Lockdown 4: দিল্লি-নয়ডা সীমান্তে দীর্ঘ জ্যাম, চলছে কড়া নজরদারি

ই-পাস ছাড়া দিল্লি-নয়ডা সীমান্ত এড়িয়ে চলতে বলছে দিল্লি পুলিশ। কেননা উত্তরপ্রদেশের পুলিশ পাস ছাড়া কোনও গাড়িকে তাদের রাজ্যে ঢুকতে দিচ্ছে না।

Lockdown 4: দিল্লি-নয়ডা সীমান্তে দীর্ঘ জ্যাম, চলছে কড়া নজরদারি

মস্ত গাড়িকে শামুকের গতিতে নড়তে দেখা গিয়েছে দিল্লি-নয়ডা সীমান্তে।

নয়াদিল্লি:

সোমবার থেকে শুরু হয়েছে লকডাউন ৪ (Lockdown 4)। রবিবার কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, দেশব্যাপী লকডাউনের (Lockdown) মেয়াদ দু' সপ্তাহ বাড়িয়ে ৩১ মে পর্যন্ত করা হয়েছে। এদিন সকাল থেকেই দিল্লি-নয়ডা সীমান্তে (Delhi-Noida Border) গাড়ির দীর্ঘ সারি নজরে পড়ল। দিল্লি-নয়ডা ডিরেক্ট তথা ডিএনডি-র পথে সমস্ত গাড়িকে শামুকের গতিতে নড়তে দেখা গিয়েছে। সীমান্তে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তারা প্রতিটি গাড়ি চেক করে তবে ছাড়ছে। দিল্লি ট্র্যাফিক পুলিশ জনসাধারণকে পরামর্শ দিয়েছে, ই-পাস ছাড়া দিল্লি-নয়ডা সীমান্ত এড়িয়ে চলতে। কেননা উত্তরপ্রদেশের পুলিশ পাস ছাড়া কোনও গাড়িকে তাদের রাজ্যে ঢুকতে দিচ্ছে না।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের জারি করা নিষেধাজ্ঞাকে শিথিল করতে পারবে না রাজ্য: কেন্দ্র

লকডাউনের চতুর্থ পর্যায়ে দোকান, অফিস খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে কেন্দ্রের গাইডলাইনে বলা হয়েছে, যে কোনও রাজ্য চাইলে নিষেধাজ্ঞার পরিমাণ বাড়াতে পারে।

তবে রেড ও অরেঞ্জ জোনের কনটেনমেন্ট জোনে লকডাউনের গাইডলাইন জারি থাকবে না। সেখানে কেবল অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য বিক্রির অনুমতি রয়েছে।

করোনা সংক্রমণ নিয়ে নিরপেক্ষ তদন্তে ৬১ টি দেশের সঙ্গে সায় দিল ভারতও

কেন্দ্র জানিয়েছে, রাজ্যগুলিই নিজেদের রাজ্যে রেড, অরেঞ্জ ও গ্রিন জোন চিহ্নিত করতে পারবে করোনা সংক্রমণের আধিক্যের পরিমাণের উপর ভিত্তি করে।

রবিবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল দাবি করেন, চতুর্থ পর্যায়ের লকডাউনে যে গাইডলাইন প্রকাশ করেছে কেন্দ্র তার অধিকাংশই দিল্লি সরকারের প্রস্তাব মেনেই করা হয়েছে।

গত ২৫ মার্চ থেকে দেশব্যাপী লকডাউন চলছে। তারপর বারবার তার মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। রবিবার জানানো হয়, লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ মে পর্যন্ত করা হচ্ছে।