দেশে করোনা আক্রান্ত ৭.৪২ লক্ষেরও বেশি, তবে সুস্থতার হার ৬১%

Coronavirus: গত ২৪ ঘণ্টায় এদেশে ৪৮২ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা ভাইরাস, এখনও পর্যন্ত ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০,৬৪২

দেশে করোনা আক্রান্ত ৭.৪২ লক্ষেরও বেশি, তবে সুস্থতার হার ৬১%

দেশে করোনার জেরে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে মোট ২০,৬৪২ জনের

হাইলাইটস

  • দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নাগাড়ে বাড়ছে
  • সারা বিশ্বে করোনা আক্রান্ত দেশগুলোর তালিকায় এখন তৃতীয়তে ভারত
  • ভারতের আগেই রয়েছে ব্রাজিল এবং শীর্ষে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
নয়া দিল্লি:

প্রতিদিনই দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুতহারে বাড়ছে। সব মিলিয়ে ভারতে এই মারণ রোগে আক্রান্তের (Coronavirus Cases in India) সংখ্যা ৭.৪২ লক্ষেরও বেশি, যার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২০,৬৪২ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় এদেশে ৪৮২ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা ভাইরাস। তবে আশার কথা এটাই যে, দেশে চিকিৎসা সহায়তায় করোনা (Coronavirus) থেকে সুস্থতার হার এখন বাড়তে বাড়তে ৬১.৫৩% এ এসে পৌঁছেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া বুধবারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সারা দেশে মোট ৭,৪২,৪১৭ জনের শরীরে আক্রমণ করেছে কোভিড- ১৯ (Covid-19)। তবে যতজন দেশে করোনা আক্রান্ত হয়েছে তাঁদের মধ্যে মোট ৪,৫৬,৮৩১ জন এই রোগ থেকে সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন। যতজনের শরীর থেকে নমুনা নিয়ে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে পজিটিভ হিসাবে পাওয়া গেছে মোট ৮.৬৬ শতাংশকে।

আইসিএমআরের নির্দেশিকা মেনেই ডেথ সার্টিফিকেট ইস্যু করতে হবে: রাজ্য সরকার

এখনও পর্যন্ত দেশের মধ্যে করোনা আক্রান্তের হিসেবে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্য হল মহারাষ্ট্র। গত ২৪ ঘণ্টায় ওই রাজ্য আরও ৫,১৩৪ জন নতুন করোনা রোগীর সন্ধান মিলেছে। এর ফলে সব মিলিয়ে মহারাষ্ট্রে মোট ২,১৭,১২১ জনের শরীরে বাসা বেঁধেছে করোনা ভাইরাস।

ক্রমশ খারাপ হচ্ছে বাংলার করোনা পরিস্থিতি, একদিনের মধ্যে ২৫ জনের মৃত্যু

মুম্বইয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মধ্যে ৭৮৫ জন নতুন করে এই মারণ রোগে আক্রান্ত হয়েছে, এর ফলে ওই শহরে মোট করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৮৬,৫০৯ এ দাঁড়ালো। একদিনের মধ্যে দেশের বাণিজ্যনগরীতে ৬৪ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। ফলে সেখানে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৫ হাজারেরও বেশি হয়ে গেল। তবে শহরে নতুন করে সংক্রমিতের সংখ্যা আগের তুলনায় অনেকটাই কমছে বলে দাবি করে কর্তৃপক্ষ বলেছে এটা একটা ভালো লক্ষণ।

সবচেয়ে বড় কথা, মুম্বইয়ের ২.৫ বর্গকিলোমিটার জায়গা জুড়ে থাকা ধারাভী বস্তি যেখানে প্রায় ৬.৫ লক্ষ মানুষ বাস করেন, সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র একজনের শরীরে নতুন করে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে।

তবে পশ্চিমবঙ্গেও দ্রুতহারে বাড়ছে সংক্রমণ। রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর তাদের সাম্প্রতিক মেডিক্যাল বুলেটিনে জানিয়েছে যে, সব মিলিয়ে বাংলায় ৮০৭ জনের প্রাণ কেড়েছে কোভিড- ১৯, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের। শুধু তাই নয়, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণও। এই নিয়ে পরপর ৩ দিন রাজ্যে একদিনে ৮০০ রও বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলো, যা চিন্তা বাড়িয়েছে স্বাস্থ্য আধিকারিকদের। রাজ্যের কোভিড বুলেটিনে বলা হয়েছে আরও ৮৩৭ জনের শরীরে নতুন করে করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। সব মিলিয়ে এরাজ্যে এখনও পর্যন্ত ২৩,৮৩৭ জন করোনার কবলে পড়েছেন।

বাতাসের মধ্যে দিয়েও করোনা সংক্রমণ প্রবল বেগে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে সম্প্রতি একদল আন্তর্জাতিক স্তরের বিজ্ঞানী দাবি করেছেন ও তার সপক্ষে প্রমাণও তুলে ধরেছেন। তাঁদের দাবি, ২ মিটার দূরত্ব পর্যন্ত বায়ুমাধ্যমে এই ভাইরাস ছড়াতে পারে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা 'হু' জানিয়েছে যে, বিজ্ঞানীদের দাবি সহ সমস্ত প্রমাণই খতিয়ে দেখছে তারা।