করোনাকে আটকাতে রাজনাথের বিশেষ বৈঠক, যোগ দিলেন পীযূষ গয়াল সহ অন্যান্য মন্ত্রীরা

COVID-19 Crisis: দেশ জুড়ে প্রয়োজনীয় পণ্য ও পরিষেবা সরবরাহের বিষয়গুলি সমাধান করার জন্যেই এই বৈঠকে বসেন দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

করোনাকে আটকাতে রাজনাথের বিশেষ বৈঠক, যোগ দিলেন পীযূষ গয়াল সহ অন্যান্য মন্ত্রীরা

Coronavirus: নিজের বাড়িতেই দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক করলেন রাজনাথ সিং

হাইলাইটস

  • করোনা পরিস্থিতিতে নিজেদের মধ্যে বৈঠক করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা
  • নিজের বাসভবনে বসে ওই বৈঠকের সভাপতিত্ব করলেন রাজনাথ সিং
  • রাজ্য সরকারগুলোর সঙ্গে কেন্দ্রের সমন্বয় সাধনের জন্যে নীতিমালা তৈরির ভাবনা
নয়া দিল্লি:

COVID- 19 ক্রমাগত দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। এই সংকট (Coronavirus) থেকে রেহাই পেতে দেশের সর্বস্তরে লকডাউনের পথে হেঁটেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই পরিস্থিতিতে (COVID-19 Crisis) রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের মধ্যে আরও ভাল সমন্বয় গড়তে আলোচনার জন্য শনিবার নিজের বাসভবনে একটি জরুরি বৈঠক করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং (Rajnath Singh)। তাঁর ডাকা ওই বৈঠকে যোগ দেন অন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা । বৈঠকে ছিলেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর, বস্ত্রমন্ত্রী স্মৃতি ইরানি এবং পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান সহ আরও বেশ কয়েকজন। তবে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। অতি সংক্রামক নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে গত মাস থেকেই দেশ জুড়ে লকডাউনের ডাক দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তারপর থেকে এই নিয়ে পঞ্চমবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা বৈঠক করেন।

জানা গেছে, শনিবারের বৈঠকে যে সমস্ত বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হ'ল দেশ জুড়ে প্রয়োজনীয় পণ্য ও পরিষেবা সরবরাহের ক্ষেত্রে যে সমস্যাগুলো হচ্ছে তার সমাধান করা। ওই মন্ত্রীগোষ্ঠী, যাঁরা প্রত্যেকেই করোনা পরিস্থিতিতে এক-একটি রাজ্যের তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে আছেন, তাঁরা এবিষয়ে এবার বিভিন্ন রাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবে এবং সেই মতামতের ভিত্তিতে একটি নির্দিষ্ট নীতিমালাও তৈরি করবে।

চিনে করোনায় মৃতদের নতুন পরিসংখ্যান, বাড়ছে হাহাকার, অন্যান্য দেশেও বাড়বে সংখ্যা, বলল 'হু'

এই বৈঠকের সুপারিশ ও নীতিমালা সংক্রান্ত পরামর্শগুলোর ক্ষেত্রে পরবর্তী পদক্ষেপের জন্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে জমা দেওয়া হবে।

এদিকে করোনা রোধে ভারতীয় চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা NDTV-কে জানিয়েছেন যে, কুষ্ঠরোগের বিরুদ্ধে কার্যকরী ১টি বহুমুখী ভ্যাকসিনকে করোনা প্রতিরোধের বিষয়ে পরীক্ষা করে দেখছেন তাঁরা, কেননা ওই ভ্য়াকসিনটি মানবদেহে রোগপ্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ায়। "ডিসিজিআই (Drug Controller General of India) এটির বিষয়ে অনুমোদন দেওয়ার পরেই আমরা কুষ্ঠরোগের বিরুদ্ধে সফলভাবে ব্যবহার করা এই মেগাওয়াট ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্য়বহার শুরু করেছি", জানান কাউন্সিল অফ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চের মহা নির্দেশক ডঃ শেখর মাণ্ডে।

রাজ্যের প্রবাসী শ্রমিকদের সহায়তার জন্যে এগিয়ে এলেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক শনিবার জানিয়েছে, এই মুহূর্তে ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪,৩৭৮ এ, যার মধ্যে ৪৮০ জনের ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে। পরিসংখ্যান বলছে শুধু গত ২৪ ঘণ্টাতেই দেশে নতুন করে ৯৯১ জন করোনার ফাঁদে পড়েছেন এবং ৪৩ জনের প্রাণ কেড়েছে COVID- 19। এদিক শুক্রবারই সরকার জানিয়েছে, দেশ ব্যাপী লকডাউনের ফলে অনেকটাই কার্যকরী ফল মিলছে, কেননা লকডাউনের আগে যেখানে প্রতি ৩ দিন অন্তর দ্বিগুণ হচ্ছিল আক্রান্তের সংখ্যা সেখানে বর্তমানে সেই বৃদ্ধির হার অনেকটাই কমে এসেছে। এখন প্রতি ৬.২ দিন অন্তর দ্বিগুণ হচ্ছে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা। গোটা বিশ্বে দেড় লক্ষেরও বেশি মানুষের প্রাণ নিয়েছে করোনা ভাইরাস।