IMF যে আভাসই দিক না কেন, ভারত "দ্রুত উন্নতিশীল" দেশের মধ্যেই রয়েছে: অর্থমন্ত্রী

International Monetary Fund তার সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে বলেছে যে, ২০১৯ সালে দেশের প্রবৃদ্ধি ৬.১ শতাংশের আশেপাশে থাকবে

IMF যে আভাসই দিক না কেন, ভারত

ভারত দ্রুত উন্নয়নশীল দেশের তালিকাতেই রয়েছে, বললেন Nirmala Sitharaman

ওয়াশিংটন:

আইএমএফ বা আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়ে যাই-ই আভাস দিক না কেন ভারতীয় অর্থনীতি নিয়ে নিজের বক্তব্যে অটল রইলেন নির্মলা সীতারামন। ভারত বিশ্বের দ্রুত উন্নয়নশীল অর্থনীতির দেশের মধ্যে অন্যতম, এমনটাই দাবি করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। তবে দেশের অর্থনীতির আরও দ্রুত বিকাশের জন্য সব রকমভাবে চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি (Nirmala Sitharaman) । বৃহস্পতিবারই তিনি আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) করা প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস একরকম উড়িয়ে দিয়েই সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন দেশের অর্থনীতি "এখনও দ্রুততম হিসাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে"। নির্মলা সীতারামন বর্তমানে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বা আইএমএফ এবং বিশ্বব্যাংকের বার্ষিক সভায় অংশ নিতে ওয়াশিংটনে রয়েছেন। তিনি বলেন যে, আইএমএফের সর্বশেষ প্রতিবেদনে ভারত ও চিন, দুই দেশের প্রবৃদ্ধির হার ৬.১ শতাংশ হওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া হলেও তিনি চিনের সঙ্গে অবশ্যই "তুলনায় যাচ্ছেন না"।

ভারত মৌলিক বিষয় গুলিতে কাজ করেছে, তবে সমস্যার সমাধান দরকার: আইএমএফ

"আইএমএফ (তার সর্বশেষ পূর্বাভাসে) বিশ্বব্যাপী সমস্ত অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি (হার) হ্রাস করেছে। তারা ভারতেরও প্রবৃদ্ধি হ্রাস হওয়ার আভাস দিয়েছে। তবে তারপরেও ভারত এখনও দ্রুত উন্নয়নশীল অর্থনীতি হিসাবে বিকাশ করছে", বলেন তিনি ।

২০১৮ সালে ভারতের প্রবৃদ্ধির হার ৬.৮ শতাংশ থাকলেও, International Monetary Fund  তার সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে বলেছে যে, ২০১৯ সালে দেশের প্রবৃদ্ধি ৬.১ শতাংশের আশেপাশে থাকবে, যদিও তারা এও উল্লেখ করেছে যে ২০২০ সালে ভারতীয় অর্থনীতি গতি পেয়ে ৭ শতাংশে উঠবে।

এই সমস্ত কথার পরেও, "এই বিষয়টি অস্বীকার করা যায় না যে গোটা বিশ্বের মধ্যে ভারত এখনও" দ্রুতগতিতে বাড়ছে", বলেই দাবি করেন নির্মলা সীতারামন।

"আমি আশা করি দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি আরও বেশি হতে পারে I আমি আশা করি এটি আরও দ্রুত বাড়তে পারে । তাই আমি এটির দ্রুত বিকাশের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করব। তবে এটাও ঠিক যে উন্নয়ন এখনও অব্যাহত রয়েছে, দেশ আরও দ্রুত উন্নতির দিকে চলেছে", বলেন তিনি।

"এটি দ্রুত উন্নয়নশীল অর্থনীতির একটি। তবে এই ঘটনা আমাকে আত্মতুষ্ট করছে না", বলেও জানান অর্থমন্ত্রী ।

"আট নয়, সাত নয়, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার ছয়ে নেমে এসেছিল। তবে হ্যাঁ, এটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ যে আমি এই প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও ভারত যে সম্ভাবনার দিকে এগোচ্ছে তাকে হ্রাস করতে চাই না" , বলেন তিনি।

ভারত "গণতন্ত্রকে ভালবাসে, পুঁজিবাদীদের সম্মান করে": বিনিয়োগের আহ্বান অর্থমন্ত্রীর

জিডিপির ৩.৩ শতাংশের আর্থিক ঘাটতি লক্ষ্যমাত্রা বজায় রাখতে সরকার এখনও কিছু পদক্ষেপ করছে কিনা সেই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন: "আর্থিক ঘাটতি নিয়ে আমি এখন  পর্যালোচনা করছি না।"

"এই পর্যায়ে, আমি এই বিষয়টি নিয়ে ভাবতে চাই না। শিল্পমহল আমাকে যে বিষয়গুলি জানিয়েছে আমি সেগুলি নিয়ে কাজ করতে এবং সেই বিষয়ে উৎসাহ দিতে আরও আগ্রহী", বলেন সীতারামন ।

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর কাছে ব্যক্তিগত আয়কর কমানোর বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ আছে কি না জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন "সেই বিষয়ে কোনও কিছু হলে আপনারা তা জানতে পারবেন"।

দেখুন ১৭.১০.২০১৯-এর সেরা খবর:



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News