This Article is From Jul 14, 2020

পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনার কবলে ১,৪৩৫ জন, ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু

West Bengal: রাজ্য স্বাস্থ্য বিভাগের পরিসংখ্যান অনুসারে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩১,৪৪৮ জন হয়েছে, সব মিলিয়ে ৯৫৬ জনের প্রাণ কেড়েছে ওই ভাইরাস

পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনার কবলে ১,৪৩৫ জন, ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু

COVID-19 Cases in West Bengal: রবিবার থেকে এরাজ্যে মোট ১০,৩৫৯ টি করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে (প্রতীকী চিত্র)

হাইলাইটস

  • সারা দেশের মতোই পশ্চিমবঙ্গেও করোনা সংক্রমণ বাড়ছে
  • এরাজ্যে এখনও পর্যন্ত মোট ৯৫৬ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা
  • করোনায় মৃত্যু হয়েছে হুগলির এক ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট পদমর্যাদার আধিকারিকের
কলকাতা:

আতঙ্ক আরও বাড়িয়ে সোমবার পশ্চিমবঙ্গে (COVID-19 Cases in West Bengal) আরও ২৪ জনের প্রাণ কাড়লো করোনা ভাইরাস। এর ফলে রাজ্যে (West Bengal) মৃত করোনা রোগীর সংখ্যা হল ৯৫৬ জন। রাজ্য স্বাস্থ্য বিভাগের পরিসংখ্যান অনুসারে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩১,৪৪৮ জন হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনার (Coronavirus) কবলে পড়েছেন ১,৪৩৫ জন। তবে চিকিৎসা সহায়তায় যেহেতু বহু মানুষ সেরে উঠছেন তাই বর্তমানে রাজ্যে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা বর্তমানে ১১,২৭৯। রবিবার থেকে এরাজ্যে মোট ১০,৩৫৯ টি করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। পাশাপাশি ৬৩২ জনকে করোনা মুক্ত বলে ঘোষণা করে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

দেশে ৯ লক্ষ পেরিয়ে গেল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, তবে সুস্থতার হার ৬৩% এর বেশি

শহর কলকাতায় করোনার বাড়বাড়ন্ত চোখে পড়ছে। সেখানে একদিনের মধ্যে ১০ জনের প্রাণ কেড়েছে কোভিড- ১৯।  উত্তর ২৪ পরগনায় মারা গেছেন ৮ জন, হাওড়া ও হুগলি থেকে ২ জন করে রোগীর মৃত্যু হয়েছে এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় ১ জন করে করোনা রোগী মারা গেছে।

যুদ্ধ জয়ের ছবি, করোনার সঙ্গে লড়ে সফল কিডনি প্রতিস্থাপন কলকাতায়

কলকাতায় সোমবার নতুন করে ৪১৮ জন করোনা রোগীর সন্ধান মিলেছে, যা এখনও পর্যন্ত ওই শহরের নিরিখে একটি রেকর্ড। তারপরেই রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা, সেখানে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৩৬৩ জন এবং হাওড়ায় ১৬৮ জন নতুন করোনা রোগীর সন্ধান মিলেছে।

দক্ষিণ ২৪ পরগনায় আরও ৯৫ জন নতুন করে করোনার কবলে পড়েছে, শৈলশহর দার্জিলিংয়ে ৭৩ টি, মালদহে ৫৬টি এবং পূর্ব বর্ধমানে ৪৯ টি নতুন সংক্রমণের খোঁজ মিলেছে।

তবে গোটা রাজ্যে করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার হার এখন ৬১.০৯ শতাংশ।

এদিকে হুগলি জেলার ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট পদমর্যাদার একজন ঊর্ধ্বতন আধিকারিক, দেবদত্তা রায়, শ্রীরামপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। গত সপ্তাহেই তিনি করোনা পজিটিভ হিসাবে ধরা পড়েছিলেন।