This Article is From Apr 26, 2020

রাজস্ব বাড়াতে বাড়ান হোক কর! সাম্প্রতিক এই সুপারিশকে খারিজ করল কেন্দ্র

ফোর্স নামে তৈরি করা সেই সুপারিশে একাধিক প্রস্তাব দিয়েছে টিম ফোর্স। সেই তালিকায় আছে ধনীদের আয়ের ওপর ৪০% কর বসানো, পাশাপাশি মহামারী সেস ধার্য করা

রাজস্ব বাড়াতে বাড়ান হোক কর! সাম্প্রতিক এই সুপারিশকে খারিজ করল কেন্দ্র

সিবিডিটি-কে তৎপর হয়ে জবাবদিহি তলবের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। (ফাইল ছবি)

রাজস্ব বাড়াতে বিভিন্ন খাতে কর বাড়ানো হোক। সম্প্রতি ভারতীয় রাজস্ব পরিষেবা (IRS) বা আইআরএস-এর কয়েকজন আমলা এমন সুপারিশ অর্থ মন্ত্রককে দিয়েছে। বিভিন্ন সূত্র মারফৎ সেই সুপারিশ ফাঁস হয়ে যাওয়ার পরেই শুরু হয় নানা মহলে হইচই। এবার তাই সঙ্কটের আবহে এই হইচই কমাতে উদ্যোগ নিল কেন্দ্রীয় সরকার। আইআরএস কর্তাদের এমন সুপারিশে পাঠানোর এক্তিয়ার নেই। এই মর্মে জবাবদিহি করেছে কেন্দ্র। এই সুপারিশ পাঠানোর ঘটনাকে প্রোটোকলের বাইরে বেরিয়ে 'উশৃঙ্খল আচরণ' বলে সমালোচনা করেছে অর্থ মন্ত্রক (Finance Ministry)। পাশাপাশি এই ধরনের কোনও সুপারিশ মন্ত্রক অধীনস্ত কোনও দফতরের থেকে চাওয়া হয়নি। এমনটাও স্পষ্ট  করা হয়েছে। এই মর্মে সিবিডিটি'র অধিকর্তাকে পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেন এই ধরনের সুপারিশ পাঠানো হলো, সেই আমলাদের থেকে জানতে চাওয়া হবে। এই সিবিডিটি'র কাছেই জমা পড়েছে বিতর্কিত সেই সুপারিশ বলে সূত্রের খবর। 

ফোর্স নামে তৈরি করা সেই সুপারিশে একাধিক প্রস্তাব দিয়েছে টিম ফোর্স। সেই তালিকায় আছে ধনীদের আয়ের ওপর ৪০% কর বসানো, পাশাপাশি মহামারী সেস ধার্য করা। রয়েছে বিদেশী সংস্থাগুলোর ওপর আরও বেশি কর্পোরেট কর বসানোর মতো সুপারিশ। সিবিডিটি সূত্রে খবর, ভারতীয় রাজস্ব পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত সেই আমলারা নিজেদের টিম ফোর্স বলে সেই সুপারিশে উল্লেখ করেছেন। তবে এই সুপারিশ কখনও গৃহীত হবে না। এই সুপারিশ কার্যকরী হলে সঙ্কট পরবর্তী পর্যায়ে বাড়তি চাপ বসবে জনগণের ঘাড়ে। এমনটাই মন্তব্য অর্থ মন্ত্রকের সেই সূত্রের।  

এমনকি, অর্থ মন্ত্রকের সেই সূত্রের দাবি, "এই সুপারিশ অর্থ মন্ত্রক কিংবা সিবিডিটি'র পরিকল্পনার আওতাধীন নয়।" জানা গিয়েছে, এই সঙ্কটকালে বাজারে নগদের জোগান পর্যাপ্ত রাখা আর ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করে আম আদমিকে সুরাহা দেওয়া এখন অর্থ মন্ত্রকের মূল লক্ষ্য।