একদিনে সর্বাধিক ৯৯৭১ জন সংক্রমিত! সংখ্যা ছাড়াল ২ লক্ষ ৪৫ হাজার, দেখুন ১০ পয়েন্টে

সুস্থতার হার বেড়ে ৪৮.৩৬%। রবিবার পর্যন্ত দেশে সুস্থ হয়েছেন ১,১৯,২৯৩ জন

একদিনে সর্বাধিক ৯৯৭১ জন সংক্রমিত! সংখ্যা ছাড়াল ২ লক্ষ ৪৫ হাজার, দেখুন ১০ পয়েন্টে

হাইলাইটস

  • একদিনে প্রায় দশ হাজার সংক্রমিত দেশে। সংক্রমিত ছাড়াল ২ লক্ষ ৪৫ হাজার
  • এখনও দেশে গোষ্ঠী সংক্রমণের খোঁজ নেই। জানালেন এইমস-এর চিকিৎসক
  • আগামি দুই-তিন মাস চলবে এই অস্বাভাবিক সংক্রমণ; দাবি তাঁর
নয়াদিল্লি: শনিবার স্পেনকে পিছনে ফেলে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে ভারত (Covid-19 in India)। সংক্রমণের নিরিখে এখন ভারতের আগে ইউএস; ইউকে; ব্রাজিল; রাশিয়া। এই পরিসংখ্যানের মধ্যেও একদিনে সর্বাধিক ৯৯৭১ জনের সংক্রমণ (Single day highest spike) দেশে সংক্রমিত ২ লক্ষ ৪৬ হাজার ৬২৮ জন। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পোর্টালে এমনটাই উল্লেখ। এদিন পর্যন্ত দেশে মোট মৃত ৬৯২৯ জন। এই বিষয়ে দিল্লি এইমস-এর চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া বলেছেন, "দিনপিছু এভাবে মাত্রাছাড়া সংক্রমণ আরও দু'-তিন মাস চলবে। তবে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণের খবর নেই।"

একদিনে সর্বাধিক ৯৯৭১ জন সংক্রমিত! দেখুন ১০ পয়েন্টে:

  1.  সংক্রমণের নিরিখে তালিকার শীর্ষে মহারাষ্ট্র। গত ২৪ ঘন্টায় সে রাজ্যে ২৭৩৯ জন সংক্রমিত। সংক্রমিত প্রায় ৮৩ হাজার। মিশন বিগিন এগেইনের তৃতীয় দফা সোমবার থেকে শুরু হবে। শিথিল করা হবে একাধিক বিধি

  2.  সংক্রমণের নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে তামিলনাড়ু। মোট সংক্রমণ ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে। গত ছ'দিন ধরে প্রায় হাজারের ওপর সংক্রমণের খবর মিলছে

  3.  সুস্থতার হার বেড়ে ৪৮.৩৬%। রবিবার পর্যন্ত দেশে সুস্থ হয়েছেন ১,১৯,২৯৩ জন

  4.  সংক্রমণের নিরিখে তৃতীয় স্থানে দিল্লি। দিনপিছু গড়ে সংক্রমিত প্রায় ১১০০। সে রাজ্য মোট সংক্রমিত ২৭ হাজার ৫০০ ছাড়িয়েছে। মৃত ৭৬১ জন

  5.  দিল্লির হাসপাতালে করোনা শয্যার সংখ্যা অপ্রতুল নয়। তাই সংক্রমণ উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীদের কম শয্যার অছিলায় ফেরানো যাবে না। শনিবার এই ভাষাতেই হাসপাতালগুলোকে সতর্ক করলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সম্প্রতি সোশাল মিডিয়ায় এই বিষয়ে বিস্তর চর্চা হয়েছে। অভিযোগ, "সংক্রমণ উপসর্গ নিয়ে যারা চিকিৎসাধীন হতে চাইছেন তাঁদের সেভাবে যত্ন করা হচ্ছে না।" সেই অভিযোগগুলোকে গুরুত্ব সহকারে বিচার করে এদিন সরব হলে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। তিনি স্পষ্ট করেছেন, "এভাবে অসাধু উদ্দেশ্য যারা চরিতার্থ করছেন, তাঁদের রেয়াত করা হবে না

  6.  এদিকে, ২৪ মার্চ থেকে দেশে লকডাউন চলছে। ৩০ জুন পর্যন্ত ধাপে ধাপে বাড়ানো হয়েছে লকডাউন। দেশে এখন পঞ্চম দফার লকডাউন। যাকে আনলক ১ .০ বলছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। ইতিমধ্য পয়লা জুন থেকে সব ধর্মীয় স্থান শর্তসাপেক্ষে খুলতে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। 

  7.  এদিকে ৮ জুন থেকে ধাপে ধাপে জনজীবন স্বাভাবিক করতে ইতিমধ্যে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এই সংক্রান্ত গাইড সোমবার থেকে লাগু হবে। গণজমায়েত স্থলে পরিমিত জমায়েত; ধর্মস্থানে গেলে মূর্তি স্পর্শ নিষিদ্ধের মতো বিষয়গুলো গাইডলাইনে উল্লেখ। তবে এইসব ছাড় শুধুমাত্র নন-কনটেইনমেন্ট জোনে। স্পষ্ট করেছে  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

  8.  অপরদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৪৯ জন মানুষ ইউএস-এ সংক্রমণে মৃত। সে দেশে মোট মৃত ১,০৯,৭৯১ জন

  9.  বিশ্বব্যাপী ৬৮ লক্ষ মানুষ সংক্রমিত 

  10.  গত ডিসেম্বরে চিনের উহানে প্রথম করোনা সংক্রমিত রোগীর খোঁজ মেলে। তারপর থেকে মানুষকে বাহক করে এখন অতিমারী এই ভাইরাস।