This Article is From May 28, 2020

টানা সপ্তম দিন ৬,০০০ ছাড়াল দেশের দৈনিক করোনা সংক্রমণ: ১০ তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা (Coronavirus) সংক্রমিত হয়েছেন ৬,৫৬৬ জন। এই নিয়ে টানা সাত দিন দেশে সংক্রমণের সংখ্যা ৬,০০০-এর উপরে থাকল।

এই সপ্তাহে দেশের করোনা সংক্রমণ ছাড়িয়েছে দেড় লক্ষ।

নয়াদিল্লি: গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা (Coronavirus) সংক্রমিত হয়েছেন ৬,৫৬৬ জন। এই নিয়ে টানা সাত দিন দেশে দৈনিক কোভিড-১৯ (COVID-19) সংক্রমণের সংখ্যা (Coronavirus cases in India) ৬,০০০-এর উপরে থাকল। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ১৯৪ জন। করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পরে একদিনে মৃত্যুর নিরিখে এই সংখ্যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। দেশে মোট করোনা আক্রান্ত ১,৫৮,৩৩৩ জন। মৃত ৪,৫৩১। সুস্থ হয়ে গিয়েছেন ৬৭,৬৯২ জন। বৃহস্পতিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক এই তথ্যগুলি জানিয়েছে। এই সপ্তাহেই করোনা আক্রান্ত সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় প্রথম দশে ঢুকে পড়েছে ভারত। রবিবার চতুর্থ দফার লকডাউন শেষ হচ্ছে। লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হবে কিনা, সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানা যায়নি।

জেনে নিন এবিষয়ে ১০টি তথ্য::

  1. প্রধানমন্ত্রীর দফতরের তরফে ২৫ মার্চ থেকে জারি লকডাউন পর্বকে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিভিন্ন রাজ্যের অনুরোধে, বর্তমান দফার লকডাউনে নানা ছাড় দেওয়া হয়েছে। শুরু হয়েছে আন্তঃরাজ্য বিমান পরিষেবা। লকডাউন শিথিল হওয়ার পর থেকেই দেশে করোনা সংক্রমণের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। 

  2. পরিযায়ী শ্রমিকদের সমস্যা ও দুঃখ-দুর্দশা ঘোচাতে কী পদক্ষেপ করা হয়েছে সম্পর্কে বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে একটি শুনানি হবে। এই সপ্তাহেই কেন্দ্র, রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে বিজ্ঞপ্তি জারি করে পরিযায়ীদের জন্য কী পদক্ষেপ করা হয়েছে সে সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। 

  3. লকডাউন শুরুর পরে এপ্রিল মাসেই চাকরি গিয়েছে ১২২ মিলিয়ন ভারতীয়র। পাশাপাশি দৈনিক রোজের ভিত্তিতে কাজ করা শ্রমিক ও ছোট ব্যবসায়ীরা করোনা অতিমারী ও লকডাউনের ধাক্কায় জর্জরিত। রাষ্ট্রসঙ্ঘের এক সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, বিশ্বব্যাঙ্কের নির্দিষ্ট করা দারিদ্রসীমার নীচে চলে যেতে পারেন ১০৪ মিলিয়ন ভারতীয়। 

  4. এই সপ্তাহেই দিল্লির করোনা সংক্রমণ ছাড়াল ১৫,০০০। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৭৯২ জন। রাজ্যে একদিনের এতজনের আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যার ভিত্তিতে এটা রেকর্ড। দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এই মুহূর্তে ১৫,২৫৭। মৃত ৩০৩। 

  5. একদিনের নিরিখে সংক্রমণের নয়া রেকর্ড গড়ল তামিলনাডু। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে আক্রান্ত ৮১৭ জন। এর মধ্যে রয়েছেন মহারাষ্ট্র থেকে রাজ্যে ফেরা ১৩৮ জন। তামিলনাডুতে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৮,৫৪৫। মৃত ১৩৩। 

  6. জম্মু ও কাশ্মীরেও একদিনের নিরিখে সংক্রমণের নয়া রেকর্ড দেখা গিয়েছে বুধবার। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে আক্রান্ত ১৬২। ফলে রাজ্যের কোভিড-১৯ সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১,৯২১। মৃতের সংখ্যা ২৬।

  7. বাড়তে থাকা করোনা সংক্রমণের পাশাপাশি অসমকে লড়তে হচ্ছে বন্যার সঙ্গেও। রাজ্যের গোয়ালপাড়া জেলাতেই বন্যার কবলে পড়েছেন ২.১৫ লক্ষ মানুষ। ১৬,০০০ জনকে ত্রাণ শিবিরে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোওয়াল রাজ্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেছেন, এই পরিস্থিতিতেও যেন করোনার সংক্রমণ এড়াতে প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করা হয়। 

  8. ব্যাঙ্ক পুনরুদ্ধারের জন্য প্রাথমিক ভাবে ২৫,০০০ কোটি টাকা বাজেটে রেখেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। একটি সমীক্ষায় মনে করা হচ্ছে আরও ১.৫ লক্ষ কোটি টাকা দেওয়া দরকার সরকারের তরফে। প্রসঙ্গত, দেশের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে ক'দিন আগেই ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার।  

  9. আমেরিকায় কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃত্যুর সংখ্যা ১ লক্ষ পেরিয়ে গেল। জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে একথা জানা গিয়েছে। আমেরিকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ লক্ষ ছাড়িয়েছে। এদিকে গত পাঁচ দিন দৈনিক হিসেবে বিশ্বে সবথেকে বেশি করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে ব্রাজিলে। সেখানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪,৫১২। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪ লক্ষ। 

  10. উহানের গবেষণাগারে তৈরি করা হয়েছে করোনা ভাইরাস— আমেরিকার এমন অভিযোগকে অস্বীকার করে চিনা গবেষকরা আবারও জানিয়েছেন, শহরের পশু মাংস বিক্রয়ের দোকান থেকেই কোভিড-১৯ ভাইরাস ছড়াতে শুরু করেছিল। তবে এবিষয়ে কোনও প্রত্যক্ষ প্রমাণ মেলেনি বলে জানিয়েছেন এক চিনা গবেষক।