প্রধানমন্ত্রী মোদীর ৫ বছরের শাসনকাল ধংসাত্মক: মনমোহন সিং

মনমোহন সিং-এর অভিযোগ, নরেন্দ্র মোদীর পাঁচ বছরের শাসনকাল কল্পনাতীত পরিমাণে দুর্নীতির “দুর্গন্ধ” এবং সম্ভবত নোটবন্দিই "সবচেয়ে বড় দুর্নীতি"।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
প্রধানমন্ত্রী মোদীর ৫ বছরের শাসনকাল ধংসাত্মক: মনমোহন সিং

নরেন্দ্র মোদীর শাসনকালের বিরুদ্ধে অর্থনীতিতে শোচনীয় অবস্থা তৈরির অভিযোগ তুললেন মনমোহন সিং(ফাইল ছবি)


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. আমাদের আর্থ-সামাজিক বাতাবরণ ঐক্য হারিয়েছে: মনমোহন সিং
  2. মানুষের মধ্যে হতাশা এবং মোহভঙ্গ হয়েছে: মনমোহন সিং
  3. তাঁর দাবি, প্রতিদিনের বাহ্যিক পরিবর্তনে হতাশ সাধারণ মানুষ

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে তীব্র আক্রনণ শানালেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।নরেন্দ্র মোদীর পাঁচ বছরের শাসনকাল সবচেয়ে বেশী আতঙ্কগ্রস্ত এবং ধংসাত্মক ছিল বলে তোপ দাগেন তিনি।পাশাপাশি এর জন্য নরেন্দ্র মোদীকে ক্ষমতাচ্যূত করা উচিত বলেও মত প্রকাশ করেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খারিজ করে দেন যে দেশে মোদী ঝড় চলছে। পাশাপাশি বলেন, “দেশের ব্যাপক বৃদ্ধির দিকে নজর না দিয়ে শুধুমাত্র নিজদের রাজনৈতিক অস্তিত্ত্বের চিন্তা করা” সরকারকে উৎখাত করার জন্য মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছেন দেশবাসী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানিয়ে মনমোহন সিং বলেন, মনমোহন সিং-এর অভিযোগ, নরেন্দ্র মোদীর পাঁচ বছরের শাসনকাল “কল্পনাতীত পরিমাণে” দুর্নীতির “দুর্গন্ধ” এবং সম্ভবত নোটবন্দিই স্বাধীন ভারতের সবচেয়ে “বড় দুর্নীতি”।

ইউপিএ সরকারের ১০ বছরের শাসনকালে কয়লা ব্লক বন্টন, টুজি স্পেকট্রামের মতো একাধিক কেলেঙ্কারির অভিযোগ উঠেছিল। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে সেই দুর্নীতির অভিযোগকেই হাতিয়ার করে প্রচার করেছিল বিজেপি।

শুধুমাত্র অর্থনীতিই নয়, বিদেশনীতির প্রশ্নেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে একহাত নেন মনমোহন সিং। নরেন্দ্র মোদীর পাকিস্তান নীতি “বিশৃঙ্খল” হওয়ার কারণেই ডিগবাজি লেগেই থাকে বলে মন্তব্য করেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী, সে বিনা নিমন্ত্রণে পাকিস্তানে যাওয়াই হোক বা পাঠাকোটে বায়ুসেনার ঘাঁটিতে আইএসআইকে ঢুকতে দেওয়াই হোক।

১৯৯০ এ অর্থনৈতিক সংস্কারের অন্যতম কারিগর হিসেবে মনমোহন সিংকে ধরা হয়।তাঁর অভিযোগ, মোদী সরকারের আমলে দেশের অর্থনীতি “ধংসাত্মক জায়গায়” পৌঁছেছে।

বর্তমান সরকারের দিকে বাগাড়ম্বরপূর্ণ ভাষণের অভিযোগ তুলে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই সরকারের প্রতি বীতশ্রদ্ধ সাধারণ মানুষ।

বিজেপির বিরুদ্ধে জাতীয়তাবাদ এবং সন্ত্রাসবাদকে নির্বাচনে টেনে আনার প্রসঙ্গে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন তোলেন নরেন্দ্র মোদীর দায়বদ্ধতা নিয়ে।

তিনি বলেন, এটা খুবই “দুর্ভাগ্যজনক” ঘটনা ছিল যে, পুলওয়ামায় সিআরপিএফের কনভয়ে জঙ্গি হামলায় যখন ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ান শহিদ হলেন, সেই সময় নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠক না করে জিম করব্যাট পার্কে “ছবির শ্যুটিং” করছিলেন নরেন্দ্র মোদী।

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর দাবি, পুলওয়ামায় লজ্জাজনক গোয়েন্দা ব্যর্থতাই সন্ত্রাসবাদ দমনে সরকারের প্রস্তুতির চিত্র।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................