করোনা প্রভাবে ধুঁকছে দেশের অর্থনীতি, বেতন কমানো হচ্ছে সরকারি কর্মচারীদের

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে ২১ দিনের টানা লকডাউনের প্রভাব পড়েছে অর্থনীতিতে, সরকারি কোষাগারে টান পড়ায় এবার কর্মীদের বেতন কমাবে তেলেঙ্গানা সরকার

করোনা প্রভাবে ধুঁকছে দেশের অর্থনীতি, বেতন কমানো হচ্ছে সরকারি কর্মচারীদের

Telangana: করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সরকারি কোষাগারে টান, বেতন কমাচ্ছে তেলেঙ্গানা সরকার

হাইলাইটস

  • করোনা ভাইরাসের প্রভাবে ধুঁকছে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতি
  • অর্থনৈতিক পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশেষ টাস্ক ফোর্স গঠন করেছে মোদি সরকার
  • সরকারি কোষাগারে টান পড়ায় সরকারি কর্মচারীদের বেতন কমাচ্ছে তেলেঙ্গানা
হায়দরাবাদ:

করোনা ভাইরাস, মারাত্মক এই ভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রমণে বিশ্বে প্রতিদিনই প্রাণ যাচ্ছে অসংখ্য মানুষের। ভারতেও থাবা বসিয়েছে এই মারণ রোগ। এখনও পর্যন্ত এই দেশে করোনা সংক্রমণের জেরে প্রাণ গেছে সরকারি পরিসংখ্য়ান মতে ৩২ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে মোট ১,২৫১ জন। এই অবস্থায় সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউন করার পথে হেঁটেছে মোদি সরকার। কিন্তু ২১ দিনের এই টানা লকডাউনের প্রভাব পড়েছে দেশের অর্থনীতিতে, টান পড়েছে সরকারি কোষাগারেও। এই পরিস্থিতিতে সরকারি খরচ কমানোর পথে হাঁটল তেলেঙ্গানা। দেশের প্রথম রাজ্য (Telangana) হিসাবে সেখানকার সরকারি কর্মচারীদের বেতন কমানোর মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিল তেলেঙ্গানা সরকার। জানা গেছে, তেলেঙ্গানা সরকার তার কার্যনির্বাহী, রাজনৈতিক প্রতিনিধি, সরকারের অধীনস্থ সংস্থাগুলোর কর্মচারী, সরকারি অনুদান প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান গুলোর কর্মচারী, সরকারি কর্মচারীদের বেতন এবং অবসরপ্রাপ্তদের পেনশনের ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ থেকে ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত বেতন কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

শুধু যে ভারতেই এই ভাইরাস আর্থিক মেরুদণ্ডে ঘা দিয়েছে তা নয়, গোটা বিশ্বের অর্থনীতিও এর প্রভাবে টালমাটাল।আইএমএফের প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিভা জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাসের প্রকোপের ফলে বিশ্ব অর্থনীতি গভীর মন্দার মধ্যে ডুবে গেছে। এর থেকে ঘুরে দাঁড়াতে হলে উন্নয়নশীল দেশগুলির প্রচুর অর্থ সাহায্যের প্রয়োজন হবে। "এটা স্পষ্ট যে আমরা এক প্রবল আর্থিক মন্দার দিকে চলেছি, এই মন্দা গোটা বিশ্বজুড়েই হবে এবং এটির ফলে ২০০৯ সালের থেকেও খারাপ পরিস্থিতি আসবে", সাংবাদিকদের সামনে বলেন তিনি। আমরা এমন একটি মন্দা পরিস্থিতিতে প্রবেশ করেছি যার আর্থিক সংকট ২০০৯ সালের চেয়েও খারাপ হবে।"

ভারতে একদিনে করোনা আক্রান্ত হওয়ার নয়া রেকর্ড, নতুন ২২৭ জন রোগীর সন্ধান

এদিকে এই পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়াতে পদক্ষেপ করছে মোদি সরকার। এই পরিস্থিতির সঙ্গে যুঝতে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের নেতৃত্বে একটি টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি দেশের আর্থিক পরিস্থিতির মূল্যায়ন করবে এবং আগামীতে এগিয়ে যাওয়ার জন্যে পরামর্শ দেবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বেতন কাটছাঁটের সিদ্ধান্ত নিতে গত রবিবারই এক বিশেষ বৈঠক করেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। ওই বৈঠকের পরেই সরকারি তরফে ঘোষণা করা হয় যে, মুখ্যমন্ত্রী তাঁর নিজের এবং মন্ত্রিপরিষদ ও বিধায়কদের বেতন ৭৫ শতাংশ কাটছাঁট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। রাজ্যের বিভিন্ন পুরসভার আধিকারিকদের বেতনও একইভাবে কমানো হবে।

দিল্লির মসজিদের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া তেলেঙ্গানার ৬ জনের করোনায় মৃত্যু

আইএএস, আইপিএস, আইএফএস এবং অন্যান্য কেন্দ্রীয় পরিষেবা আধিকারিকদের ক্ষেত্রেও ৬০ শতাংশ বেতন কমিয়ে দেওয়া হবে, অন্য শ্রেণির কর্মীদের ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ বেতন কাটা হবে বলে তেলেঙ্গানা সরকার জানিয়েছে।

শুধু স্থায়ী সরকারি কর্মচারীদেরই যে বেতন কমানো হবে তা নয়, চুক্তিভিত্তিক কর্মী ও অবসরকালীন ভাতা প্রাপকদেরও টাকা কমিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে চন্দ্রশেখর রাও সরকার।