জীবিত বা মৃত, তাঁদের বের করে আনা উচিত, মেঘালয় নিয়ে মন্তব্য সুপ্রিম কোর্টের

আটকে পড়া খননকর্মীদের উদ্ধার করতে সেনা, নৌসেনা, বায়ুসেনার প্রযুক্তি বিভাগকে কাজে লাগানোর জন্য কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারকে নির্দেশের আর্জি জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের হয়।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

অবৈধ খনিতে আটকে পড়া শ্রমিকদের উদ্ধারকাজের খুব সামান্যই অগ্রগতি হয়েছে


নিউ দিল্লি: 

মেঘালয়ের খনির সুড়ঙ্গে আটকে পড়া খনন কর্মীদেের উদ্ধারকার্যে সন্তুষ্ট নয় সুপ্রিম কোর্ট।তিন সপ্তাহ কেটে গেলেও থেকে আটকে পড়া খননকর্মীদের এখনও উদ্ধার করা গেল না কেন, তা নিয়ে রাজ্য সরকারের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট শীর্ষ আদালত। আটকে পড়া খননকর্মীদের উদ্ধার নিয়ে একটি মামলার শুানানিতে এই অসন্তোষ প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্ট।

শুনানিতে আদালত বলে, "উদ্ধারকার্য নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। তাঁরা সকলেই বেঁচে আছেন, সবাই মৃত নাকি কয়েকজন জীবিত বাকিরা মৃত সেটা বড় ব্যাপার নয়। সবাইকে বের করে আনতে হবে। ঈশ্বরের কাছে আমাদের প্রার্থনা তাঁরা বেঁছে থাকুন"।

রথযাত্রা করা নিয়ে বিজেপির আবেদন সাত তারিখ শুনবে সুপ্রিম কোর্ট

মেঘালয়ের পূর্ব জয়ন্তীয়া পাহাড়ের 370 ফুট গভীর অবৈধ খনিতে আটকে পড়া শ্রমিকদের উদ্ধারকাজের খুব সামান্যই অগ্রগতি হয়েছে। তাঁদেের কাছে পৌঁছানোর লাগাতার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা,নৌসেনা, দমকলের একাধিক দল। এক আধিকারিক জানিয়েছেন, পাশের একটি খনি থেকে সে সেখানে জল ঢুকে যাওয়ায় পৌঁছাতে পারছে না উদ্ধারকারী দল।

শবরীমালা মন্দিরে প্রবেশ করা দুই ঋতুমতি মহিলাকে ভক্তরা বাধা দেয়নি: মুখ্যমন্ত্রী

এরইমধ্যে জল্পনা, যে উদ্ধারকারীরা নাকি জানিয়েছেন, গভীর খনি গর্ত থেকে পচা দুর্গন্ধ বের হচ্ছে, যার থেকে তাঁদের অনুমান খননকর্মীরা সকলেই মৃত। যদিও সেই জল্পনা উডিয়ে দিয়েছেন উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা। তাঁদের মত, 48 ঘন্টা পাম্প বন্ধ থাাকায় গভীর খনিতে জল জমে গিয়েছে, সেই কারণেই এই দুর্গন্ধ।
উড়িশার দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর সহ কোল ইন্ডিয়া থেকে উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন পাম্প এনে পাশের খনি থেকে জল বের করার চেষ্টা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা। উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন পাম্প মেশিন সহ উদ্ধারকার্যে যোগ দিয়েছেে পাম্প মেশিন প্রস্তুতকারক সংস্থা কির্লোস্কার ব্রাদার্স।

মিলে গেল দেনা ব্যাঙ্ক, বিজয়া ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্ক অব বরোদাঃ ১০'টি তথ্য

সেনা, নৌসেনা, বায়ুসেনার প্রযুক্তি বিভাগকে উদ্ধারকার্যে লাগানোর জন্য কেন্দ্র ও রাজ্যকে নির্দেশের জানিয়ে মামলা দায়ের হয়।খনিতে আটকে পড়া বা এই ধরণের উদ্ধারকার্যের জন্য স্ট্যাডার্ড অপারেশন প্রসিডিওর তৈরির নির্দেশ দেওয়ার আবেদন জানানো হয়।

উদ্ধারকার্যে রাজ্য সরকার যথাযথ পদক্ষেপ করেছে এবং কেন্দ্রও সহায়তা করছে বলে আদালতে জানিয়েছেন মেঘালয় সরকারের আইনজীবী।


 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................