বিমান সেবিকার রহস্য মৃত্যু, খুন দাবি পরিবারের

স্বামীর দাবি ছাদ থেকে ঝাঁপ দেওয়াতেই মৃত্যু হয়েছে অনিশার। তবে  বাপের বাড়ির দাবি ঘটনার নেপথ্যে  আছে অন্য কারণ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

অনিশাবাত্রা তার স্বামী মায়াঙ্ক সিংভি সহ


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. Anissia Batra was being tortured since she got married, alleges family
  2. Her father had filed a police complaint days before her death
  3. She told her brother in a text she was going to take the extreme step

বাড়ির ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হল এক বিমান সেবিকার । দক্ষিণ দিল্লির পঞ্চশীল পার্ক এলাকায় মৃত্যু হয় বছর বত্রিশের অনিশা বাত্রার। তাঁর স্বামীর দাবি ছাদ থেকে ঝাঁপ দেওয়াতেই মৃত্যু হয়েছে অনিশার। তবে  বাপের বাড়ির দাবি ঘটনার নেপথ্যে  আছে অন্য কারণ। মৃতের বাবা প্রাক্তন সেনা আধিকারিক আর এস বাত্রার অভিযোগ তাঁর মেয়েকে অনেক দিন ধরেই  অত্যাচার করা হত। স্বামী ও তার পরিবারের বাকি সদস্যরা মারধর পর্যন্ত করতেন বলেও  দাবি ভারতীয় সেনা বাহিনীর এই প্রাক্তন মেজর জেনারেলের । পুলিশে অভিযোগও করেছিলেন তিনি। আর তাঁর পরেই ঘটল মৃত্যুর ঘটনা। এখনও কাউকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ ।

বাবা যাই বলুন না কেন মৃত তরুণীর স্বামী মায়াঙ্ক সিংভি জানিয়েছেন শুক্রবার সকালে অনিশার মোবাইল নম্বর থেকে তাঁর ফোনে একটি এসএমএস আসে । তাতে লেখা ছিল চূড়ান্ত পদক্ষেপ নিতে চলেছি। সেসময় বাড়িতেই ছিলেন মায়াঙ্ক । কিন্ত তাঁর দাবি ছাদে পৌঁছনোর আগেই স্ত্রী ঝাঁপ দিয়ে দিয়েছিলন।  গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে  মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কিন্ত স্বামীর দাবি খারিজ করেছন অনিশার ভাই করণ। তিনি জানিয়েছেন, সেদিন দিদির মোবাইল থেকে তাঁর ফোনে এসএমএস আসে । তাতে অনিশা লিখেছিলেন, মায়াঙ্ক তাঁকে একটি ঘরে বন্ধ করে রেখেছেন। শুধু তাই নয় সেখানে পুলিশকে খবর দিতেও বলা আছে। এ থেকেই পরিবাররে ধারনা অনিশাকে ধাক্কা দিয়ে ছাদ থেকে  ফেলে দেওয়া হয়েছে। এমনিতেই বিয়ের পর থেকেই তাঁকে নানা রকম অত্যাচার সইতে হত বলে দাবি পরিবারের। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন। দক্ষিণ দিল্লির বাড়ির যে ঘরে ওই দুজন থাকতেন সেটি পুলিশের তরফে সিল করে দেওয়া হয়েছে।       

 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................