১৫ এপ্রিল পর্যন্ত পুরোপুরি ‘সিল’ থাকবে লখনউ, নয়ডা সহ উত্তরপ্রদেশের ১৫টি জেলা

লখনউ, নয়ডা সহ উত্তরপ্রদেশের ১৫টি জেলাকে পুরোপুরি ‘সিল’ করে দেওয়া হবে। সমস্ত অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রীই হোম ডেলিভারি করা হবে। 

১৫ এপ্রিল পর্যন্ত পুরোপুরি ‘সিল’ থাকবে লখনউ, নয়ডা সহ উত্তরপ্রদেশের ১৫টি জেলা

উত্তরপ্রদেশের ১৫টি জেলাকে পুরোপুরি ‘সিল’ করে দেওয়া হবে।

লখনউ, নয়ডা সহ উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) ১৫টি জেলাকে পুরোপুরি ‘সিল' করে দেওয়া হবে। সমস্ত অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রীই হোম ডেলিভারি করা হবে। তালিকায় রয়েছে লখনউ, গৌতম বুদ্ধ নগর, গাজিয়াবাদ, মীরাট, আগ্রা, শামলি ও সাহারানপুরের মতো জেলার নাম। উত্তরপ্রদেশে এখনও পর্যন্ত ৩২৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন ২১ জন। দেশের মুখ্য রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর প্রধান‌মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইঙ্গিত দিয়েছেন ২১ দিনের লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে। এরপরই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এই ঘোষণা করেন।

NDTV-কে এক সূত্র জানাচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী এদিন জানিয়েছেন তিনি সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। কিন্তু তাঁর মতে লকডাউন তুলে নেওয়া এখনই সম্ভবপর হবে না। আগামী ১১ এপ্রিল মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও বৈঠকের পরে এব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে মন‌ে করা হচ্ছে।

এই সপ্তাহেই উত্তরপ্রদেশ জানিয়ে দিয়েছিল তারা লকডাউনের সম্প্রসারণের পক্ষে।

উত্তরপ্রদেশের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব অবনীশ অবস্তি জানিয়েছেন, ‘‘যখন আমরা নিশ্চিত হব রাজ্য করোনা-মুক্ত, তখনই আমরা লকডাউন তুলে দেব। যদি একজনও করোনা পজিটিভ থেকে যান, তাহলে লকডাউন তোলাটা খুবই কঠিন হবে। আর এর জন্য আমাদের সময় প্রয়োজন।''

আরও কিছু রাজ্য, যার মধ্যে বিজেপির শাসনাধীন রাজ্য যেমন অসম, কর্নাটকও রয়েছে, তারা ধাপে ধাপে লকডাউন তোলার পক্ষে। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলত জানিয়েছেন, তাঁরাও চান একেবারে না তুলে ধাপে ধাপে লকডাউন তোলা হোক।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com