৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণ ও খুন করে পালাতে গিয়ে কুকুরের তাড়া ধর্ষককে! গ্রেফতার ডিজে

অভিযুক্তকে ৫০ টিরও বেশি সিসিটিভি ক্যামেরা থেকে ফুটেজ বিশ্লেষণ করে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্তের স্ত্রীর গর্ভে রয়েছে তাদের প্রথম সন্তান।

৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণ ও খুন করে পালাতে গিয়ে কুকুরের তাড়া ধর্ষককে! গ্রেফতার ডিজে

ধর্ষণের পরে শিশুটি কান্নাকাটি শুরু করলেই অভিযুক্ত শ্বাসরোধ করে নাবালিকাকে হত্যা করে।

ভোপাল:

আবারও ধর্ষণ, আবারও নাবালিকাকে হত্যা! ইন্দোরের মহাওতে (Indore's Mhow) গৃহহীন চার বছরের শিশুকে অপহরণ করে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে একজন ডিজেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মধ্যপ্রদেশ পুলিশ। পুলিশ সূত্রের খবর, অভিযুক্তকে ৫০ টিরও বেশি সিসিটিভি ক্যামেরা থেকে ফুটেজ বিশ্লেষণ করে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্তের স্ত্রীর গর্ভে রয়েছে তাদের প্রথম সন্তান। ধর্ষিতা ও নিহত শিশুটি রাস্তাতেই তার পরিবারের সঙ্গে ঘুমোচ্ছিল। তার মা-বাবা দু'জনেই ঠিকা শ্রমিক। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে অভিযুক্ত সেদিকেই হেঁটে এগিয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বিপদে পড়া মহিলাদের অভিযোগ জানানো জন্য কল সেন্টার স্থাপনের উদ্যোগ রাজ্য সরকারের

রাত্রি ২.১৫-র দিকে কিছু কুকুরকে এই ব্যক্তিকে ধাওয়া করতে দেখা যায়। কুকুরগুলি তাড়া করলেই অভিযুক্ত তাদের দিকে পাথর ছুঁড়তে শুরু করে। দশ মিনিট পরেই তাকে পালিয়ে যেতে দেখা যায়। পুলিশ জানিয়েছে, ধর্ষণের পরে শিশুটি কান্নাকাটি শুরু করলেই অভিযুক্ত শ্বাসরোধ করে নাবালিকাকে হত্যা করে।

মহাওয়ের উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা অভয় নেমা বলেন, “ফ্লাইওভারের কাছে লাগানো সিসিটিভি ক্যামেরা থেকে ফুটেজ দেখে অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়। ওই ফ্লাইওভারের কাছ থেকেই নাবালিকাকে অপহরণ করা হয়েছিল। পরিত্যক্ত একটি বাড়িতে একটি প্লাস্টিকে মোড়া অবস্থায় ওই শিশুর লাশ পাওয়া যায়। ফ্লাইওভার থেকে শুরু করে এই বাড়ি পর্যন্ত পুরো ২০০ মিটার পথের যাবতীয় কিছু আমরা ফুটেজ থেকে বিশ্লেষণ করেছি।”

আরও পড়ুনঃ ধর্ষিতার গায়ে আগুন লাগিয়ে মারার চেষ্টা, গ্রেফতার ৩

অন্য এক পুলিশ কর্মকর্তা বরুণ কাপুর বলেন, “অভিযুক্তের বিরুদ্ধে এর আগেও যৌন অপরাধ ঘটানোর নজির রয়েছে। গত বছর রেলস্টেশনের কাছে ৭০ বছর বয়সী এক মহিলাকে ধর্ষণের চেষ্টা করার সময় তাকে একদল অটোরিকশা চালক ধরে ফেলে এবং প্রচন্ড মারধোর করে। তবে তার বিরুদ্ধে পুলিশে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি বলেই সূত্রের খবর।

অভিযুক্ত ধর্ষক বিয়ে ও অন্যান্য অনুষ্ঠানে গান বাজান।

More News