত্রী।' আর মমতাকে তিনি বলেন দয়া করে  কিছু বলার আগে ভাবতে চেষ্টা করুন। সাম্প্রতিক পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে  তাতে  নাগরিক সমাজকে  কোনও পক্ষে না  গিয়ে বিরোধীদের ভূমিকা  নিতে হবে বলেওই মনে  করেন তিনি।                



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................