This Article is From Feb 27, 2020

কেন্দ্র ও দিল্লি সরকার দিল্লির হিংসার ‘নীরব দর্শক’: কংগ্রেস

রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি দেওয়ার সময় সনিয়া গান্ধি জানালেন, কেন্দ্র ও দিল্লির নবনির্বাচিত সরকার দিল্লির হিংসার নীরব দর্শক।

কেন্দ্র ও দিল্লি সরকার দিল্লির হিংসার ‘নীরব দর্শক’: কংগ্রেস

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে বরখাস্ত করা উচিত কর্তব্যে গাফিলতির জন্য। এবং কেন্দ্র ও দিল্লির নবনির্বাচিত সরকার দিল্লির হিংসার নীরব দর্শক। এদিন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে এমনই অভিযোগ করেন কংগ্রেস সভাপতি সনিয়া গান্ধি। প্রসঙ্গত, দিল্লির হিংসায় মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩৪-এ। আহত ২০০-রও বেশি। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ বলেন, ‘‘আমরা রাষ্ট্রপতির কাছে আর্জি জানাই রাজধর্ম পালনে তিনি নিজের ক্ষমতার ব্যবহার করুন।'' তিনি দিল্লির হিংসার তীব্র নিন্দা করেছেন। সনিয়া গান্ধি বিজেপি ও আপকে কেন্দ্র করে বলেন, ‘‘কেন্দ্র ও দিল্লির নবনির্বাচিত সরকার দিল্লির হিংসার নীরব দর্শক।''

উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে হিংসার বলির সংখ্যা বেড়ে হল ৩৪, গ্রেফতার ১৩০, ১০ তথ্য

কংগ্রেস হিংসার কারণে অমিত শাহর পদত্যাগও দাবি করে। রবিবার থেকে উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ শুরু হয়েছে।

গত চারদিন ধরে চলতে থাকা সংঘর্ষে লেগেছে সাম্প্রদায়িকতার রং। পুলিশের প্রতি অভিযোগ, তারা দাঙ্গা নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। পাথর ছোঁড়া, লুঠপাটের ক্ষেত্রেও পুলিশ কিছু করতে পারেনি বলে অভিযোগ উঠেছে।

দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতির বদলি ‘নিয়মমাফিক', বিতর্কের মধ্যেই জানাল সরকার

কংগ্রেস তাদের স্মারকলিপিতে জানিয়েছে, ‘‘রাষ্ট্রপতিজি, আপনাকে দেশের সংবিধানের সর্বোচ্চ সম্ভাব্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সরকারের বিবেক রক্ষক হিসেবে এবং তাদের সংবিধান‌িক দায়িত্ব মনে করিয়ে দিয়ে রাজ ধর্মের স্তম্ভ হয়ে ওঠা। যার উপরে কোনও সরকার দাঁড়িয়ে থাকে।''

পাশাপাশি তাঁর কাছে নাগরিকদের জীবন, স্বাধীনতা, সম্পত্তি রক্ষা করার আর্জিও জানানো হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে দায়িত্ব থেকে অবিলম্বে সরিয়ে দেওয়ার আর্জিও জানায় তারা।