গান্ধি পরিবারের থেকে এসপিজি প্রত্যাহার, অমিত শাহের বাড়ির সামনে প্রতিবাদ কংগ্রেসের

গান্ধি পরিবারের ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, তাঁদের জানানো হয়নি এবং সংবাদমাধ্যমের খবর থেকে জানতে পেরেছেন

সম্প্রতি নিরাপত্তা নিয়ে পর্যালোচনার করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে সরকারি সূত্রে জানা গিয়েছে

নয়াদিল্লি:

কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধি (Sonia Gandhi), তাঁর দুই সন্তান রাহুল গান্ধি এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধি ভঢ়রাকে আর এসপিজি বা স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপের (Special Protection Group) নিরাপত্তা বলয় দেওয়া হবে না, শুক্রবার এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এখন থেকে গান্ধি পরিবারের নিরাপত্তায় থাকবে জেড প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা বলয়। সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের (Amit Shah) বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখান কংগ্রেস কর্মীরা। এক কংগ্রেস কর্মী নিরাপত্তা “কমিয়ে দেওয়া” নিয়ে বলেন, “সনিয়া গান্ধি, রাহুল গান্ধি এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধির জীবন নিয়ে খেলা করা হচ্ছে। কীসের ভিত্তিতে তারা এটা করল”, ১৯৯১-এ  প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধি হত্যার পর থেকেই এসপিজি নিরাপত্তা বলয় পান তাঁরা।

গান্ধি পরিবারের ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, তাঁদের জানানো হয়নি এবং সংবাদমাধ্যমের খবর থেকে জানতে পেরেছেন। জেড প্লাস নিরাপত্তা বলয়ের অর্থ গান্ধি পরিবারের প্রতিটি সদস্যের সঙ্গে থাকবেন কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের ১০০ জন জওয়ান।

সরকারি সূত্রে জানা যাচ্ছে, সম্প্রতি একটি নিরাপত্তা পর্যালোচনার পরে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সূত্রানুসারে, এসপিজির অভিযোগ, গান্ধি পরিবার তাদের সঙ্গে সহযোগিতা করেনি ও তাদের মসৃণ কার্যকারিতায় বাধাপ্রাপ্তি ঘটিয়েছে। ১৯৯১ সালের পর থেকে রাহুল গান্ঢি তাঁর ১৫৬টি বিদেশ ভ্রমণের ১৪৩টি ক্ষেত্রেই এসপিজি সুরক্ষা নেননি। এবং প্রতিবারই তিনি তাঁর সফরসূচই একেবারে শেষে জানিয়েছেন।

কংগ্রেস সভাপতি সনিয়া গান্ধি জানিয়েছেন, ‘‘বিজেপি তাদের ব্যক্তিগত প্রতিহিংসার চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। জঙ্গি হানা ও হিংসা থেকে দু'জন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের জীবনের বিষয়ে তারা আপস করছে।''

রাজীব গান্ধির হত্যার পর থেকে এসপিজি সুরক্ষা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীদের পরিবারকেও পরবর্তী ১০ বছর ধরে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। পরে, ২০০৩ সালে অটলবিহারী বাজপেয়ী সরকার এই নিয়মে পরিবর্তন করে ১০ বছরের সময়সীমাকে কমিয়া ১ বছর করে।

সরকারি সূত্রের দাবি, গান্ধি পরিবারকে এসপিজি নিরাপত্তা বলয় না দেওয়ার কারণ নিরাপত্তা পর্যালোচনার ফলে নেওয়া সিদ্ধান্ত। প্রতি পাঁচ বছর এই পর্যালোচনা করা হয়।

More News