শ্মশানে আনতেই নড়ে উঠল 'দেহ'! ভূত ভেবে দে দৌড় শ্মশানযাত্রীদের

তারপরেই চিত্তির! আচমকা নড়ে উঠল মাথা। তাহলে কি প্রাণ রয়েছে দেহে! নাকি ভূতে ভর করেছে?

শ্মশানে আনতেই নড়ে উঠল 'দেহ'! ভূত ভেবে দে দৌড় শ্মশানযাত্রীদের

মড়া নড়েচড়ে কেন! (প্রতীকী ছবি)

বহ্মপুর:

সবাই ধরে নিয়েছিলেন মারা গেছেন তিনি। সবাই সেই মতো সাজিয়ে গুছিয়ে দেহ দাহ করতে শ্মশানেও ( cremation ground) নিয়ে আসেন। তারপরেই চিত্তির! আচমকা নড়ে উঠল মাথা। তাহলে কি প্রাণ রয়েছে দেহে! নাকি ভূতে ভর করেছে? তখন কি আর এত ভাবার সময় আছে! মৃতদেহ (Dead) নড়ছে দেখেই দুদ্দাড়িয়ে প্রাণ নিয়ে পালাতে পারলেই বাঁচেন শ্মশানযাত্রীরা। এবং করলেনও তাই।  হাতেগোণা যে-কজন ছিলেন তাঁরা দুঃসাহসে ভর করে ছুটেছিলেন ডাক্তারবাবুকে ডাকতে। ডাক্তার এসে সব দেখে নিদান দেন ওড়িশার গঞ্জাম জেলার কপকহালা গ্রামের সীমাচসল মল্লিকের আসলে মৃত্যু হয়নি। কোনও কারণে সাময়িক তাঁর হৃদস্পন্দন স্তব্ধ হয়ে গেছিল। এরপরেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। 

স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, গবাদি পশু চড়াতে মালিক শনিবার জঙ্গলে গেছিলেন। সন্ধেয় সমস্ত ছাগল, ভেড়া ফিরে এলেও তিনি ফেরেননি। পরের দিন তাঁকে গ্রামের লোকেরা বেঁহুশ অবস্থায় দেখতে পান। শরীরে প্রাণের স্পন না থাকায় মৃত ভেবে বাড়িতে নিয়ে আসেন। এবং সবাই মিলে তাঁর সৎকারের আয়োজন করেন।

পিছু ধাওয়া পশুরাজের, ভিডিও দেখে শিহরিত নেটিজেন

শ্মাশানে যেতেই খঘটে সেই অঘটন। জীবন্ত হয়ে ওঠেন মৃত মালিক! ভয়ে তখন সবাই কাঁছেন ঠকঠক করে।

মাটির পাত্রে শুইয়ে মেয়েকে জীবন্ত কবর বাবার! কপালজোরে বেঁচে গেল সদ্যোজাত

চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পর ডাক্তার জানা, প্রচণ্ড জ্বরের ঘোরে সাময়িক বেহুঁশ হয়ে গেছিলেন পশুপালক।  অতি ক্ষীণ হয়েছিল তাঁর হৃদস্পন্দনও। চিকিৎসায় সাড়া দিয়ে এখন তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ এবং স্বাভাবিক। তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

More News