রাজ্যে ফিরল লকডাউন, কলকাতায় বাড়ল কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা

রাজ্যের তরফে আরও জানানো হয়েছে, নতুন কনটেইনমেন্ট জোনগুলিতে কেউই অফিস যেতে পারবেন না। এছাড়াও কনটেইনমেন্ট জোনগুলি প্রবেশ ও প্রস্থানপথ বন্ধ রাখা হবে

রাজ্যে ফিরল লকডাউন, কলকাতায় বাড়ল কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা

রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় নতুন করে জারি করা হয়েছে লকডাউন (প্রতীকি ছবি)

কলকাতা:

রাজ্যের (West Bengal) বিভিন্ন জায়গায় নতুন করে জারি করা হয়েছে লকডাউন (Lockdown)। তারমধ্যে রয়েছে মালদার তিনটি পুরসভা এলাকা। বুধবার থেকে এক সপ্তাহ পর্যন্ত চলবে লকডাউন। মালদার ইংরেজবাজার, মালদাটাউন এবং কালিয়াচকে লকডাউন জারি করা হয়েছে। এছাড়াও উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলা, এবং উত্তর ২৪ পরগনার বেশ কয়েকটি পুরসভা এলাকায় লডাউন জারি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই সমস্ত খোলা থাকবে অত্যাবশকীয় পণ্যের দোকান, তবে অন্যান্য সমস্ত পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে বলে জানা গিয়েছে। ফলে রাজ্যে আবারও ফিরল লকডাউন। রাজ্যের সমস্ত কনটেইনমেন্ট জোনগুলিতে লকডাউন বাড়ানো হয়েছে।

৯ জুলাই বিকেল ৫টা থেকে এই লকডাউন জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি বাফার জোন এবং অ্যাফেক্টেড জোন এক করে দেওয়া হয়েছে এবারের নির্দেশিকায়। রাজ্য সরকারের তরফে জারি করা নয়া লকডাউন বিধিতে জানানো হয়েছে, নতুন কনটেইনমেন্ট জোনে সমস্ত অফিস বন্ধ রাখা হবে। একইসঙ্গে জরুরি নয়, এমন সমস্ত কার্যাবলীও বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে গণপরিবহন ব্যবস্থা। সমস্ত শপিং মল, কারখানাও বন্ধ রাখতে হবে বলে জানানো হয়েছে নয়া নির্দেশিকায়।

রাজ্যের তরফে আরও জানানো হয়েছে, নতুন কনটেইনমেন্ট জোনগুলিতে কেউই অফিস যেতে পারবেন না। এছাড়াও কনটেইনমেন্ট জোনগুলি প্রবেশ ও প্রস্থানপথ বন্ধ রাখা হবে।

এই নয়া নিয়ম কার্যকর হবে কলকাতা ও বিভিন্ন জেলায়।

রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “বর্ধিত কনটেইনমেন্ট জোনে কঠোরভাবে লকডাউন জারি থাকবে এবং সমস্ত সরকারি, বেসরকারি অফিস, জরুরি নয় এমন পরিষেবা. জমায়েত, পরিবহন, এবং ব্যবসায়ী ও উৎপাদন কারখানা বন্ধ থাকবে”।