ইডেন ম্যাচের আগে সৌরভের সঙ্গে পিঙ্কু টিঙ্কু? কারা তারা?

ঐতিহাসিক ইডেন ম্যাচের জন্য এখন সাজো সাজো রব। প্রথম গোলাপী বলে খেলা হতে চলেছে দিন-রাতের ইডেন ম্যাচে।

ইডেন ম্যাচের আগে সৌরভের সঙ্গে পিঙ্কু টিঙ্কু? কারা তারা?

ইডেন ম্যাচের আগে সৌরভের সঙ্গে পিঙ্কু টিঙ্কু? কারা তারা?

কলকাতা:

ঐতিহাসিক ইডেন ম্যাচের (India Vs Bangladesh) জন্য এখন সাজো সাজো রব। প্রথম গোলাপী বলে খেলা হতে চলেছে দিন-রাতের ইডেন ম্যাচে। আর তাই নিয়ে এখন দম ফেলার ফুরসত নেই  কর্মকর্তাদের। ঐতিহাসিক ওই ম্যাচের দিন ও তার আগে থেকেই করা হচ্ছে নানান ধরনের আয়োজন। একগুচ্ছ আয়োজন যেমন থাকছে, তেমনই ম্যাসকট হিসাবে রাখা হচ্ছে পিঙ্কু টিঙ্কু কে । যদি সেনার প্যারাট্রুপাররা শেষ পর্যন্ত ভারত এবং বাংলাদেশের দিন-রাতের ম্যাচের সময় অধিনায়কের হাতে ঐতিহাসিক গোলাপি বল আকাশ থেকে উড়ে এসে দেয়, তাহলে এই ম্যাচের উজ্জ্বলতা আরও বেড়ে যাবে।

Exclusive: কলকাতার প্রচুর মানুষ মনে মনে আমাদেরই সমর্থন করেন: মামুনুল ইসলাম

দিনরাতের ভারত বাংলাদেশ ম্যাচের সময় মাঠের মধ্যে ম্যাসকট হিসেবে দেখা যাবে পিঙ্কু  আর টিঙ্কুকে । এদের জনপ্রিয়তা বাচ্চাদের মধ্যে  যথেষ্টই। আজই ইডেন গার্ডেন্সে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, ম্যাসকট পিঙ্কু পিঙ্কুকে  সঙ্গে নিয়ে  ক্যামেরার সামনে ধরা দিলেন। ১৪ ফুট /১৪ ফুট এর বিশালাকৃতির এক বেলুন আজই আকাশে উড়ল, একদম ম্যাচের শেষ পর্যন্ত এই বেলুনটি আকাশে থাকবে। কলকাতার মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা শহীদ মিনারকে গোলাপি রঙে রাঙিয়ে দেওয়া হবে ঐতিহাসিক ম্যাচ উপলক্ষে। কলকাতা মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের বেশ কয়েকটি পার্ককেও  এই কদিন গোলাপি আলোয় সাজিয়ে তোলা হবে। আবার টাটা স্টিল বিল্ডিংটি 3D mapping করা হবে আগামী ২০ শে নভেম্বর থেকে।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে রুদ্ধশ্বাস শেষ বলে ম্যাচ জিতে এশিয়া কাপ জয়ী ভারত

বাংলা ক্রিকেটজগতে এখন খুশির হাওয়া, বাংলার মহারাজ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়া থেকে শুরু করে গোলাপি বলের অভিষেক দিন-রাতের ইডেন ম্যাচ। গোটা শহর যখন গোলাপী আভায় সাজছে তখন পিছিয়ে নেই ময়দানও। রাত বাড়লেই "মেজারস ক্লাব" গোলাপি রঙে সেজে উঠছে। অন্য ক্লাবগুলো একই পথে চলার জন্য পা বাড়িয়েই আছে। হবে নাই বা কেন বাংলার ক্রিকেট ময়দানে এখন খুশির উৎসব। কোনভাবেই খামতি রাখতে চাইছেন না কর্মকর্তারা। ঐতিহাসিক গোলাপী বলের দিন-রাতের ইডেন ম্যাচের আগে থেকেই সিটি অফ জয়কে পিঙ্ক সিটিতে রূপান্তরিত করে ফেলা হচ্ছে। আজ সন্ধ্যা থেকেই গঙ্গায় একটি লঞ্চ চলবে গোলাপি আলোর মালায় সেজে। ম্যাচের দিন অবধি এটি যাতায়াত করবে হাওড়া ব্রিজ থেকে বিদ্যাসাগর সেতু পর্যন্ত।

ভারত বাংলাদেশের বিরুদ্ধে হতে চলা ঐতিহাসিক দিন রাতের টেস্ট ম্যাচ সম্পর্কে মানুষকে আরও সচেতন এবং তাদের আগ্রহ আরও বাড়ানোর জন্য ডজন খানেক বিলবোর্ড, ছটি এলইডি বোর্ড এবং ব্র্যান্ডেড বাসকে রাস্তায় দেখতে পাওয়া যাবে কাল থেকেই।

রোহিতের ব্যাটিং বিক্রমে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতের সহজ 7 উইকেটে জয়

এছাড়াও এই ঐতিহাসিক ম্যাচের জন্য একেবারেই অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে সিএবি কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। আর এই অভিনব ভাবনাকে রূপ দিতে সিএবি হাত মিলিয়েছে creo craft  এর সঙ্গে। ইডেনের দেয়ালজুড়ে আঁকা হচ্ছে ক্রিকেট এর সংক্ষিপ্ত বিবরণ।

প্রত্যেক ক্রিকেটারের  গল্প বলবে ইডেনের প্রাচীর । ময়দান থেকে একেবারে জাতীয় স্তরের খেলোয়াড় হয়ে ওঠার যে অদম্য গল্প তাই দেখা যাবে ইডেনের দেওয়ালে। আর এই অভিনব ভাবনাকে ছবিতে ফুটিয়ে তুলছেন ইন্ডিয়ান আর্ট কলেজে পাঠরত কুড়ি জন চিত্রশিল্পী। আর মাত্র  ৪৮ ঘন্টার অপেক্ষা তারপরেই ভারত আর বাংলাদেশ এই দুটি ক্রিকেট দলই এসে পৌঁছবে ক্রিকেটের নন্দনকানন ইডেন গার্ডেন্সে।

More News