This Article is From Feb 25, 2020

“ভারতের ওপর, আশা করি তারা সঠিক সিদ্ধান্ত নেবে”, দিল্লিতে হিংসা নিয়ে বললেন ট্রাম্প

নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে তাঁর অবস্থান সম্পর্কে প্রশ্নের উত্তরে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, “আমি তা আলোচনা করতে চাই না, আমি তা ভারতের ওপর ছাড়তে চাই। আশা করি, ভারতের মানুষের জন্য তারা সঠিক সিদ্ধান্ত নেবে”

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি

নয়াদিল্লি:

নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে বিক্ষোভ (CAA Protest) এবং ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে মুখ খুললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump), তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আলোচনা করেছেন তিনি এবং “মানুষের ধর্মীয় স্বাধীনতা চান প্রধানমন্ত্রী মোদি”। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, “আমরা ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে কথা বলেছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তিনি মানুষের ধর্মীয় স্বাধীনতা চান। তাঁরা এই নিয়ে খুবই পরিশ্রম করছেন। আমি ব্যক্তিগত আক্রমণের কথা শুনেছি, তবে তা নিয়ে আলোচনা করিনি। এটা ভারতে”। নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে তাঁর অবস্থান সম্পর্কে প্রশ্নের উত্তরে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, “আমি তা আলোচনা করতে চাই না, আমি তা ভারতের ওপর ছাড়তে চাই। আশা করি, ভারতের মানুষের জন্য তারা সঠিক সিদ্ধান্ত নেবে”।

মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনে পা দিয়েছে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দিল্লিতে সংঘর্ষ, মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ১০ এ, তারমধ্যেই সরকারি সফরে ভারতে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে সংসদে পাশ হয় বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনটি, সেটিকে, মুসলিম বিরোধী বলে মন্তব্য করেছেন সমালোচকরা, তারপর থেকেই শুরু হয়েছে বিক্ষোভ, দিল্লি সংঘর্ষের আগেই ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

উত্তর পূর্ব দিল্লির বিভিন্ন জায়গা থেকে হিংসার খবর পাওয়া গিয়েছে, কালো ধোঁয়ায়া ছেয়ে গিয়েছে রাজধানীর আকাশ।

পদস্থ পুলিশকর্তা অলোক কুমার বলেন, “পুলিশকে আক্রমণ করছে বিক্ষোভকারীরা, যেখানে তাঁরা রয়েছেন, যেখানে পুলিশ নেই, সেখানে একে অন্যের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে”।

NDTV এর তিনজন সাংবাদিক এবং একজন ক্যামেরাপার্সন। 

মৌজপুরের একজন সংবাদসংস্থা পিটিআইকে বলেন, “কোনও জায়গায় পুলিশের উপস্থিতি খুবই কম। সংঘর্ষকারীরা মানুষকে হুমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে, দোকানপাট ভাঙচুর করছে”।