শাহিনবাগকে দেখে মনে হচ্ছে অসহযোগ আন্দোলন চলছে: সিপিআই(এম)

মহাত্মা গান্ধির অসহযোগ আন্দোলনের সঙ্গে শাহিনবাগের তুলনা টানল সিপিআই(এম)।

শাহিনবাগকে দেখে মনে হচ্ছে অসহযোগ আন্দোলন চলছে: সিপিআই(এম)

আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শুনানি পিছিয়েছে শীর্ষ আদালত।

হাইলাইটস

  • "শাহিনবাগকে দেখে মনে হচ্ছে অসহযোগ আন্দোলন," শুক্রবার তুলনা টানল বামেরা
  • প্রাক্তন সিপিআইএম সাংসদ হান্নাণ মোল্লা বলেছেন, দাবি আদায়ে এই আন্দোলন
  • একদম নতুন ও শান্তিপূর্ণ, এদিন জানিয়েছেন ওই সিপিআইএম নেতা
নয়া দিল্লি:

মহাত্মা গান্ধির অসহযোগ আন্দোলনের সঙ্গে শাহিনবাগের (Shaheen bagh)  তুলনা টানল সিপিআই(এম)। সংবাদসংস্থা এএনআইকে প্রবীণ CPIM নেতা তথা প্রাক্তন সাংসদ হান্নান মোল্লা (Former CPIM MP Hannan Mollah) বলেছেন, "স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় আমরা অসহযোগ আন্দোলন (Non-Cooperative Movement during Brtish Rule) দেখেছি। সেটা শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের একটা মাধ্যম হয়েছিল। সেই ভাবেই শাহিনবাগ প্রতিবাদ দেখাচ্ছে। অনেক বছর পর অহিংস ভাবে আইনভঙ্গ না করে নতুন উদ্যমে প্রতিবাদ চলছে শাহিনবাগে।" তিনি বলেন, "আমরা সাধারণত লন্ডন, প্যারিস, নিউ ইয়র্কে এভাবে অবস্থান করতে দেখি। অধিকার রক্ষার তাগিদে এটা প্রতিবাদের নয়া পদ্ধতি।" ইতিহাস বলছে, ১৯২০ সালে মহাত্মা গান্ধি ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে এই অসহযোগ আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন। এদিকে গত প্রায় দু মাস ধরে সিএএ (CAA) বিলোপের দাবিতে দিল্লির দক্ষিণ-পূর্বের শাহিনবাগ অবস্থান বিক্ষোভ চলছে। স্থানীয় মহিলাদের ওই বিক্ষোভে জমায়েত বেশি।

বেঙ্গালুরুতে "পাকিস্তান জিন্দাবাদ" স্লোগান তরুণীর! ফেসবুকেও "লং লিভ অল কান্ট্রি"

ইতিমধ্যে শাহিনবাগ অচলাবস্থা কাটাতে মধ্যস্থতাকারী নিয়োগ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই প্রতিনিধি দলে আছেন আইনজীবী সঞ্জয় হেগড়ে, সাধনা রামচন্দ্রণ আর প্রাক্তন সিআইসি ওয়াজাহাত হাবিবুল্লা। যদিও, মধ্যস্থতাকারী নিয়োগের পরেও কাটেনি অচলাবস্থা। 

"অমূল্য ভুল ছিল," মেয়ের সমালোচনায় সরব অভিযুক্ত "পাকিস্তান জিন্দাবাদ" তরুণীর বাবা

শাহিনবাগের অবরুদ্ধ রাস্তা খুলতে সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দাখিল হয়েছে। নন্দকিশোর গর্গ আর অমিত সাহানির হয়ে সেই মামলা দাখিল করেছেন আইনজীবী শশাঙ্ক দেও সুধী। কেন্দ্রকে এ বিষয়ে সক্রিয় হয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানানো হয়েছে ওই মামলায়। সেই আবেদনে অভিযোগ করা হয়েছে, অনৈতিক ভাবে যাতায়াতের রাস্তা আটকে সাধারণ মানুষের অসুবিধা সৃষ্টি করা হচ্ছে। দু'মাস ধরে অবরুদ্ধ দিল্লি-নয়ডা যাওয়ার এই গুরুত্বপূর্ণ পথ। যদিও শুক্রবার ক্ষণিকের জন্য নয়ডা-ফরিদাবাদ রাস্তা খুলে দেওয়া হয়েছিল। বাকি অংশ অবরুদ্ধ ছিল। 

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com