This Article is From Aug 15, 2020

২৪ ঘণ্টায় ৬৫,০০০ এরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হলেন, ৯৯৬ জনের মৃত্যু

Coronavirus: দেশে এখনও পর্যন্ত ৪৯,০৩৬ জনের প্রাণ কাড়লো করোনা ভাইরাস

২৪ ঘণ্টায় ৬৫,০০০ এরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হলেন, ৯৯৬ জনের মৃত্যু

Coronavirus: দেশে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে

হাইলাইটস

  • দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই যেন রেকর্ড হারে বাড়ছে
  • তবে সেই সঙ্গে সুস্থতার হারও বাড়ছে এদেশে
  • ভারতে এখনও পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৮,০৮,৯৩৬ জন
নয়া দিল্লি:

দেশে করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) বাড়বাড়ন্তে দাপটে চিন্তার ভাঁজ পড়ছে সকলের কপালে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের শনিবার সকালের পরিসংখ্যান বলছে,  গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬৫,০০২জন। ফলে সব মিলিয়ে ভারতে এই মারণ রোগের (India Coronavirus) কবলে পড়েছেন ২৫,২৬,১৯২ জন। সরকারি তথ্যে দেখা গেছে, গত একদিনে সারা দেশে ৯৯৬ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এর ফলে এই ভয়ঙ্কর সংক্রামক রোগে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৪৯,০৩৬ এ পৌঁছেছে। তবে চিকিৎসা সহায়তায় করোনার প্রকোপ কাটিয়ে সুস্থ হয়ে উঠছেন বহু মানুষ। ১৮,০৮,৯৩৬ জন এপর্যন্ত স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন। অর্থাৎ ভারতে করোনা থেকে পুনরুদ্ধারের হার এখন ৭১.৬০ শতাংশ। যতজন মানুষের করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে তার মধ্যে ইতিবাচক হার ৭.৪৮ শতাংশ। শুক্রবার মোট ৮,৬৮,৬৭৯ জনের শরীর থেকে নমুনা নিয়ে কোভিড-১৯ (India covid-19) পরীক্ষা করা হয়।

এদিকে দেশের যে ২৪ টি রাজ্যে করোনা সংক্রমণ দেখা দিয়েছে তার মধ্য়ে মোট পাঁচটি রাজ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে এই ভাইরাস। এই তালিকায় প্রথমেই আছে মহারাষ্ট্র (৩৬৪),  তারপর রয়েছে তামিলনাড়ু (১১৭), কর্নাটক (১০৪), অন্ধ্রপ্রদেশ (৯৭) এবং পশ্চিমবঙ্গ (৬০)। ওই ২৪ টি রাজ্যের মধ্যে সংক্রমণের বিচারে প্রথম ৫টি রাজ্য হলো মহারাষ্ট্র (১২,৬০৮), অন্ধ্রপ্রদেশ (৮,৯৪৩), কর্নাটক (৭,৯০৮), তামিলনাড়ু (৫,৮৯০) এবং উত্তরপ্রদেশ (৪,৫১২)।

এদিকে শনিবার দেশের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে জাতির উদ্দেশে বার্তায় তিনি বলেন, দেশে ৩টি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধকারী ভ্যাকসিন নিয়ে বিভিন্ন পরীক্ষা চলছে এবং এটি সফল হলে যাতে প্রত্যেক ভারতীয় এই ভ্য়াকসিনের সুবিধা পান তার জন্য একটি রোডম্যাপ ইতিমধ্যেই প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, "আপাতত ৩টি ভ্যাকসিন নিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে পরীক্ষা চলছে। বিজ্ঞানীরা এনিয়ে সবুজ সংকেত দিলেই আমরা এর উৎপাদন শুরু করবো। তবে তার আগে আমরা এবিষয়ে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করে প্রস্তুত হয়ে থাকছি। এই ভ্যাকসিন কীভাবে প্রতিটি ভারতীয়ের কাছে সবচেয়ে কম সময়ে পৌঁছবে- তা নিয়ে আমাদের কাছে একটি রোডম্যাপও প্রস্তুত রয়েছে।"

এদিকে জম্মু ও কাশ্মীরের রিয়াসি জেলার ত্রিকূট পাহাড় থেকে বৈষ্ণো দেবীর তীর্থযাত্রা রবিবার থেকে ফের শুরু হওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস মহামারী রূপে দেওয়ার পর প্রায় পাঁচ মাস স্থগিত রাখা হয় ওই যাত্রা।

সারা বিশ্বে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা শুক্রবারই ২১ মিলিয়ন পেরিয়ে গেছে। একটি সমীক্ষায় বলা হয়েছে, এর মধ্যে ৭,৫৫,০০০ এরও বেশি মানুষ মারা গেছে। করোনা রোগীদের মৃত্যুর পরিসংখ্যানে সবার আগে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সেখানে ১,৬৮,৩১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে, এরপরেই রয়েছে ব্রাজিল, সেখানে ১,০৫,৪৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ওদিকে মেক্সিকোকে ৫৫,২৯৩ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা। আর ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪৯,০০০ পেরিয়ে গেছে।