Cyclone Bulbul: ত্রাণ বিলির জন্য টাস্ক ফোর্স গঠন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

Cyclone Bulbul News: বিদ্যুৎ সরবরাহ ফেরানো, পরিশুদ্ধ পানীয় জলের ব্যবস্থা করা এবং ওষুধের জোগান দেওয়া প্রাথমিক প্রয়োজন বলে জোর দিয়ে বলেন মুখ্যমন্ত্রী

Cyclone Bulbul:  ত্রাণ বিলির জন্য টাস্ক ফোর্স গঠন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

সোমবার দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সাইক্লোন বুলবুলের পর সেখানে যান মুখ্যমন্ত্রী

কাকদ্বীপ:

সাইক্লোন বুলবুলের (Cyclone Bulbul) মোকাবিলায় উদ্যোগ, এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কম করার জন্য দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসনের প্রশংসা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) । সোমবার দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সাইক্লোন বুলবুলের পর সেখানে যান তিনি। বুলবুলের প্রভাবে মৃতদের পরিবারগুলিকে ২ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে এবং ত্রাণ বিলির জন্য একটি টাস্ক ফোর্সও গঠন করেন মুখ্যমন্ত্রী। এলাকার মানুষকে “ইতিবাচক থাকতে” এবং সাইক্লোনের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার নির্দেশ দেন তিনি। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগরদ্বীপ এবং বাংলাদেশের খেপুপাড়ায় আছড়ে পড়ে ঘুর্ণিঝড় সাইক্লোন, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বুলবুলের প্রভাবে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয় এবং ৬ লক্ষ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হন।

রাজ্যের ৪৭১টি ত্রাণ শিবিরে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ১.৭৮ লক্ষ মানুষকে। এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানা এবং বকখালির বিভিন্ন এলাকায় হেলিকপ্টার থেকে পর্যবেক্ষণ করেন মুখ্যমন্ত্রী। বিপর্যয়ের পর, পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনাও করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমার প্রশাসন দারুণ কাজ করেছে। নাহলে এই আরও ধ্বংসাত্মক হতে পারত...যদি তাঁরা ১.৭৮ লক্ষ মানুষকে উদ্ধার না করতেন, তাহলে আমি বলতে পারব না কী হতে পারত। তাঁদের পুরস্কৃত করা উচিত। এমনকী, কেন্দ্রীয় সরকারও প্রশংসা করেছে তাঁদের চেষ্টার”।

বিদ্যুৎ সরবরাহ ফেরানো, পরিশুদ্ধ পানীয় জলের ব্যবস্থা করা এবং ওষুধের জোগান দেওয়া প্রাথমিক প্রয়োজন বলে জোর দিয়ে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি সরকারের আধিকারিকদের তিনি মানুষের কাছে গিয়ে এলাকায় যাতে শান্তি বজায় রেখে ত্রাণ সরবরাহ করা যায়, তার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেন। মুখ্যসচিব রাজীব সিনহাকে টাস্কফোর্সের প্রধান হিসেবে নিয়োগ করেন তিনি। পাশাপাশি জানান, প্রতি ৪৮ ঘন্টা অন্তর, ত্রাণ বিলি পর্যালোচনা করবে এই টাস্কফোর্স।

ঘুর্ণিঝড়ের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এলাকায় পানপাতা এবং ধানের চাষ, সেইকথা মাথায় রেখে জেলা সেচ, বন ও বিদ্যুৎ দফতরকে স্বাভাবিকতা ফেরাতে একসঙ্গে কাজ করার নির্দেশ দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

More News