২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৮ হাজার সংক্রমিত! একদিনে সর্বোচ্চ ঝাঁপ ভাইরাসের

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ পন্থার সঠিক বাছাই করেছে ভারত। আর সেই নির্বাচনের প্রয়োগ, অন্য দেশের থেকেও কার্যকরী। শনিবার এই দাবি করেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর

২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৮ হাজার সংক্রমিত! একদিনে সর্বোচ্চ ঝাঁপ ভাইরাসের
নয়াদিল্লি: শনিবার সকাল ৮টা থেকে রবিবার সকাল ৮টা, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সর্বাধিক সংক্রমণ (Single Day highest spike in Corona cases)। একদিনে রেকর্ড সংখ্যক ২৮, ৬৩৭ জন সংক্রমিত (Covid-19 in India)। রবিবার এই তথ্য দিল স্বাস্থ্য মন্ত্রক। জানা গিয়েছে, এই সংক্রমণ ধরে দেশে মোট সংক্রমিত ৮,৪৯, ৫৫৩ জন। পাশাপাশি একদিনে ৫৫১ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। রবিবার সকাল পর্যন্ত দেশে মোট মৃত ২২,৬৭৪ জন। স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে আরও খবর, এযাবৎকাল মোট ৫,৩৪, ৬২১ জন সুস্থ হয়েছেন। মন্ত্রকের দাবি, মোট সংক্রমণের ৭৮% এসেছে সাতটি রাজ্য থেকে। একদিনে এত সংখ্যাক সংক্রমণের নেপথ্যে আছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি, তামিলনাড়ু, তেলেঙ্গানা, অসম, বিহার, কর্নাটক (Maharashtra-Delhi worst affected)।

১০ তথ্যে দেখুন করোনা পরিস্থিতি:

  1. স্থিতিশীল অমিতাভ ও অভিষেক বচ্চন। দুই অভিনেতার মৃদু উপসর্গ আছে। রবিবার সকালে মেডিকাল বুলেটিনে জানিয়েছে নানাবতী হাসপাতাল। শনিবার সন্ধ্যায় সংক্রমণ নিয়েই এই হাসপাতালে সপুত্র ভর্তি হয়েছিলেন বিগ-বি।

  2. মহারাষ্ট্র রাজ ভবনের ১৮ জন সংক্রমিত। সে রাজ্যে মোট সংক্রমিত ২ লক্ষ ৪৬ হাজার। গত একদিনে সংক্রমিত আট হাজারের বেশী মানুষ। 

  3. এদিকে, করোনা পরিস্থিতির সাময়িক উন্নতি দিল্লিতে। সক্রিয় সংক্রমণ কমেছে গত ৩১ দিনের তুলনায়। জুলাই মাসের প্রথম দশদিনে হোম আইসোলেশনে থাকা কোনও করোনা রোগীর মৃত্যু হয়নি। গত দু'সপ্তাহে সার্বিক ভাবে কমেছে মৃতের হারও। দিল্লি স্বাস্থ্য দফতরের সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে এমনটাই উল্লেখ। 

  4.  পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ২৮,৫০০ ছুঁইছুঁই। শনিবারে সর্বাধিক সংক্রমণ দেখেছে বাংলা। একদিনে সংক্রমিত ১৩৪৪ জন। মৃত মোট ৯০৬। 

  5. একইভাবে একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণের বিচারে মধ্যপ্রদেশে মোট সংক্রমিত ১৭,২০১ জন, মৃত ৬৪৪। 

  6. ক্রমবর্ধমান সংক্রমণ বিচারে কামরূপে দু'সপ্তাহের লকডাউন বাড়ালো অসম সরকার। গুয়াহাটিতে সক্রিয় সংক্রমণ প্রায় তিন হাজার। অরুণাচল প্রদেশের রাজধানী শহর ইটানগরেও বাড়ানো হয়েছে লকডাউন। জুলাই ১৩ ও ১৪, দু'দিনের কড়া লকডাউন চলবে মেঘালয়ে। 

  7.  ১৪ জুলাই লকডাউন বলবৎ করা হয়েছে বেঙ্গালুরুতে। কর্নাটকে মোট সংক্রমিত ১৬ হাজার, মৃত ২২৯ জন। 

  8. রেমডেসিভির ও টোসিলিজুমাবের অফুরান ব্যবহারে রাশ টানতে নির্দেশ পাঠালো স্বাস্থ্য মন্ত্রক। সবক'টি অঙ্গরাজ্য ও কেন্দ্ররশাসিত অঞ্চলে এই নির্দেশ গিয়েছে। সংবাদসংস্থা এএনআই সূূত্রে এমনটাই খবর। 

  9. করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ পন্থার সঠিক বাছাই করেছে ভারত। আর সেই নির্বাচনের প্রয়োগ, অন্য দেশের থেকেও কার্যকরী। শনিবার এই দাবি করেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর।

  10. এযাবৎকাল করোনা সংক্রমণে বিশ্বব্যাপী ৫,৬০ হাজার মানুষ সংক্রমিত। ১৯৬টি দেশের ১২.৫ মিলিয়ন মানুষ সংক্রমিত। সংক্রমণের বিচারে প্রথম তিনে ইউএস, ব্রাজিল ও ভারত।