This Article is From Feb 27, 2020

আপ নেতা তাহির হুসেনের বিরুদ্ধে খুন, অগ্নিসংযোগের মামলা, দল থেকে সাসপেন্ড

তাহির হুসেন ( Tahir Hussain) স্বীকার করেছেন, তাঁকে জনতার দিকে আগুনে বোমা এবং পাথর ছোঁড়ার ভিডিওতে দেখা যেতে পারে

আপ নেতা তাহির হুসেনের বিরুদ্ধে খুন, অগ্নিসংযোগের মামলা, দল থেকে সাসপেন্ড

তাহির হুসেনের দাবি, হামলাকারীরা তাঁর বাড়িতে ঢুকে পড়ে এবং তাঁদের থেকে রক্ষার চেষ্টা করছিলেন

নয়াদিল্লি:

আম আদমি পার্টি নেতা তাহির হুসেনকে (Tahir Hussain) দল থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। এদিনই তাঁর বিরুদ্ধে আইবি আধিকারিক অঙ্কিত শর্মাকে খুন ও অগ্নিসংযোগের মামলা রুজু করা হয়। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, তাহির হুসেনের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্ত প্রমাণ এবং তিনি ক্লিনচিট না পাওয়া পর্যন্ত সাসপেন্ড থাকবেন আম আদমি পার্টির (Aam Aadmi Party) সদস্যপদ থেকে।  তাহির হুসেন এবং অন্যান্য অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে খুন, অগ্নিসংযোগ এবং সংঘর্ষের অভিযোগ দায়ের করা হয় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়। তাঁর বিরুদ্ধে আইবি কর্মী অঙ্কিত শর্মার খুনের ঘটনাতেও জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠে। উত্তর পূর্ব দিল্লিতে (North East Delhi) নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে ছড়িয়ে পড়া হিংসার বলি হন আইবি কর্মী অঙ্কিত শর্মা। মঙ্গলবার জাফরাবাদে তাঁর বাড়ি সংলগ্ন একটি নর্দমায় আইবি কর্মী অঙ্কিত শর্মার দেহ উদ্ধার হয়। বাড়ি ফেরার সময় তাঁর ওপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠে উত্তেজিত জনতার বিরুদ্ধে।

বুধবার অঙ্কিত শর্মার দেহ উদ্ধারের পরেই, তাঁর বাবা তথা আইবি কর্মী রবীন্দ্র শর্মা অভিযোগ করেন, তাহির হুসেনের অনুগামীরাই ছেলেকে খুন করেছে। আরও অভিযোগ করেন, মারধরের পর তাঁর ছেলেকে গুলি করা হয়েছে, অঙ্কিত শর্মার দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

অভিযোগ, বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র একাধিবার বলেন, অঙ্কিত শর্মার মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত ছিলেন তাহির হুসেন। উত্তরদিল্লির মৌজপুরে নাগরিকত্ব আইনের পক্ষে তাঁর সভার পরেই দেশের রাজধানীতে হিংসা ছড়িয়ে পড়ে।

কপিল মিশ্রকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, “হত্যাকারী তাহির হুসেন। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, মাস্ক পড়ে লাঠি, পাথর, গুলি এবং পেট্রোল বোমা নিয়ে যাওয়া ছেলেদের দলে ছিলেন তাহির হুসেন।  তিনি অনবরত কেজরিওয়াল এবং আপ নেতাদের সঙ্গে কথা বলছিলেন”।

NDTV কে দেওয়া ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, একজন ব্যক্তি,তাঁকে তাহির হুসেন মনে করা হচ্ছে. অঙ্কিত শর্মার বাড়ির কাছেই একটি বাড়ির ছাদে কয়েকজনের সঙ্গে পাথর ছোঁড়ায় যুক্ত বলে মনে করা হচ্ছে। ছাদ থেকে পেট্রোল ছোঁড়ারও অভিযোগ রয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, ওই বাড়িরই নীচ থেকে হাল্কা ধোঁয়া বের হচ্ছে, তাহির হুসেনের বাড়িতেও হামলা হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে।

বুধবার এবং বৃহস্পতিবার, একটি ভিডিওতে, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন তাহির হুসেন।  তিনি বলেন., তিনি এবং তাঁর পরিবার, “২৪ ফেব্রুয়ারি পুলিশের সামনেই নিরাপদ জায়গায় চলে যান” এবং তারপর আর বাড়ি ফেরেননি।

তাহির হুসেনের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে সরব হয়ে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, “যে দলেরই হোক না কেন, হিংসা ছড়ানোয় যুক্ত থাকলে কাউকেইই রেয়াত করা হবে না”।

এর আগে, অঙ্কিত শর্মার মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নাম নিয়েছিলেন কপিল মিশ্র, দাবি করেন, মুখ্যমন্ত্রী এবং তাহির হুসেনের ফোন কলের রেকর্ড দেখলেই অঙ্কিত শর্মার মৃত্যুতে তাঁদের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যাবে।

 ANI এর তথ্য সংযোজিত হয়েছে