''দেশের গণতন্ত্র ও সংবিধান বাঁচানোর সময় এসে গেছে'': সনিয়া গান্ধি

বর্তমান সরকারের হাতে পড়ে দেশের অর্থনীতি থেকে আইন সবই অবক্ষয়ের পথে, এমনটাই মনে করছে বিজেপি (BJP) বিরোধী কংগ্রেস (Congress) দলের বর্ষীয়ান নেতারা

''দেশের গণতন্ত্র ও সংবিধান বাঁচানোর সময় এসে গেছে'': সনিয়া গান্ধি

দেশকে অবশ্যই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে: সনিয়া গান্ধি

নয়াদিল্লি:

বর্তমান সরকারের হাতে পড়ে দেশের অর্থনীতি থেকে আইন সবই অবক্ষয়ের পথে, এমনটাই মনে করছে বিজেপি (BJP) বিরোধী কংগ্রেস (Congress) দলের বর্ষীয়ান নেতারা, আর তারই প্রতিবাদে শনিবার রাজধানী দিল্লিতে এক বিশাল জন সমাবেশের ডাক দিয়েছে কংগ্রেস।এই ‘ভারত বাঁচাও' (Bharat Bachao) সমাবেশে অংশ নিয়েছেন সনিয়া গান্ধি (Sonia Gandhi), মনমোহন সিং এবং রাহুল গান্ধি সহ বহু শীর্ষ নেতারা। দেশের অর্থনৈতিক দুরবস্থা, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন, কৃষকদের দুর্দশা ও কর্মসংস্থান সহ বিভিন্ন দাবিতেই  এই সমাবেশের ডাক দিয়েছে বিরোধী এই দল।

“সত্যি কথা বলার জন্যে ক্ষমা চাইবো না”, ফের বললেন রাহুল গান্ধি

কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি সনিয়া গান্ধি জনগণকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি দৃঢ়তার সাথে জানিয়ে দিয়েছেন যে কংগ্রেস দল পিছপা হবে না এবং দেশ ও গণতন্ত্রকে বাঁচানোর জন্য শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত লড়াই করার দায়িত্ব পালন করবে।

বাংলায় এনআরসি বা নাগরিকত্ব আইন কোনটাই হবে না, উত্তেজনা ছড়াবেন না: মমতা

রামলীলা ময়দানে দলের "ভারত বাঁচাও সমাবেশ"-এ তিনি বলেন, দেশের অবস্থা এখন "আন্ধের নাগরী চৌপত রাজা (বিশৃঙ্খল নেতা, বিশৃঙ্খল রাষ্ট্র)"-র মতো।এখন সমগ্র জাতির সামনে একটাই প্রশ্ন, "সাবকা সাথ সবকা বিকাশ''-কোথায়"? তিনি দৃঢ়তার সাথে জানিয়েছেন যে, এই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে দেশ লড়াই করবে কারণ এটি ভারতের আত্মাকে "বিভক্ত" করছে। "অন্যায়কে সহ্য করা সবচেয়ে বড় অন্যায়। গণতন্ত্র ও সংবিধান বাঁচানোর সময় এসে গেছে। দেশকে বাঁচানোর সময় এসেছে এবং এর জন্য আমাদের কঠোর সংগ্রাম করতে হবে।''  

তিনি আরও বলেন, "মোদী-শাহ সরকার সংসদ বা প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে মাথা ঘামায় না।তারা মানুষে মানুষে বিভেদ সৃষ্টি করে সংঘর্ষের পরিবেশ গড়ে তুলতে চাইছে, যাতে তাদের ব্যর্থতা গুলিকে গোপন করা যায়, কংগ্রেস সভাপতি এটিকেই তাদের একমাত্র এজেন্ডা বলে মনে করেছেন। তাঁর মতে, তারা প্রতিদিন সংবিধান লঙ্ঘন করে ঠিকই কিন্তু সংবিধান দিবস উদযাপন-এ কোনো ত্রুটি রাখে না।  



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News