করোনা রোগীদের পাশেই পড়ে আছে ওই রোগের কারণে মৃত ব্যক্তিদের দেহ! দেখুন ভয়ঙ্কর সেই ভিডিও

Coronavirus Shocking Video: হাসপাতালের কর্মীরা সাফাই গেয়েছেন, ওই দেহগুলি পরিবারের সম্মতির অপেক্ষায় ফেলে রাখা হয়েছিল

Coronavirus Outbreak: রোগীদের পাশেই এখানে-সেখানে পড়ে আছে কমপক্ষে ৭টি মৃতদেহ

হাইলাইটস

  • মুম্বইয়ের হাসপাতালের ভয়ঙ্কর ভিডিও সামনে এল
  • করোনা রোগীদের বেডের পাশেই ফেলে রাখা হয়েছে ওই রোগে মৃতদের দেহ
  • ঘটনার মোবাইল ভিডিও ভাইরাল হলো সোশ্যাল সাইটে

দেশে যখন লাগাতার করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রমণ ছড়াচ্ছে, যখন সরকারের পক্ষ থেকে এই মারণ রোগের বিরুদ্ধে সবরকম সতর্কতা নেওয়ার কথা বলা হচ্ছে তখনই একটি হাসপাতালের (Mumbai Hospital) এমন এক ভিডিও সামনে এল যা দেখে আঁতকে উঠবেন সকলে। মুম্বইয়ের হাসপাতালে একটি মোবাইল ফোনে তোলা ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যেখানে হাসপাতালের শয্যায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা চলছে, তারই আশেপাশে এখানে ওখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি মৃতদেহ (Coronavirus Death)। ব্যাগের মধ্যে কোনও রকমে জড়ানো অবস্থায় ফেলে রাখা দেহগুলো সবই করোনা আক্রান্ত মানুষজনের। মারা যাওয়ার পরেও তাঁদের দেহ অন্যত্র না সরিয়ে হাসপাতালের মেঝেতে ফেলে রাখা হয়েছে, যা থেকে আরও মারাত্মক সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।ওই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে। 

করোনায় মৃত দিল্লির কনস্টেবল, এক হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ ভর্তি না নেওয়ার

ভয়ঙ্কর ওই ভিডিও ক্লিপটি মুম্বইয়ের সিওন (Sion Hospital) হাসপাতালের যা কিনা সেখানকার পুরসভার নিয়ন্ত্রণে। কমপক্ষে ৭ টি মৃতদেহ ওয়ার্ডে পড়ে থাকতে দেখা গেছে, আর তার পাশেই হাসপাতালের বেডে চিকিৎসা চলছে অন্য রোগীদের; কিছু রোগীর পরিবারের সদস্যরা সেখানে উপস্থিত আছে। ভাবুন একবার, কী ভয়ঙ্কর ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা।

করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যে ৯২,০০০ মানুষের সন্ধান মিলল যাঁরা জ্বর-শ্বাসকষ্টে ভুগছে!

মহারাষ্ট্র সরকারের বিরোধী বিজেপির এক বিধায়ক নীতেশ রানে ওই ভয়ঙ্কর ভিডিওটি পোস্ট করে লেখেন: "সিওন হাসপাতালে রোগীরা মৃতদেহের পাশেই ঘুমিয়ে আছেন !!! কী চূড়ান্ত গাফিলতির নিদর্শন ... এ কেমন প্রশাসন! খুব খুব লজ্জাজনক !! "

যদিও সিওন হাসপাতালের ডিন প্রমোদ ইঙ্গালে জানান, কোভিড - ১৯ এ আক্রান্ত হয়ে যাঁরা মারা গেছেন তাঁদের স্বজনরা সেই লাশ নিতে নারাজ। "এই কারণেই ওই মৃতদেহগুলি ওখানে ওভাবে ফেলে রাখা ছিল। আমরা এখন ওই দেহগুলি সরিয়ে নিয়েছি এবং বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি", প্রেস ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়াকে বলেন তিনি।

হাসপাতালের কর্মীরাও সাফাই গেয়েছেন, ওই দেহগুলি পরিবারের সম্মতির অপেক্ষায় ফেলে রাখা হয়েছিল।

এদিকে মহারাষ্ট্রে ভারতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোন ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সন্ধান মিলেছে। সেখানে করোনা আক্রান্ত প্রায় ১৬,৮০০ জন। শুধু মুম্বইয়েই ওই রোগে ভুগছেন প্রায় ১০,৭১৪ জন মানুষ। বাণিজ্যনগরীতে ৪০০ এরও বেশি মানুষ মারা গেছে ওই রোগে।