"পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে বামফ্রন্টের আরও গভীর অন্তর্দর্শন দরকার" : সিপিআই জেনারেল সেক্রেটারি

সুরাবরম সুধাকর রেড্ডি কেরালায় জনসাধারণের কাছ থেকে "খুব ভাল ইতিবাচক" প্রতিক্রিয়া জিতেছে, যারা বাম সরকারের ওপর তাদের আস্থা ফিরিয়ে দিয়েছে

বামেদের উচিত পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির ফলাফলের দিকে তাকানো, বলেছেন রেড্ডি

হায়দ্রাবাদ: বর্ষীয়ান বামপন্থী নেতা সুরাবরম সুধাকর রেড্ডি কেরলের চেঙ্গানুর বিধানসভা উপনির্বাচনে সিপিআই (এম) সমর্থিত এলডিএফের জয় নিয়ে বলতে গিয়ে বলেন, পশ্চিমবঙ্গের জন্য আরও গভীর অন্তর্দর্শন দরকার। যেখানে নিজেদের রাজনৈতিক স্থানটি বামপন্থীরা বিজেপিকে ছেড়ে দিচ্ছেন। 

সিপিআইয়ের জেনারেল সেক্রেটারি কেরলের এই জয়কে বাম সরকারের উপর সাধারণ মানুষের আস্থা হিসাবে ব্যাখা করে বলেন, এটি সাধারণ মানুষের কাছ থেকে আসা 'অত্যন্ত ইতিবাচক' একটি প্রতিক্রিয়া।

পিটিআইকে রেড্ডি বলেন, "জয়ের ব্যবধান (20,956 ভোট)-টি দুর্ধর্ষ।''

চেঙ্গানুর কেন্দ্র থেকে 67,303'টি ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন শাসকদল সিপিআই(এম) সমর্থিত এলডিএফ প্রার্থী সাজি চেরিয়ান। কংগ্রেস সমর্থিত ইউডিএফ প্রার্থী ডি বিজয়কুমার পেয়েছেন 46,347'টি ভোট। বিজেপির পি এস শ্রীধরন পিল্লাই 35,270'টি ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন।

বিজেপি যে বাংলা সিপিএমকে সরিয়ে দিয়ে তাদের জায়গাটা নিয়ে নিচ্ছে ক্রমে, তা মেনে নিয়ে রেড্ডি বলেন, "এটা একদম সত্যি কথা। এই ইস্যুটিতে আমাদের আরও গভীর পর্যবেক্ষণ এবং নিজেদের দিকে ভালো করে তাকানো দরকার (পশ্চিমবঙ্গে)"।

পশ্চিমবঙ্গে সাম্প্রতিক কয়েকটি নির্বাচনের মতোই এই নির্বাচনের ফলাফলেই কোনও ব্যতিক্রম ঘটেনি। সিপিএমকে তৃতীয় স্থানে ঠেলে দিয়ে নিজেরা দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে বিজেপি। তৃণমূল পেয়েছে বিশাল জয়।

(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)