This Article is From Nov 26, 2019

এখনও উপ মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্বভার বুঝে নেননি অজিত পাওয়ার! এড়ালেন ২৬/১১-এর স্মৃতিচারণও

Maharashtra:সোমবার দেবেন্দ্র ফড়নবিশ বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধিদের সঙ্গে 'জলবায়ু স্থিতিস্থাপকতা বৃদ্ধি এবং বন্যা ও খরা রোধকারী কর্মসূচী' নিয়ে বৈঠক করেন

এখনও উপ মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্বভার বুঝে নেননি অজিত পাওয়ার! এড়ালেন ২৬/১১-এর স্মৃতিচারণও

শনিবার মহারাষ্ট্রের উপ মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন Ajit Pawar

মুম্বই:

আজ রক্তাক্ত ২৬/১১, ২০০৮ সালের এই দিনটিতে মুম্বইয়ের সন্ত্রাসবাদী হামলায় কেঁপে ওঠে গোটা দেশ। সেই দিনের সেই হামলার শহিদদের প্রতি বুধবার শ্রদ্ধা (26/11 Memorial) জানাল মুম্বই। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে সেই স্মরণ অনুষ্ঠানে চোখে পড়ল মহারাষ্ট্রের নয়া উপ মুখ্য়মন্ত্রী অজিত পাওয়ারের অনুপস্থিতি। শনিবারই মহারাষ্ট্র এবং গোটা দেশকে চমকে দিয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দেবেন্দ্র ফড়নবিশের শপথের পরেই সে রাজ্যের (Maharashtra) উপ মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন এনসিপি নেতা অজিত পাওয়ার। সোমবার থেকে মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়ে দেবেন্দ্র ফড়নবিশ নিজের দায়িত্বভার বুঝে প্রশাসনিক কাজ শুরু করে দিলেও এখনও উপ মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করতে দেখা যায়নি তাঁকে (Ajit Pawar)। যে ঘটনায় উস্কে উঠছে নানা জল্পনা।

সোমবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দেবেন্দ্র ফড়নবিশ বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধিদের সঙ্গে 'জলবায়ু স্থিতিস্থাপকতা বৃদ্ধি এবং বন্যা ও খরা রোধকারী কর্মসূচী' নিয়ে বৈঠক করেন। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে টুইট করা হয় ওই বৈঠকের ছবিগুলি। যদিও দেখা যায় ওই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের সময়েও উপস্থিত ছিলেন না উপ মুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার।

সোমবার দিনের শুরুতেই, দেবেন্দ্র ফড়নবিশ মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলের জন্য একটি চেক সই করে তাঁর নতুন মেয়াদে কাজ করতে নামেন।  মহারাষ্ট্র কন্টিনজেন্সি ফান্ড থেকে অসময়ে বৃষ্টিপাতের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের সাহায্যের জন্য ৫,৩৮০ কোটি টাকা মঞ্জুর করেন।

বুধবারের আস্থা ভোটের আগে আজ রাত ৯ টায় বিধায়কদের নিয়ে বৈঠকে বসছে বিজেপি

এদিকে আগামিকাল (বুধবার) সন্ধে নাগাদ মহারাষ্ট্রের দেবেন্দ্র ফড়নবিশ সরকারকে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হবে, রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ওই রাজ্যে যেভাবে রাতারাতি বিজেপি সরকার গঠন করেছে সেই ঘটনাকে চ্যালেঞ্জ করেই আবেদন জমা পড়ে আদালতে, সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই মঙ্গলবার ওই রায় দেয় সর্বোচ্চ আদালত। আগামী "২৪ ঘণ্টার মধ্যে" আস্থা ভোট করানোর বিষয়ে আদেশ দিয়েছেন ৩ বিচারপতি।

"আমরাই জিতবো", মহারাষ্ট্রের আস্থা ভোট প্রসঙ্গে বললেন সনিয়া গান্ধি

যেভাবে শনিবার সকালে সকলকে অবাক করে দিয়ে শপথ অনুষ্ঠানের মাধ্য়মে মহারাষ্ট্রের ক্ষমতায় বসেন বিজেপির দেবেন্দ্র ফড়নবিশ, সেই ঘটনার বিরুদ্ধেই আদালতে আবেদন করে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোট। তাঁরা শীর্ষ আদালতের কাছে এই আবেদনও করে যাতে আদালত খুব তাড়াতাড়ি আস্থা ভোট করানোর নির্দেশ দেয়। ফড়নবিশ সরকারকে "অবৈধ" বলে উল্লেখ করে তাৎক্ষণিক আস্থা ভোট করানোর আবেদন জানায় ওই ৩ দলের জোট।

যদিও বিজেপি সুপ্রিম কোর্টকে জানিয়েছিল যে, এনসিপির ৫৪ জন বিধায়ক সহ মোট ১৭০ জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে তাঁদের কাছে।

মহারাষ্ট্র সহ নজর রাখুন দেশের-দশের খবরেও: